RAJARBAGER POTHE -blog


...


 


প্রখ্যাত ইমাম-মুজতাহিদ উনাদের দৃষ্টিতে পবিত্র হারামাইন শরীফে পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালনের ইতিহাস।


বাতিল ফিরক্বার লোকেরা বলে থাকে পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ নাকি এই সেদিন থেকে প্রচলিত হয়েছে। নাউযুবিল্লাহ! হারামাইন শরীফে এ দিবস পালন হতো না! নাউযুবিল্লাহ! অথচ ইতিহাস সাক্ষী- সম্মানিত দ্বীন ইসলাম উনার শুরু থেকেই হারামাইন শরীফে পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালন হতো।



কুল-কায়িনাতের নবী ও রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পবিত্র বিলাদতী শান মুবারক প্রকাশ


  মহান আল্লাহ পাক উনার নবী ও রসূল হযরত ইয়াহইয়া আলাইহিস সালাম উনার সম্পর্কে পবিত্র কুরআন শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, “উনার প্রতি সালাম (শান্তি বা অভিবাদন) যেদিন তিনি বিলাদত শরীফ লাভ করেন এবং যেদিন তিনি বিছালী শান মুবারক প্রকাশ



পবিত্র ঈদে মীলাদুন্নবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম অর্থাৎ সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালন করা কুল-কায়িনাতের সর্বশ্রেষ্ঠ ইবাদত


খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, يَااَيُّهَا النَّاسُ قَدْ جَاءَتْكُمْ مَوْعِظَةٌ مّـِنْ رَّبّـِكُمْ وَشِفَاء لّـِمَا فِى الصُّدُوْرِ وَهُدًى وَّرَحْمَةٌ لّـِلْمُؤْمِنِيْنَ. قُلْ بِفَضْلِ اللهِ وَبِرَحْمَتِهٖ فَبِذٰلِكَ فَلْيَفْرَحُوْا هُوَ خَيْرٌ مّـِمَّا يَـجْمَعُوْنَ. অর্থ: “হে মানুষেরা! হে সমস্ত জিন-ইনসান, কায়িনাতবাসী!



সাইয়্যিদাতুনা হযরত উম্মু রসূলিনা ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্মানিত বংশীয় পবিত্রতা মুবারক


মহান আল্লাহ পাক তিনি সম্মানিত কুরআন শরীফ’ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেছেন, وَتَقَلُّبَكَ فِي السَّاجِدِينَ অর্থ: “(হে আমার হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম!) আপনার স্থানান্তরিত হওয়ার বিষয়টিও ছিল সম্মানিত সিজদাকারীগণ উনাদের মাধ্যমে।” সুবহানাল্লাহ! (সম্মানিত সূরা শুয়ারা শরীফ : সম্মানিত আয়াত শরীফ



কুল-কায়িনাতের নবী ও রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পবিত্র বিলাদতী শান মুবারক প্রকাশ


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার ছহীহ ও প্রসিদ্ধ কিতাব- মুয়াত্তা মালিক, ইবনে মাজাহ, মিশকাত শরীফ ইত্যাদি কিতাব মুবারক উনাদের মধ্যে বর্ণিত রয়েছে, মহান আল্লাহ পাক উনার প্রথম নবী ও রসূল আবুল বাশার হযরত আদম ছফীউল্লাহ আলাইহিস সালাম উনার সৃষ্টি, উনার যমীনে আগমন



পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয় সাল্লাম উদযাপন ও পবিত্র মীলাদ শরীফ পাঠ সম্পর্কে- প্রখ্যাত ওলীআল্লাহ ও আলিমে


পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উদযাপন ও পবিত্র মীলাদ শরীফ পাঠ সম্পর্কে আল্লামা জালালুদ্দীন সুয়ূতী রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার গুরুত্বপূর্ণ ফতওয়া আলোচনা করার পূর্বে উনার পবিত্র সাওয়ানেহ উমরী বা জীবনী মুবারক সংক্ষিপ্তভাবে হলেও আলোচনা করা জরুরী। এতে উনার ফতওয়ার



সুমহান বরকতময় পবিত্র ২৮শে ছফর শরীফ। মহান আল্লাহ পাক উনার খালিছ ওলী আফযালুল আউলিয়া হযরত মুজাদ্দিদে আলফে ছানী রহমতুল্লাহি


ক্বওল শরীফ  _______________________________________________________________________________________________________ _______________________________________________________________________________________________________ নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘নিশ্চয়ই মহান আল্লাহ পাক তিনি এ উম্মতের হিদায়েতের জন্য প্রত্যেক হিজরী শতকের শুরুতে একজন মুজাদ্দিদ পাঠান; যিনি সম্মানিত দ্বীন উনার তাজদীদ মুবারক করেন।’ আগামীকাল



ক্বাইয়্যুমে আউওয়াল, সাইয়্যিদুনা হযরত মুজাদ্দিদে আলফে ছানী রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার ফাযায়িল-ফযীলত ও সংক্ষিপ্ত সাওয়ানেহ উমরী মুবারক


মহান আল্লাহ পাক উনার ওলীগণ উনাদেরকে মুহব্বত ও অনুসরণ-অনুকরণ করার কথা খোদ পবিত্র কুরআন শরীফ ও পবিত্র হাদীছ শরীফ উনাদের মধ্যে রয়েছে। এ প্রসঙ্গে মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “হে ঈমানদারগণ! তোমরা মহান আল্লাহ পাক উনাকে, উনার রসূল, নূরে



সাইয়্যিদুনা হযরত মুজাদ্দিদে আলফে ছানী রহমতুল্লাহি আলাইহি উনাকে আনুষ্ঠানিকভাবে ‘মুজাদ্দিদ’ হিসেবে ঘোষণা


হযরত আম্বিয়া আলাইহিমুস সালাম উনারা সাধারণত যে বয়স মুবারকে আনুষ্ঠানিকভাবে সম্মানিত নুবওওয়াতী শান মুবারক প্রকাশ করতেন, সেই বয়স মুবারকে অর্থাৎ চল্লিশ বছর বয়স মুবারকে সাইয়্যিদুনা হযরত মুজাদ্দিদে আলফে ছানী রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি ‘মুজাদ্দিদ’ খিতাব মুবারকে আনুষ্ঠানিকভাবে ভূষিত হন। সময়টি ছিল ১০১০



আফদ্বালুল আউলিয়া, ইমামে রব্বানী, গাউছে সামদানী, সাইয়্যিদুনা হযরত মুজাদ্দিদে আলফে ছানী রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার প্রতি সুসংবাদ


১। সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খাতামুন নাবিইয়ীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি আফদ্বালুল আউলিয়া, ইমামে রব্বানী, গাউছে সামদানী সাইয়্যিদুনা হযরত মুজাদ্দিদে আলফে ছানী রহমতুল্লাহি আলাইহি উনাকে সুসংবাদ দিয়ে বলেন, “আপনি ইলমে কালাম উনার মুজতাহিদ।” সুবহানাল্লাহ! ২।



মু’মিনে কামিল হওয়ার জন্য সাইয়্যিদুনা হযরত মুজাদ্দিদে আলফে ছানী রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার অমূল্য দশটি নছীহত মুবারক আমল করা অপরিহার্য


আফদ্বালুল আউলিয়া সাইয়্যিদুনা হযরত মুজাদ্দিদে আলফে ছানী রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি বলেন- যে পর্যন্ত কেউ দশটি কাজের আমল না করবে সে পর্যন্ত কামিল হতে পারবে না। (১) গীবত বা পরনিন্দা হতে বেঁচে থাকতে হবে। (২) অন্যের প্রতি খারাপ ধারণা হতে দূরে থাকতে



আফদ্বালুল আউলিয়া হযরত সাইয়্যিদুনা মুজাদ্দিদে আলফে ছানী রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার কতিপয় অমূল্য নছীহত মুবারক


মহান আল্লাহ পাক উনার সাথে শরিক করা কখনোই উচিত নয়। যে ইবাদত শিরিক ও রিয়া (লোক দেখানো) হতে মুক্ত হবে না, মহান আল্লাহ পাক তিনি তা কবুল করবেন না। নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি বলেন, আমার