ইসলাম কিংডম -blog


egypt


 


নিজ হাতে উপার্জিত খাদ্য সর্বোত্তম খাদ্য


রিযক অন্বেষণ করা, জীবনধারণের উপকরণ সন্ধান করা, ইসলামী শরীয়তের একটি স্পষ্ট নির্দেশ। মানবাত্মাও প্রকৃতিগতভাবে রিযক অন্বেষণের পেছনে ছুটে চলে। আর আল্লাহ তাআলা দিনকে করেছেন জীবিকা অর্জনের সময়কাল। তিনি মানুষকে নির্দেশ দিয়েছেন ভূপৃষ্ঠে বিচরণ করতে এবং তাঁর দেয়া রিযক ভোগ করতে। শুধু



মানুষের ভালোবাসা প্রাপ্তি ও অন্তর জয়ের মাধ্যম


আল্লাহর খাতিরে, পরকালীন কল্যাণের আশায় মানুষের হৃদয় আকৃষ্ট করার প্রতি ইসলাম খুবই গুরুত্ব দিয়েছে। প্রিয় নবী মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ছিলেন মানুষের কল্যাণ কামনায় ও তাদের হৃদয় আকৃষ্ট করায় সর্বশ্রেষ্ঠ। আত্মীয়তার বন্ধন রক্ষা করা, অসহায় মানুষের বোঝা বহন, মেহমানদারি, বিপদে-আপদে



জিহাদের চেয়েও পিতার-মাতার সেবার গুরুত্ব বেশি


এক ব্যক্তি রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের কাছে জিহাদে যাওয়ার অনুমতি চাইলে উত্তরে তিনি বলেন, তোমার পিতা-মাতা কি জীবিত? লোকটি বলল, ‘জ্বি’। তিনি বললেন, ‘তাহলে তাদের মাঝেই জিহাদ করো’-অর্থাৎ,তাদের সেবায় শ্রম দাও’ (বর্ণনায় বুখারী)। পিতা-মাতার সাথে সদ্ব্যবহার এমন এক হক যা আল্লাহ



হযরত নূহ আলাইহিস সালাম এর ইতিহাস


হযরত  নূহ আলাইহিস সালাম এর সম্প্রদায়ের লোকেরা ইতিপূর্বে ঈমানদার ছিলেন, এক আল্লাহর ইবাদত করত, পরকালে বিশ্বাসী ছিলেন, তারা ভাল কাজ করতেন, সে সব লোক মারা গেলেন। লোকজন তাদের সততা ও আখলাকের কারণে চিন্তিত হলেন। তারা সে সব লোকের মূর্তি বানালো, তারা



নিপুণ সৃষ্টি


কাউকে যদি বলা হয়, একটি বিশাল অট্টালিকা বা একটি রাজপ্রাসাদ নিজে নিজেই সৃষ্টি হয়েছে, তাহলে কেউ নিশ্চয় এটা বিশ্বাস করবেন না। যদি কেউ বলে, দেখ, এই দালানটি হঠাৎ নিজের থেকে তৈরি হয়ে গেল, সবাই তাকে পাগল বলবে। তাহলে বলুন, এ বিশ্ব



বিশ্ববাসীর জন্য রহমত স্বরূপ


আল্লাহ তায়া’লা রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে বিশ্ববাসীর জন্য রহমত স্বরূপ প্রেরণ করেছেন। আল্লাহ তায়া’লা বলেন: আমি আপনাকে বিশ্ববাসীর জন্যে রহমত স্বরূপই প্রেরণ করেছি। (সূরা আম্বিয়াঃ ১০৭) রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম মুসলিম ও অমুসলিম সকলের জন্যই রহমত, অনুগত ও অবাধ্য, ছোট-বড়, নারী,



নবী রাসূলদের উপর ঈমান


আল্লাহ তাআলা মানবজাতীকে দুনিয়াতে পাঠিয়েছেন, মানুষ প্রথমে হেদায়েতের উপরই ছিল, অতঃপর মানুষ যখন পরস্পরে বিরোধ করতে শুরু করল, সত্য ও হেদায়েত থেকে দূরে সরে যেতে লাগল, তখনই আল্লাহ তাআলা তাদেরকে শিক্ষাদীক্ষা ও আখেরাতের ভয় প্রদর্শনের জন্য ধারাবাহিকভাবে নবী রাসুলদেরকে তাঁর শরিয়ত



ইখলাস


ইখলাস একটি মহৎ বিষয়, আমল কবুল হওয়ার অন্যতম এক স্তম্ভ। কেননা আল্লাহ তাআলা বান্দার কোনো আমলই কবুল করেন না যদি তা একমাত্র তাঁরই উদ্দেশ্যে, একমাত্র তাঁকেই রাযি-খুশী করার জন্য সম্পাদিত না হয়। যে আমলে আল্লাহ ছাড়া অন্য কাউকে উদ্দেশ্য করা হয়,



মহাবিশ্ব সৃষ্টির রহস্য


আল্লাহর সৃষ্টি নিয়ে গবেষণা আল্লাহর প্রতি ঈমান আনয়নের সবচেয়ে উপযোগী পন্থা। এতে মানুষের মনে বিশ্বাস বৃদ্ধি পায়। স্রষ্টার মহত্ব, জ্ঞান-গরিমা ও হিকমত জানা যায়। আল্লাহ তায়া’লা আসমান জমিন যথার্থভাবে সৃষ্টি করেছেন, এগুলোকে অনর্থক সৃষ্টি করেননি। তিনি কোন কিছু নিরর্থক কিছু সৃষ্টি



মানুষের মর্যাদার প্রকৃত মাপকাঠি কী?


কেউ বলে ধনসম্পদ, কেউ বলে  বড় কোনো পদ, আবার কেউ বলে বাহ্যিক আকার-আকৃতি বা উত্তম হৃদয়, কিন্তু মানুষের মর্যাদার প্রকৃত মাপকাঠি কী? মানুষের দৃষ্টিকোণকে পরিশুদ্ধ করে কুরআন ও হাদীস এক্ষেত্রে কি মানদণ্ড নির্ধারণ করেছেন? মানুষের মধ্যে কোন্ গুণ থাকলে সে মর্যাদা



নামাযের সময়


নামাযের সময় জানার জন্য আমরা সফটওয়্যার অথবা অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করি, সফটওয়্যার অথবা অ্যাপ্লিকেশন ছাড়া ওয়েব-এর মাধ্যমে নামাযের সময় জানার জন্য এই সাইটটি বুকমার্ক করে রাখুন, এটা পরবর্তী সালাতের কত ঘন্টা কত মিনিট এবং কত সেকেন্ড বাকী আছে তা অবহিত করবে। bn.islamkingdom.com/s1/9791



উত্তম চরিত্রই মানব সন্তানের একমাত্র সুখ-শান্তির পথ


উত্তম চরিত্র হলো- ভালবাসা, উদারতা, সম্মানবোধ, ক্ষমাশীলতা, লজ্জাশীলতা, শান্ততা, নম্রতা, অন্যকে অগ্রাধিকার, ন্যায় বিচার, সততা, বন্ধুত্ব, সকলের সাথে পরামর্শ করা ইত্যাদি। ব্যক্তির আখলাক যদি সুন্দর হয় তবে তার জীবন ও সমাজের সুখ-শান্তিতে এর ইতিবাচক প্রভাব পড়ে। আর যদি ব্যক্তির চরিত্র খারাপ