রিয়াদুজ্জামান -blog


...


রিয়াদুজ্জামান
 


সাইয়্যিদাতুনা হযরত নিবরাসাতুল উমাম আলাইহাস সালাম উনার মহাসম্মানিত কারামত মুবারক


লক্ষ-কোটি দূরূদ ও সালাম যিনি যামানার মূল, যামানার মুজাদ্দিদ, মুজাদ্দিদে আ’যম, যামানার লক্ষ্যস্থল ওলীআল্লাহ আমাদের প্রাণপ্রিয় শায়েখ, আমাদের আক্বা ক্বিবলা কা’বা মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম এবং নূরে জাহান, গুলে মদীনা, নূরে মুবীনা, কায়িম-মাক্বামে ছিদ্দীক্বা আলাইহাস সালাম, আমাদের প্রাণপ্রিয় হযরত



খবরে এসেছে-“মাদ্রাসা পাঠ্যবই থেকে বাদ দেওয়া হচ্ছে জিহাদ অধ্যায়”


খবরের ভেতরে বলা হচ্ছে- “বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ডের নতুন পাঠ্যবইয়ে জিহাদ শিক্ষা বিষয়ক কোনও অধ্যায় থাকছে না। গত চার দশকে এ বিষয়ে এটাই প্রথম উদ্যোগ। আলিয়া বোর্ডের পাঠ্যবই থেকে জিহাদ সম্পর্কিত সব অধ্যায় বাদ দেওয়া হচ্ছে। ২০১৮ সালে এসব বই বিতরণ করা



পবিত্র লাইলাতুন নিছফি মিন শা’বান অর্থাৎ পবিত্র লাইলাতুল বরাতসহ ইসলামের খাছ রাত্রিগুলোতে কতিপয় মসজিদে তালা ঝুলানো থাকে কেন?


সাম্প্রতিককালে দেখা যায়, ইসলামের বিশেষ বিশেষ রাত্রিতে বিভিন্ন মসজিদের দরজায় তালা ঝুলানো থাকে! বিশেষ করে দেখা যায়, পবিত্র লাইলাতুন নিছফি মিন শা’বান অর্থাৎ পবিত্র শবে বরাত উনার রাতে মসজিদের দরজায় তালা ঝুলিয়ে রাখে! অথচ মসজিদের হক্ব হলো- মসজিদে গিয়ে ইবাদত-বন্দেগী করা।



মুসলমানদের জন্য কাফির-মুশরিক, বিধর্মী-বিজাতীয়দের প্রবর্তিত দিবসসমূহ পালন করা হারাম। যে পালন করবে, সে মুসলমান থেকে খারিজ হয়ে যাবে।


সম্মানিত মুসলমান উনাদেরকে যিনি খ¦ালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি “আইয়্যামুল্লাহ” অর্থাৎ মহান আল্লাহ পাক উনার সম্মানিত দিবসসমূহ পালন করার জন্য আদেশ মুবারক করেছেন। বিপরতী পক্ষে মহান আল্লাহ পাক উনার শত্রু কাফির-মুশরিক, বেদ্বীন-বিজাতিদের প্রবর্তিত ও পালিত দিবসসমূহ পালন করতে নিষেধ



মসজিদে ঠিঠি পাঠিয়ে নয়, বরং সংবিধানে মহান আল্লাহ পাক উনার প্রতি ‘পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাস’ পুনঃস্থাপন করে জনগণের আস্থা


আওয়ামী লীগ নাকি হিন্দুর দল, নাস্তিকের দল। এটা কিন্তু এক সময় সবার মুখে মুখে প্রচলিত ছিল। কিন্তু নির্বাচনী প্রতিশ্রুতিতে শেখ হাসিনা যখন বললেন, “আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় গেলে পবিত্র কুরআন শরীফ ও পবিত্র সুন্নাহ শরীফ বিরোধী কোনো আইন পাশ হবে না” এ



৩ মাসে জার্মানির ডয়েচে ব্যাংকের ক্ষতি ৬.৬ বিলিয়ন ডলার: ছাটাই হবে ৩৫ হাজার কর্মী, বন্ধ হবে অনেক শাখা


লোকসানের ধাক্কা সামলাতে কর্মী ছাঁটাইয়ের ঘোষণা দিয়েছে জার্মানির ডয়েচে ব্যাংক। চলতি বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে ব্যাংকটির লোকসান দাঁড়িয়েছে ৬ দশমিক ৬ বিলিয়ন ডলার। লোকসানের তথ্য প্রকাশের পর পরই ডয়েচে ব্যাংকের পক্ষ থেকে ৩৫ হাজার কর্মী ছাঁটাইয়ের পরিকল্পনার কথা জানানো হয়। খবর এপি,