রিয়াদুজ্জামান -blog


...


 


মুসলিম এই দেশে মহান আল্লাহ পাক উনার ঘর মসজিদকে ভাঙ্গার দুঃসাহস দিলো কে?


বাংলাদেশ মুসলিমপ্রধান দেশ। আর ঢাকা শহরকে বলা হয় মসজিদের শহর। অথচ এই মুসলিম দেশে মসজিদের শহর ঢাকায় একের পর এক মসজিদ ভাঙ্গা শুরু হয়েছে। নাউযুবিল্লাহ! (১). ঢাকার মুহম্মদপুরে মসজিদ ভেঙ্গে রবীন্দ্রপূজারী গায়িকা রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যাকে জমি দেবে সরকার। সে সেখানে রবীন্দ্র



শাহরুল্লাহিল হারাম, সম্মানিত ও পবিত্র ‘রজবুল আছম’ শরীফ মাস উনার ফাযাইল-ফযীলত মুবারক এবং আমলসমূহ


যিনি খলিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন- إِنَّ عِدَّةَ الشُّهُورِ عِندَ اللَّـهِ اثْنَا عَشَرَ شَهْرًا فِي كِتَابِ اللَّـهِ يَوْمَ خَلَقَ السَّمَاوَاتِ وَالْأَرْضَ مِنْهَا أَرْبَعَةٌ حُرُمٌ ۚ অর্থ: “নিশ্চয়ই আসমান ও



সাইয়্যিদাতু নিসায়িল আলামীন, আত্বওয়ালু ইয়াদান, সাইয়্যিদাতুনা হযরত উম্মুল মু’মিনীন আস সাবিয়াহ আলাইহাস সালাম উনার সংক্ষিপ্ত সাওয়ানেহ মুবারক


পরিচিতি মুবারক: সাইয়্যিদাতু নিসায়িল আলামীন, আত্বওয়ালু ইয়াদান সাইয়্যিদাতুনা হযরত উম্মুল মু’মিনীন আস সাবিয়াহ আলাইহাস সালাম উনার সম্মানিত ও পবিত্র নাম মুবারক হযরত যয়নব আলাইহাস সালাম। কুরাইশ গোত্রের বনু আসাদ বংশে উনার বিলাদত শরীফ। উনার সম্মানিত পিতার নাম হযরত জাহাশ আলাইহিস সালাম,



সাইয়্যিদাতু নিসায়ি, আহলিল জান্নাহ, উম্মু আবীহা, সাইয়্যিদাতুনা হযরত আন নূরুল উলা আলাইহাস সালাম উনার মহাসম্মানিত মহাপবিত্র বিলাদতী শান মুবারক


নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “সাইয়্যিদাতু নিসায়ি আহলিল জান্নাহ, সাইয়্যিদাতুনা হযরত আন নূরুল উলা আলাইহাস সালাম তিনি আমার অন্যতম সর্বশ্রেষ্ঠ বানাত অর্থাৎ মেয়ে।” সুবহানাল্লাহ! সুমহান বেমেছাল ফযীলতপূর্ণ বরকতময় ২১শে জুমাদাল উখরা শরীফ। সুবহানাল্লাহ!



বাল্যবিবাহ নিয়ে প্রশাসনের অতি-তৎপরতা সমাজে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করছে


গত কয়েকদিন আগে পত্র-পত্রিকা বিশেষ করে ইহুদী-নাছারাদের দোসর অনলাইন পত্রিকাগুলো একটি খবর খুব হাইলাইট করে প্রচার করেছে। যেন বিশাল এক রাজ্য জয় করার মতো খবর। খবরটির মূল বিষয় ছিলো- মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার আটিগ্রামে বাল্যবিয়ে করানোর দায়ে মোশারফ হোসেন নামে এক কাজী



ইহুদী-নাছারা, মুশরিক-বৌদ্ধ, মজুসী-মুশরিকদের সর্বপ্রকার ষড়যন্ত্র থেকে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘অধিকাংশ আহলে কিতাব তথা কাফির-মুশরিকরা চায়- তোমরা পবিত্র ঈমান আনার পর তোমাদেরকে হিংসা বা শত্রুতাবশতঃ কাফির বানিয়ে দিতে।’ নাউযুবিল্লাহ! ইহুদী, মুশরিক, বৌদ্ধ, মজুসী, নাছারা প্রকৃতপক্ষে সমস্ত বিধর্মীরা মুসলমানদের চরম শত্রু।। তাই তারা সূক্ষ্মকৌশলে মুসলমানদের



রাষ্ট্রীয় কোষাগারের অর্থ খরচের সুস্পষ্ট জবাবদিহিতা প্রাপ্তি জনগণের মৌলিক অধিকার


সরকার দেশের কর্ণধার, পরিচালক। একটি সরকার দেশের মালিক নয়, জাতির প্রতিনিধি মাত্র। তাকে রাষ্ট্রীয় যে কোনো কাজ করতে হলে যেমন জাতিকে অবহিত করতে হবে; অনুরূপ রাষ্ট্রীয় কোষাগারের আয়-ব্যয়ের হিসাবও সুস্পষ্টভাবে দিতে হবে। সরকারের ইচ্ছা হলেই কোনো খাতে রাষ্ট্রীয় টাকা ব্যয় করতে



সয়াবিন তেলের কর্পোরেট আগ্রাসনে হারিয়ে গেছে স্বাস্থ্যসম্মত সরিষার তেল


২৫ কোটি মানুষের দেশের খাদ্যের বাজার বিশাল। কৃষিভিত্তিক দেশ হয়েও খাবারের বাজারের নিয়ন্ত্রন বুঝে বা না বুঝে আস্তে আস্তে তুলে দেয়া হচ্ছে বহুজাতিক কোম্পানির হাতে। তার একটি উদাহারন হলো সরিষার তেল। ৮০ দশক পর্যন্ত বাংলাদেশে মুল ভোজ্য তেল ছিল সরিষার তেল।



আমাদের সর্বপ্রথম পরিচয় আমরা মুসলিম, এরপর অন্য পরিচয়….


কিছুদিন আগে আমাদের দেশের একজন মন্ত্রী বলেছে- সে প্রথমে মানুষ, এরপর বাঙালি, এরপর সে মুসলমান।’ শুধু কেবল এই একজন মন্ত্রীর কথা নয়, এ কথা এখন সারা বিশ্বের বহু মুসলিমরাই এরকম বলে থাকে। মূলত, এই তত্ত্বটি(!) তথাকথিত মানবতাবাদীদের জঘন্যতম একটি বুলি। এই



নাজাতপ্রাপ্ত একটি দল


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, নূরে মুজাসসাম হাবীবল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, আমার উম্মত ৭৩ দলে বিভক্ত হবে। তন্মধ্যে একটি দল হবে নাজাতপ্রাপÍ। হযরত ছাহাবায়ে কিরাম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুম উনারা নাজাতপ্রাপ্ত দলটির



শানে সাইয়্যিদাতুনা হযরত নানী হুযূর ক্বিবলা আলাইহাস সালাম


মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র সূরা লুকমান শরীফ উনার ১৫ নং পবিত্র আয়াত শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, وَاتَّبِعْ سَبِيْلَ مَنْ أَنَابَ إِلَيَّ অর্থ মুবারক:- “ওই ব্যক্তির অনুসরন কর, যিনি মহান আল্লাহ পাক উনার দিকে রুজু হয়েছেন।” এমনই মহাসম্মানিত ও



যামানার মুজাদ্দিদ তথা মুজাদ্দিদ যামান উনাকে চেনা ও জানা ফরয


মহান আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন তিনি যুগে যুগে হযরত নবী-রসূল আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে পাঠিয়েছেন। হযরত নবী-রসূল আলাইহিমুস সালাম উনাদের ধারাবাহিকতা বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর শুরু হয়েছে ইমাম-মুজতাহিদ, আউলিয়ায়ে কিরামগণ এবং ওলীআল্লাহগণ অর্থাৎ মুজাদ্দিদগণ উনাদের যুগ। ধারাবাহিকভাবে মহান আল্লাহ পাক প্রত্যেক হিজরী