অাহমাদ ফখরুদ্দীন শাহীন মুহম্মদ আব্দুল্লাহ -blog


بسم الله الرحمن الرحيم‎¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤‎ نحمده و نصلى على مرشدنا العظيم و على أهل بيته الكريم اللهم صل على سيدنا مولانا وسيلتى إليك و آله و سلم وعلى أرشد أولاده الشيخنا و مرشدنا العظيم و على أهل بيته الكريم‎¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤‎ 1."দুনিয়া রং তামাশার যায়গা না । এটি ইবরত-নছিহত হাছিলের যায়গা।"¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤ KEEP THE WORLD IN YOUR HAND, IT'S YOUR RIGHT. KEEP THE WORLD IN YOUR POCKET, IT'S YOUR RIGHT. BUT DON'T KEEP THE WORLD IN YOUR HEART.WHEN THE WORLD KEEP YOUR HEART YOU MUST DESTROY,MIND IT. ¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤ ২.আমার মন কে শান্ত করে দিন আমার হৃদয়টা পূর্ণ করে দিন আমায় কাছে ডেকে নিন আমার অন্তরটা কে ভরে দিন সকাল সাঝে আপনারী ধ্যানে আমায় গরক্ব করে দিন। ¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤ ৩. মোর যবানটা সদা সর্বদা যিকরুল্লাহ উনাতে ব্যস্ত থাক। মোর জীবনের সবটুকু সময় ওগো মামদুজী আপনার দিদারে রয়ে যাক। মোর জীবনের তামাম আমল সুন্নাতি রং এ হয়ে যাক।। ¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤ ¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤¤


 


শাহী দাদীর বিরহে আজ


শাহী দাদীর বিরহে আজ কেন তুই কাঁদিসরে মন দাদীজানের শোকে আজ ম্লান কেন দেখায় তোকে ধুঁকধুঁকানির বুকে? শাহী দাদীর শাহী মেছাল দেখবে কি আর এ ভুবন? ধরাতে দাদীজান ছিলেন কেমন বুঝিস রে অধম দ্বীনের তরে বিলীন করেন উনার শাহী জনম সারা



পবিত্র শবে বরাত শরীফ উনার বিরোধী উলামায়ে ‘সূ’দের কথায় কান দিবেন না


খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি স্বয়ং পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে এবং আখিরী রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি দওয়া সাল্লাম তিনি পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেছেন, পবিত্র শা’বান শরীফ মাস উনার ১৪ তারিখ



ইয়ামানি চাদরে


১. আপনার অনুপুস্থিতিতে খন্ড খন্ড হয়ে জগতের প্রাণ বেরিয়ে যাচ্ছে ওগো নবীজি রহমত করুন-দয়া করে একটু দয়া করুন। ৩. হে মুক্তার ঝলক আপনার ধবধবে আলোক রৌশ্মি দ্বারা জগতকে উপকৃত করুন নারগিস ফুলেল ঘুম থেকে জেগে আলোকিত করুণ হেদায়াত প্রার্থী আমাদের এ



সারাবিশ্বের কেন্দ্রীয় ইমামিয়াত এক অদৃশ্য মহাশক্তির দিকে ধাবমান! সে মহাশক্তিই ‘খলীফাতুল উমাম’!!


দিনের অবসানে যেমনি রাতের আগমন তেমনি রাতের অবসানেও আসে দিন! সময় পরিবর্তনশীল। সময় নিরন্তরভাবে তার গতিতে বয়ে চলেছে। মহান আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন তিনি পবিত্র কুরআন শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, “আমি সময়কে মানুষের মাঝে আবর্তিত করে থাকি।” পবিত্র দ্বীন



সাইয়্যিদাতু নিসায়ি আহলিল জান্নাহ হযরত ফাতিমাতুয যাহরা আলাইহাস সালাম তিনি বেহেশতবাসিনী মেয়েগণের সাইয়্যিদা।


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে বর্ণিত রয়েছে, “সাইয়্যিদাতু নিসায়ি আহলিল জান্নাহ হযরত ফাতিমাতুয যাহরা আলাইহাস সালাম তিনি বেহেশতবাসিনী মেয়েগণের সাইয়্যিদা ।” নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি আরো বলেন, “হযরত যাহরা আলাইহাস সালাম তিনি আমার দেহ মুবারক



সুমহান বরকত পূর্ণ ১৯শে রবীউছ ছানী শরীফ যা কুল মাখলুকাতের জন্য নিয়ামত হাছিলের বিশেষ দিন।




মামদুহ উনাকে চাহি আমি


মামদুহ উনাকে চাহি আমি, হে আমার অন্তরযামী। ও মামদুহ,মামদুহ,মামদুহ আপনাকে চাহি আমি, হে আমার অন্তরযামী।। আপনি ছাড়া কে আছে আমার, হৃদয়টা দিয়ে দিলাম কদমে আপনার। মামদুহ,মামদুহ,মামদুহ আপনাকে চাহি আমি, হে আমার অন্তরযামী।। মামদুহ উনাকে চাহি আমি, হে আমার অন্তরযামী। পথেরও মাঝে



“মানুষ সৃষ্টির উদ্দেশ্য ও রহস্য”


সমস্ত প্রশংসা ও শোকর সেই মহান রাব্বুল আ’লামীন উনার জন্যে, যিনি বিশেষ করে মানব জাতিকে উনার ইবাদতের জন্যে সৃষ্টি করেছেন। মহান আল্লাহ পাক যখন মানুষ সৃষ্টি করার কথা হযরত ফেরেশতা আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে জানালেন, হযরত ফেরেশতা আলাইহিমুস সালাম উনারা বললেন, اتجعل



শিক্ষা ক্ষেত্রের পরিবর্তণ জরুরী




পবিত্র ক্যান্টিন শরীফ উনার পবিত্র ফাযায়িল ফযিলত মুবারক


পবিত্র ক্যান্টিন শরীফ উনার সীমাহীন মর্যাদা ও ফযিলত মুবারক রয়েছে। যা থেকে ইবরত নছীহত হাছিল করা সকলের জন্য ফরয ওয়াজীব, নিয়ামত, বারাকাত হাছিলের সবচেয়ে সহজ মাধ্যম। এই পবিত্র ক্যান্টিন শরীফ হতে কোন জিনিস, মাল ছামানা খরিদ করলে সে সীমাহীন নেয়ামত লাভ



দক্ষিণ কোরিয়ায় হাসপাতালে আগুন লেগে নিহত ২১


বুধবার রাজধানী সিউল থেকে ৩০০ কিলোমিটার দক্ষিণে জানসেয়ং এর হাইয়োসারাঙ হাসপাতালে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত রোগীদের অধিকাংশের বয়স সত্তর ও আশির কোঠায় বা তারও বেশি, যারা বিছানা ছেড়ে উঠার সক্ষমতা হারিয়েছিল। হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে থাকা অবস্থাতেই তাদের মৃতু্য্যু হয়।অগ্নিকাণ্ডের কারণে



হৃদয়ের কাঁন্না


ইয়া আঁকা! ইয়া আকাঁ!! খলীফাতুল উমাম আলাইহিস সালাম আমরা গোলাম আপনার। দয়া চাহি, রহম চাহি রেজা চাহি, করম চাহি ক্ষমা চাহি বেশুমার।। আমার হৃদয়ের যত আকুতি, আঁকা আপনার কদমে পরে আমি কাঁদি। সকাল সাঁঝে আপনারেই যাচি।। ………………………………… রঈসুল মাজলিশ, জেলা ছাত্র