সাময়িক অসুবিধার জন্য আমরা আন্তরিকভাবে দু:খিত। ব্লগের উন্নয়নের কাজ চলছে। অতিশীঘ্রই আমরা নতুনভাবে ব্লগকে উপস্থাপন করবো। ইনশাআল্লাহ।

সেনাপতি -blog


...


 


পর্দার গুরুত্ব এবং তাৎপর্য সম্পর্কে একটি ওয়াকিয়া মুবারক


পর্দা করা ফরয। কিন্তু বর্তমানে তথাকথিত মুসলমানরা পর্দা করার ব্যপারে কোনো গুরুত্বই দিচ্ছে না। বিশেষ করে যারা পর্দা করতে মানুষকে উৎসাহ দিবে, যারা আলিম তারাই পর্দা করছে না। নাউযুবিল্লাহ! নিম্নে পর্দা সম্পর্কে একটি ওয়াকিয়া মুবারক উল্লেখ করা হলো। যার মধ্যে সবার



বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন কাট্টা কুফরী এবং কাফির ও জাহান্নামী হওয়ার কারণ


কুল-কায়িনাতের যিনি নবী ও রসূল, সাইয়্যিদুল আম্বিয়া ওয়াল মুরসালীন, রহমাতুল্লিল আলামীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার বিরোধিতা করার জন্যই কাট্টা কাফির, মুশরিক ব্রিটিশরা ১৯২৯ ঈসায়ী সনে বাল্য বিবাহ নিরোধ আইন প্রণয়ন করেছিল। নাউযুবিল্লাহ!“ সেই আইন আজো



পবিত্র পর্দা পালন ও পবিত্র সুন্নত উনার অনুসরণে খলীফায়ে ছানী, আমিরুল মু’মিনীন, খলীফাতুল মুসলিমীন, সাইয়্যিদুনা হযরত ফারূক্বে আ’যম আলাইহিস


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে বর্ণিত হয়েছে, একবার খলীফায়ে ছানী, আমীরুল মু’মিনীন, খলীফাতুল মুসলিমীন সাইয়্যিদুনা হযরত ফারূক্বে আ’যম আলাইহিস সালাম তিনি উনার সম্মানিত মেয়ে, উম্মুল মু’মিনীন আর রবিয়াহ সাইয়্যিদাতুনা হযরত হাফসা আলাইহাস সালাম উনার সাথে একত্রে একটি রুমে বসে কিছু বিষয়



আন নূরুর রবি‘য়াহ সাইয়্যিদাতুনা হযরত যাহরা আলাইহাস সালাম উনার সম্মানিত জীবনী মুবারক পাঠ করার, আলোচনা করার এবং উনার সম্মানিত


সম্মানিত ও পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, اِنَّ ذِكْرَ الصَّالـحِيْنَ تَنْزِلُ الرَّحْمَةُ অর্থ: “নিশ্চয়ই ওলীআল্লাহগণ উনাদের আলোচনা মুবারক করলে সম্মানিত রহমত মুবারক নাযিল হয়।” সুবহানাল্লাহ্! (ইহইয়ায়ে ‘উলূমিদ্দীন, ফাদ্বাইলে আশারাহ লিযামাখশারী, কাশফুল খফা) এখন বলার বিষয় যে, যদি ওলীআল্লাহ



আজব ভাতীয় ঋণ এ এগিয়ে চলছে সুন্দরবন ধ্বংসের মহোৎসব


আজব ভাতীয় ঋণ এ এগিয়ে চলছে সর্বনাশা রামপালে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্প বিশ্ব ঐতিহ্য সুন্দরবন ঘেঁষে রামপালে ভারতের তাগিদে তাদের ঋণসহায়তায় যে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্প নিয়ে সরকার এগিয়ে যাচ্ছে, তাতে বাংলাদেশের বহুমুখী সর্বনাশের পথ উন্মোচিত হয়ে পড়েছে। সারা দেশে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে।



মুসলমানদের স্বার্থরক্ষায় নয় ,বিধর্মীপ্রীতিতে অসাম্প্রদায়িক’ সাজতে শাসকগোষ্ঠী মত্ত ।


মুসলমানদের স্বার্থরক্ষায় নয় ,বিধর্মীপ্রীতিতে অসাম্প্রদায়িক’ সাজতে শাসকগোষ্ঠী মত্ত । বর্তমান বিশ্বে মুসলমানরা এক চরম দুরবস্থায় দিনাতিপাত করছে। কাফির-মুশরিকরা তো রয়েছেই, সাথে সাথে কাফির-মুশরিকদের সন্তুষ্টি অর্জনে মুসলিম দেশগুলোর শাসকরাও নিজ দেশের মুসলিম জনগোষ্ঠীর উপর অত্যাচারের স্টীমরোলার চালাচ্ছে। কথিত ‘অসাম্প্রদায়িক’ সাজার জন্য মুসলিম



সিসিটিভি স্থাপনার কারণে মুসলমানদের মানবাধিকার, গোপনীয়তার মৌলিক অধিকারও লঙ্ঘিত হচ্ছে।


নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, æপ্রত্যেক ছবি তুলনেওয়ালা ও তোলানেওয়ালা জাহান্নামী।প্রত্যেক মুসলমানের দ্বীনী অধিকার হচ্ছে ছবি না তোলা। অর্থাৎ মুসলমানদের জন্য ছবি তোলা হারাম, কবীরা গুনাহ এবং কুফরী। দ্বীনী অধিকার বিশেষ মৌলিক অধিকার,



অক্ষম ও দরিদ্রজনতা খিলাফতের সমৃদ্ধির হিস্যা চায়।


ব্যর্থতার ভারে বিপর্যস্ত দেশ:খিলাফতের নিয়ামত সবার জন্য কল্যাণকর। ৩৫ হিজরী সনের পবিত্র ১৮ যিলহজ্জ শরীফ তারিখে আমীরুল মু’মিনীন, খলীফাতুল মুসলিমীন সাইয়্যিদুনা হযরত যুন নূরাইনআলাইহিস সালাম তিনি সম্মানিত শাহাদাতী শান মুবারক প্রকাশ করার পর ৭ম দিন ২৫শে যিলহজ্জ শরীফ তারিখে আমীরুল মু’মিনীন,খলীফাতুল



গান-বাজনা’ করা ও শোনা সর্ম্পূণরূপইে কাট্টা হারাম।


গান-বাজনা’ করা ও শোনা সর্ম্পূণরূপইে কাট্টা হারাম। নূরে মুজাস্সাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তনিি ইরশাদ মুবারক করনে, ‘আমি বাদ্যযন্ত্র ও র্মূতি ধ্বংস করার জন্য প্ররেতি হয়ছে।ি’বত্রি ইসলামী শরীয়ত উনার দৃষ্টতিে র্সবপ্রকার ‘গান-বাজনা’ করা ও শোনা সর্ম্পূণরূপইে কাট্টা হারাম।



হ্যাঁ দাবি জানান, এখনই, ঈমান বাঁচাতে একটুও দেরী নয়!


বৈশাখী উৎসব ভাতা বাদ? Apr 10, 2016 8:23 AM বৈশাখী উৎসব ভাতা বাদ দিয়ে ঈদ-ই মিলাদুন্নবিতে উৎসব ভাতা দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সমর্থক সংগঠন ওলামা লীগ। তাদের এ দাবি আপনি সমর্থন করেন? হ্যাঁ – 72% না – 28% মোট ভোট



pls click yes


http://bdnews24.com/poll/;jsessionid=8745B7D276EEDB7254D4A52B37E3C603.pre6



পর্দা সম্ভ্রান্ত হওয়ার পরিচয় এবং বিরক্ত না করার মাধ্যম


নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “মহিলারা পর্দায় থাকবে। তারা যখন বেপর্দা হয়, তখন শয়তান উঁকি-ঝুঁকি দিতে থাকে- কি করে তাদের মাধ্যমে ফিতনা পয়দা করা যায়।” পবিত্র কুরআন শরীফ ও পবিত্র হাদীছ শরীফ উনাদের