Archive for the ‘আন্তর্জাতিক’ Category

বুলডোজার দিয়ে উইঘুর মুসলিমদের মসজিদ ভাঙছে চীন


জিনজিয়াং প্রদেশে বসবাসরত মুসলমানরা শত শত বছর ধরে সেখানে বসবাস করছে। বিশেষ করে মুসলিম উইঘুর সম্প্রদায়। বসবাসের পাশাপাশি আবার দীর্ঘদিন ধরেও চীনের কট্টর মুসলিমবিদ্বেষী সরকার উইঘুর মুসলিমদের উপর চালাচ্ছে অবর্ননীয় অত্যাচার নির্যাতন। ১০ লাখেরও বেশি উইঘুর মুসলিমকে আটক রেখেছে বন্দী শিবিরে।

বিশ্বের কুখ্যাত ১০ সন্ত্রাসী দেশের তালিকা


১) আমেরিকা: ইরাক, আফগানিস্তান, লিবিয়া, সিরিয়া, ইয়েমন, পাকিস্তানসহ সারা বিশ্বে কোটি কোটি মুসলমানকে শহীদ করার জন্য দায়ী এ সন্ত্রাসী রাষ্ট্র। ২) ইসরাইল: পরগাছা এ রাষ্ট্রটি তার আশ্রয়দাতা ফিলিস্তিনের উপর দীর্ঘদিন ধরে যুলুম নির্যাতন করে যাচ্ছে, হত্যা করছে অসংখ্য মুসলমানকে। ৩) ভারত:

অশ্লীলতা তথা পর্নো দেখা ও তৈরিতে যারা শীর্ষে…


একটি কুচক্রী মহল মিথ্যা ও বানোয়াটি তথ্য দিয়ে অপপ্রচার করে থাকে- পর্নো নাকি মুসলিম রাষ্ট্রগুলো দেখে। নাউযুবিল্লাহ মিন যালিক! অথচ তারা এটা নিয়ে বিশ্বস্ত ও সঠিক পরিসংখ্যানভিত্তিক কোনো রেফারেন্স দিতে পারে না। মূলত তারা নিজেদের অপকর্ম ঢাকতে ও মুসলিমদের হেয় করতেই

দেশে প্রথম হিউম্যান মিল্ক ব্যাংক : মানবিকতার আড়ালে অমানবিকতার সূচনা হতে পারে


সম্প্রতি ঢাকার শিশু-মাতৃস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটটি (ICMH) ‘হিউমেন মিল্কব্যাংক’ চালু করেছে। অনেকেই বিষয়টিকে মানবিকতার দৃষ্টিতে দেখার চেষ্টা করছেন। কিন্তু এ বিষয়টির মাধ্যমে একটি ভয়ঙ্কর অমানবিকতা চালু হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে। ১) এই ‘হিউমেন মিল্কব্যাংক’ চালুর সময় স্পষ্ট বলা হয়েছে- কোন মা যদি দুগ্ধ দান

ভারতীয় মুসলমানরা এখন কি করবে ?


ভারতের বেশ কয়েকটি রাজ্যে ছাত্র সমাজ এনআরসি ও নাগরিক সংশোধনী বিলের বিরুদ্ধে আন্দোলন-বিক্ষোভ করেছে। বিক্ষোভ বা আন্দোলনে জনসমাগমও কম ছিলো না। অনেক এলাকায় পুলিশ সে সব আন্দোলন দমানোর জন্য গুলি ছুড়েছে বা লাঠিচার্জ করেছে। তবে এই আন্দোলনে মোদি সরকার তার অবস্থান

বাংলাদেশে ঘাপটি মেরে আছে ১২ লাখ ভারতীয়? না আরো বেশি? এদেশের চাকরীর বাজার দখল থেকে নাশকতা ও টাকা পাচার করছে এসব অবৈধ ভারতীয়।


একদিকে ভারতীয় হিন্দুত্ববাদী শক্তি মুসলমানদের শহীদ করার জন্য উন্মত্ত হয়ে উঠেছে। নাঊযুবিল্লাহ! বাংলাদেশের স¦াধীনতা ও সার্বভৌমত্ব দখলের জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছে। অপরদিকে এ দেশে অবৈধভাবে থাকা ভারতীয়দের সংখ্যা কল্পনাতীতহাতে বাড়ছে। সেই সাথে বাড়ছে ঘাপটি মেরে থাকা ভারতীয়দের দ্বারা বিভিন্ন ভয়ঙ্কর ষড়যন্ত্র

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনসীকে অভিবাদন


“ভারতের মুসলমানরা নির্যাতিত হচ্ছে”- এই কথাটা আওয়ামী সরকারের কেউ এখন পর্যন্ত ভারতে গিয়ে বলতে পারেনি। টিপু মুনসী সম্ভবত প্রথম। ২৪শে অক্টোবর, ২০১৯ তারিখে ভারতের যুগশঙ্ঘ পত্রিকায়, “বাংলাদেশে হিন্দুরা সুরক্ষিত, ভারতে মুসলিমরা নন! বিস্ফোরক হাসিনার মন্ত্রী” শিরোনামে খরব ছাপা হয়। খবরে প্রকাশ,

৯৮ ভাগ মুসলমানদের দেশের মুসলিম সরকার হিসেবে সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালনের জন্য সরকারের কোন উদ্যোগ আছে কি?


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘(আমার হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম!) আপনি বলুন, মহান আল্লাহ পাক উনার মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র ফদ্বল মুবারক ও মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র রহমত মুবারক অর্থাৎ আমাকে পাওয়ার কারণে তোমাদের উচিত ঈদ বা খুশি প্রকাশ করা।’

ভারত বাংলাদেশকে উন্নয়ন সহযোগিতা দিবে! নাকি শোষণ করতে থাকবে?


বিভিন্ন সময় ভারতীয় আমলা-কামলারা বলে থাকে, ভারত সবসময় বাংলাদেশের সঙ্গে বন্ধুত্বকে খুব গুরুত্ব দিয়ে থাকে। বাংলাদেশকে সবধরনের উন্নয়ন সহযোগিতা দিয়ে যাবে। বাংলাদেশও যে ভারতকে সহযোগিতা করছে সেজন্যে ভারত বাংলাদেশের কাছে কৃতজ্ঞ।” এখানে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্য একটু বিশ্লেষণ করলে প্রমাণিত হয় যে,

নাইজেরিয়ায় পবিত্র কুরআন শরীফ অবমাননা করলেই মৃত্যুদন্ড


পশ্চিম আফ্রিকার দেশ নাইজেরিয়া। ৫০ শতাংশ মুসলিম জনসংখ্যা অধ্যুষিত দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় জামফারা প্রদেশ সম্প্রতি পবিত্র কুরআন শরীফ অবমাননার অপরাধে সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ডাদেশ ঘোষণা করেছে। দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় জামফারা রাজ্যের কর্মকর্তারা সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন যে, যারা পবিত্র কুরআন শরীফ অবমাননা করবে তাদেরকে সর্বোচ্চ

ভারতে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করতে দেয়া হয় নি; অথচ এদেশে…!!


ভারতে একটি বিশাল জনগোষ্ঠী হচ্ছে মুসলমান, যা মোট জনগোষ্ঠীর প্রায় অর্ধেক। তারপরেও সেখানকার মুসলমানগণ একটি ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার অনুমতি পায় না। সম্প্রতি ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশে হীরা ইসলামিক ইউনিভার্সিটি নামে একটি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার উদ্যেগ নেন কয়েকজন মুসলিম ধনাঢ্য ব্যবসায়ী। প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব জমিতে ৭

ইংরেজরা মুসলমানদের শিক্ষাব্যবস্থা ধ্বংস করেছে


ইংরেজদের প্রণীত শিক্ষানীতি সমাজে বিভক্তি ও শ্রেণীবৈষম্য সৃষ্টি করেছে বলে মন্তব্য করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। গতকাল ইয়াওমুল আরবিয়া (বুধবার) ইসলামাবাদে মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের একটি পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে দেয়া বক্তৃতায় তিনি বলেন, নবীজী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সবচেয়ে বেশি শিক্ষার ব্যাপারে গুরুত্ব