Archive for the ‘ইতিহাস’ Category

উম্মুহাতুল মুমিনীন উনা‌দের সম্প‌র্কে জ্ঞান অর্জন করা সমস্ত মুসলমান‌দের জন্য ফরয ওয়া‌জিব


আমা‌দের প্রিয় নবী‌জি উনার সম্মা‌নিতা আজওয়াজুন মুতাহহারাতুন তথা সম্মা‌নিতা জীবন সঙ্গী‌নি উনারা হ‌লেন উম্মুহাতুল মু‌মিনীন তথা সমস্ত কা‌য়িনা‌তের মাতা। উনারা সমস্ত কা‌য়িনাতবাসীর জন্য উসওয়াতুন হাসনাহ তথা আর্দশ মুবারক। অথচ উনা‌দের সম্প‌র্কে কয়জন মুসলমান বা জা‌নে? উনা‌দের‌কে মহান আল্লাহপাক কত সম্মা‌নিত ক‌রে‌ছেন

উম্মুল মু’মিনীন হযরত খাদিজা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহা উনার মামাতো ভাই হযরত অাবদুল্লাহ ইবনে উম্মে মাকতূম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু সম্পর্কে !


  হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে উম্মে মাকতূম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু ছিলেন উম্মুল মুমিনীন হযরত খাদিজা রদিয়াল্লাহু তা’আলা আনহা উনার মামাতো ভাই। হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে উম্মে মাকতুম রাদিয়াল্লাহু তা’আলা আনহু তিনি ছিলেন জন্মান্ধ।ইসলামের একেবারে সূচনার দিনগুলোতে নবীজী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি কুরাইশী

মুসলমানদের নির্যাতনের ফলসরূপ খোদায়ী গজব: মহারাষ্ট্রের মারাঠওয়াড়া জেলায় ৬ মাসে ৪৩৩ কৃষকের আত্মহত্যা


ভারতের মহারাষ্ট্রের খরা কবলিত মারাঠওয়াড়ার আটটি জেলায় ১লা জানুয়ারি থেকে ১৭ই জুন পর্যন্ত লাগাতার কৃষক আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। সম্প্রতি একটি রিপোর্ট থেকে এমনই জানা গিয়েছে। দুর্দশাগ্রস্ত কৃষকরা ঋণের দায়ে আত্মঘাতী হয়েছে বলেই অভিযোগ। রিপোর্ট থেকে জানা গিয়েছে, পাহাড় প্রমাণ ঋণের বোঝার

বাঙ্গালি কোন স্বতন্ত্র জাতি নয় বরং সংকর জাতি !


ইনবক্সে একজনে বললো, “পহেলা বৈশাখ পালনে আর কি আসে যায়, আমরাই তো হিন্দুদের থেকে এসেছি” (নাউযুবিল্লাহ)। তার কথার দলিল হচ্ছে, পূর্বে উপমহাদেশে ইসলাম আসার আগে হিন্দু জনপদ অর্থ্যাৎ পুন্ড্র, গৌড়, বরেন্দ্র, সমতট ইত্যাদি বাস করতো। পরবর্তীতে ইখতিয়ার মুহম্মদ বখতিয়ার খলজী তিনি

রবীন্দ্র পূজারীরা নিজেদের গুরুর ইতিহাসটা একটু দেখে জান!


রবীন্দ্র পূজারীরা নিজেদের গুরুর ইতিহাসটা একটু দেখে জান!!! ১) রবীন্দ্রসাহিত্য আমাদের কি দিলো ? (https://bit.ly/2E4AIJ7) ২) ইসলাম বিদ্বেষী সাহিত্যের অগ্রদূত রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর (https://bit.ly/2GVxgUm) ৩) কেমন ছিলো জমিদার রবীন্দ্রনাথ (https://bit.ly/2pNNCad)… See More Rabindra Puja is a little look at the history of

মুসলিম শাসনামলের বিস্ময়কর আবিষ্কারক যাঁরা


মানব সভ্যতার ক্রমবিকাশে মুসলিম শাসনামলের মনীষীদের অবদান অবিস্মরণীয়। যুগ যুগ ধরে গবেষণা ও সৃষ্টিশীল কাজে তাদের একাগ্রতা প্রমাণিত।   বিজ্ঞানের বিভিন্ন ক্ষেত্রে তাদের নিজস্ব ধ্যান ধারণা সভ্যতার বিকাশকে করেছে আরও গতিশীল। রসায়ন, পদার্থ, জীববিজ্ঞান, কৃষি, চিকিৎসা, জ্যোতির্বিজ্ঞান, দর্শন, ইতিহাস সর্বত্র ছিল

পবিত্র ছলাত বা দুরূদ শরীফ পাঠ করার বেমেছাল ফযীলত ,,,,


পবিত্র দুরূদ শরীফ পাঠ করার ফযীলত সম্পর্কে হযরত আউলিয়া কিরাম রহমতুল্লাহি আলাইহি উনাদের ক্বওল শরীফ: (১) শাইখ আহমদ ইবনে ছাবিত আল মাগরিবী রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি উনার ‘কিতাবুত তাফাক্কুর ওয়াল ইতিবার’ নামক কিতাবে লিখেন, ‘আমি পবিত্র দুরূদ শরীফ পাঠের মাধ্যমে যে সকল

তোমরা হীনবল হয়ো না , চিন্তিত হয়ো না, তোমারাই জয়ী হবে যদি তোমরা মুমিন হও।


৯২ হিজরী সনের আন্দুলুস (বর্তমান স্পেন) বিজয়ী তারেক বিন যিয়াদের কথা কে না জানে?   লেইনপোল নামক এক ঐতিহাসিক লিখেছে, আঠার দিনের লড়াই মুসলমানদের আটশত বছরের স্পেনের রাজত্ব প্রদান করেছিল। মুসলমানরা যুদ্ধ বিদ্যা ও বীরত্বে নজীরবিহীন ছিল। তাদের বিজয়ের কারন মূলতঃ

কখন জাগবে জাতির যুবকেরা !


থার্টি ফার্স্ট নাইটে সুলতান সালাহুদ্দীন রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার কথা খুব মনে পড়েছিলো । তিনি বলেছিলেন, ‘যে জাতির যুবকেরা সজাগ হয়ে যায়, কোন শক্তি তাদেরকে পরাজিত করতে পারে না’। গত রাতের প্রেক্ষাপটে মনে হলো, যে জাতির সন্তানেরা জেগে ঘুমায় , তারা আদৌ

সেদিন কতদূর (?) যেদিন খ্রিষ্টানদের ভয়ে নিজ ঘরে কানে-কানে কথা বলবে মুসলমান !


ইতিহাসের পুণরাবৃত্তি, সুলতান হযরত সালাহুদ্দীন আইউবী রহমতুল্লাহি আলাইহি যখন কার্ক অবরোধ করে রেখেছিলেন সে সময়ের কথা, সুলতানের কমান্ডোদের শাহদাত বরণের ঘটনা বেড়ে গেছে অনেক। আক্রমণকারী দলের সদস্য যদি থাকে ১০ জন, তো ফিরে আসে ৩/৪ জন।খ্রিষ্টানরা এমন ব্যবস্থা করেছে , যা

সতীদাহ প্রথা উচ্ছেদের পিছনে কুরআন শরীফের অবদান অনিস্বীকার্য !


সবার জানা যে হিন্দুদের সতীদাহ প্রথা রহিত করেছে রাজা রামমোহন রায় কিন্তু যা অজানা, এই ভয়াবহ প্রথা উচ্ছেদের পিছনে মুসলমানদের কুরআন শরীফের অবদান, যা অস্বীকার্য। রাজা রামমোহনকে তার পিতা পাটনায় পাঠিয়েছিল , ফার্সীতে পান্ডিত্য অর্জনের জন্য । যদিও তখন ভারতবর্ষে ইংরেজদের

কেমন ছিলেন শের-ই-মহীশূর ?


পরদিন বিকাল ৪ টার কাছাকাছি সময়,    যখন সুলতানের লাশ কেল্লা থেকে বাইরে আনা হলো সেরিংগাপটমের (বর্তমান কর্ণাটক) নারী পুরুষ, শিশু , বৃদ্ধ, জাতি ধর্ম নির্বিশেষে তাদের আশ্রয়স্থল থেকে বেরিয়ে জানাযায় শরীক হলো। মানুষের অন্তর থেকে ইংরেজদের ভয় চলে গেল ,