Archive for the ‘ইসলাম ও জীবন’ Category

বিদআতের পরিচয়, বিদআত কাকে বলে কত প্রকার ও কী কী বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।


উসূলের কিতাবে উল্লেখ রয়েছ যে, اصول، لمشرع ثلثة القران- الحديث- الاجماع ورابعها القياس- (نور الانوار) অর্থঃ- “মূলতঃ ইসলামী শরীয়ত উনার ভিত্তি হলো তিনটি। পবিত্র কুরআন শরীফ, পবিত্র হাদীছ শরীফ,পবিত্র ইজমা শরীফ এবং চতুর্থ হলো- পবিত্র ক্বিয়াস শরীফ।” (নুরুল আনোয়ার)  মহান আল্লাহ রাব্বুল

অল্প বয়সে বিয়ে হলে অনেক সুবিধা (!) কিন্তু অসুবিধা কি ?


  অল্প বয়সে বিয়ে হলে নানান অসুবিধা হয় বলে প্রচার করা হচ্ছে। কিন্তু অল্প বয়সে বিয়ে হলে যে অনেক সুবিধা হয়, সেটার ফিরিস্তি কিন্তু প্রচার করা হয় না। যেমন ধরুন- একটা ছেলে ও একটা মেয়ের অল্প বয়সে বিয়ে হলো। এতে তাদের

নিউ ইয়র্কে ১৪ বছর বয়সে বিয়ে বৈধ! অথচ বাংলাদেশে বাধা !


============================= যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচ জানাচ্ছে, নিউ ইয়র্কেই ১৪ বছর বয়সী কিশোর বা কিশোরীর বিয়ের বৈধতা রয়েছে। আদালতের নির্দেশনা অনুসারে, ১৪ থেকে ১৮ বছর বয়সী ছেলে বা মেয়ের মা-বাবার সম্মতিতে বিয়ে হতে পারে। ২০০০ থেকে ২০১০ সালের মধ্যে অন্তত

উম্মুল মু’মিনীন হযরত খাদিজা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহা উনার মামাতো ভাই হযরত অাবদুল্লাহ ইবনে উম্মে মাকতূম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু সম্পর্কে !


  হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে উম্মে মাকতূম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু ছিলেন উম্মুল মুমিনীন হযরত খাদিজা রদিয়াল্লাহু তা’আলা আনহা উনার মামাতো ভাই। হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে উম্মে মাকতুম রাদিয়াল্লাহু তা’আলা আনহু তিনি ছিলেন জন্মান্ধ।ইসলামের একেবারে সূচনার দিনগুলোতে নবীজী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি কুরাইশী

সুন্নত মুবারক পালনের গুরুত্ব ও ফযীলত !


একটি সুন্নত পালনে যদি ১০০ শহীদের সওয়াব পাওয়া যায়, তাহলে সুন্নত উনার গুরুত্ব, মর্যাদা, ফযীলত কতটুকু নিচের ওয়াকিয়াটি পড়ে আমাদের ফিকির করা উচিত! হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে উম্মে মাকতূম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু তিনি ছিলেন উম্মুল মুমিনীন হযরত খাদিজা রদিয়াল্লাহু তা’আলা আনহা উনার

মুসলমানদের উচিত সপ্তাহের বারসমূহ হাদীছ শরীফ অনুযায়ী উচ্চারণ করা।


একজন বয়োঃপ্রাপ্ত ও সুস্থ বিবেকসম্পন্ন মুসলমান পুরুষ-মহিলার জন্য দৈনিক ৫ ওয়াক্ত নামায আদায় করতে হয়। এ পাঁচ ওয়াক্ত নামাযের নামকরণ পবিত্র হাদীছ শরীফ দ্বারাই হয়েছে। যেমন ফজর, যুহর, আছর, মাগরিব ও ‘ইশা। আজ পর্যন্ত কোন মুসলমান এই পাঁচ ওয়াক্ত নামাযকে ওয়াক্তের

খাবার গ্রহণের পূর্বে ও পরের সুন্নত সমূহ


খাবার গ্রহণের পূর্বে ,পরে এবং মাঝে অনেক সুন্নত রয়েছে, অনেকগুলো থেকে কিছু সংখ্যক সুন্নত তরীকার নিচে দেয়া হলো…   ১) হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি খাবার গ্রহণের পূর্বে দুই হাত মুবারক ধৌত করতেন বর্তমানে আমরা এক হাত ধৌত করি।

শিশুদের মুহব্বতের তরীকা


“কোন এক সময় এক বেদুঈন রাসূল ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার নিকট এসে বললো, ‘ইয়া রসূলাল্লাহ্, ইয়া হাবীবাল্লাহ্ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! আপনি কি শিশুদের চুমু দেন? আমি তো কখনো শিশুদের চুমু দেই না।’ জবাবে খাইরুল আলম, হাবীবাল্লাহ্ হুজুর পাক ছল্লাল্লাহু

ভূল সংশোধন ও ক্ষমা চাওয়ার তরীকা


হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি কারো সম্পর্কে খারাপ কিছু জানতে পারলে নির্দিষ্ট করে তার সমালোচনা করতেন না বরং এভাবে বলতেন, “লোকদের কি হল যে তারা এমন এমন কুকর্ম করে”। -(তিরমিযী শরীফ, আবু দাউদ শরীফ) কেউ হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি

সুস্বাস্থ্যের জন্য দোয়া করা যেমন সুন্নত আবার রোগ হলে চিকিৎসা করানোও সুন্নত !


একদা হযরত ইবরাহীম আলাইহিস সালাম তিনি আল্লাহ পাকের নিকট জিজ্ঞাসা করলেন, হে আমার রব! রোগ কার পক্ষ থেকে? আল্লাহপাক বললেন, হে হযরত ইবরাহীম আলাইহিস সালাম! রোগ আমার পক্ষ থেকে। আবার তিনি প্রশ্ন করলেন, ঔষধ তার পক্ষ হতে? এরশাদ হল, ঔষধও আমার

পবিত্র কুরআনের মাঝে ৫৪০ টি রুকুই জীবন্ত প্রমাণ যে, তারাবীর নামায ২০ রাকাত


১৪০০ বছর ধরে চলে আসা একটি সুন্নত হলো তারাবীহ নামায আর এই তারাবীহ নামাযের ২০ রাকাত, তা ১০০% কুরআন শরীফ দ্বারা প্রমাণিত। বিস্তারিত অনেক দলিল থাকার পরও ছোট একটি চমকপ্রদ দলিল জেনে নিন পবিত্র কুরআন শরীফ থেকে। যাদ্বরুন মানুষরূপী শয়তানদের থেকে

শিয়া সম্প্রদায় ও তাদের কুফরি আকিদা


শিয়াদের পরিচিতি:  শিয়া একটি বাতিল বা ভ্রান্ত ফিরকা। যারা হযরত আলী আলাইহিস সালাম উনাকে অনুসরনের দোহাই দিয়ে সাহাবায়ে কিরাম রদ্বিয়াল্লাহু আনহুম উনাদের চরম বিরোধীতা করে তাদের শিয়া বলে। এদেরকে রাফেযী ও বলা হয়ে থাকে। ইসলামের বিরুদ্ধে ইহুদীদের এক সুদূরপ্রসারী চক্রান্তের ফসল