Archive for the ‘ইসলাম ও জীবন’ Category

মুজাদ্দিদে আ’যম, সাইয়্যিদুনা ইমাম মামদুহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলইহিস সালাম উনার মা’রিফাত-মুহব্বত মুবারক, সন্তুষ্টি-রেযামন্দি মুবারক পেতে হলে সাইয়্যিদুল উমাম হযরত শাহ নাওয়াসা ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনাকে মুহব্বত করা, তা’যীম-তাকরীম করা প্রত্যেকের জন্য ফরয


মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছ, عَنْ حَضْرَتْ أَبِىْ هُرَيْرَةَ رَضِىَ اللهُ تَعَالٰی عَنْهُ قَالَ: سمعت رسول الله صلى الله عليه وسلم يقول في حَضْرَتْ الحسن عَلَيْهِ السَّلَامُ و حَضْرَتْ الحسين عَلَيْهِ السَّلَامُ من أحبني فليحب هذين

পবিত্র ১১ই যিলক্বদ শরীফ দিনটিও ‘আইয়্যামিল্লাহ’ উনার অন্তর্ভুক্ত অর্থাৎ পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ


ايام الله (আইয়্যামিল্লাহ) অর্থ মহান আল্লাহ পাক উনার দিনসমূহ। এ প্রসঙ্গে মহান আল্লাহ পাক তিনি উনার কালাম পাক উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, وَذَكِّرْهُم بِأَيَّامِ اللَّـهِ ۚ إِنَّ فِي ذَٰلِكَ لَآيَاتٍ لِّكُلِّ صَبَّارٍ شَكُورٍ অর্থ: “তাদেরকে মহান আল্লাহ পাক উনার দিনসমূহের

সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুছ ছামিন আলাইহিস সালাম উনার রচিত সম্মানিত কবিতা বা ক্বাছীদা শরীফ


আবূ উছমান মাযানী নাহবী রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি বলেন, আমি সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুছ ছামিন মিন আহলি বাইতি রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে বলতে শুনেছি- اللَّهُ أَعْدَلُ مِنْ أَنْ يُكَلِّفَ الْعِبَادَ مَا لَا يُطِيقُونَ،ৃ وَهُمْ أَعْجَزُ مِنْ أَنْ يَفْعَلُوا مَا يُرِيدُونَ. অর্থ:

সুমহান পবিত্র ১১ই যিলক্বদ শরীফ: সাইয়্যিদুল উমাম, আওলাদে রসূল সাইয়্যিদুনা হযরত শাহ নাওয়াসা আউওয়াল ক্বিবলা আলাইহিস সালাম তিনি হচ্ছেন জগৎ উজালাকারী সম্মানিত মেহমান


মহান মুজাদ্দিদ, মুজাদ্দিদে আ’যম, কুতুবুল আলম, আওলাদে রসূল, আস্ সাফফাহ সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম এবং গুলে মুবিনা, নূরে মাদীনা, নূরে জাহান সাইয়্যিদাতুনা হযরত উম্মুল উমাম আলাইহাস সালাম উনাদের লখতে জিগার, নিবরাসাতুল উমাম সাইয়্যিদাতুনা হযরত শাহযাদী ছানী ক্বিবলা আলাইহাস সালাম

মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র সুন্নত মুবারক প্রচার-প্রসার করার বেমেছাল ফযীলত মুবারক


মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, عَنْ حَضْرَتْ اِبْنِ عَبَّاسٍ رَضِىَ اللهُ تَعَالـٰى عَنْهُ قَالَ سَـمِعْتُ حَضْرَتْ عَلِـىِّ بْنَ اَبِــىْ طَالِبٍ عَلَيْهِ السَّلَامُ يَقُوْلُ خَرَجَ عَلَيْنَا رَسُوْلُ اللهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ فَقَالَ اللَّهُمَّ ارْحَمْ خُلَفَائِـىْ قَالَ

আন্তর্জাতিক মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র সুন্নত মুবারক প্রচার কেন্দ্র এবং নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র দিক-নির্দেশনা মুবারক


আহলু বাইতি রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, ক্বায়িম মাক্বামে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, মুত্বহ্হার, মুত্বহ্হির, আছ ছমাদ, মুজাদ্দিদে আ’যম মামদূহ মুর্শিদ ক্বিবলা সাইয়্যিদুনা ইমাম খলীফাতুল্লাহ হযরত আস সাফফাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ২৬শে শাওওয়াল শরীফ ১৪৪১ হিজরী ইয়াওমুল জুমুয়া

কুরবানীর পশুর হাট নিয়ে বিভ্রান্তিকর বক্তব্য দেয়ায় স্থানীয় সরকার মন্ত্রীকে আইনী নোটিশ


পবিত্র কুরবানীর পশুর হাট নিয়ে বিভ্রান্তিকর বক্তব্যের দায়ে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী জনাব তাজুল ইসলামকে সতর্ক করে আইনী নোটিশ পাঠানো হয়েছে। নোটিশটি পাঠিয়েছেন মুসলিম রাইটস ফাউন্ডেশন সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মুহম্মদ মাহবুব আলমের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের বিজ্ঞ

অনলাইন ভিত্তিক কুরবানীর পশুর হাট শরীয়তসম্মত নয়


অনলাইনে কুরবানীর পশু বেচা-কেনা করার অর্থ হচ্ছে কুরবানীর পশুর ছবি দেখিয়ে বেচা-কেনা করা। অথচ সম্মানিত শরীয়ত তথা দ্বীন ইসলামে প্রাণীর ছবি তোলা, তোলানো, দেখা ও দেখানো সবই হারাম। ছহীহ বুখারী শরীফ উনার মধ্যে বর্ণিত রয়েছে- إِنَّ أَشَدَّ النَّاسِ عَذَابًا عِنْدَ اللهِ

আজ বিশ্ব পর্দা দিবস; যা বরকতময় পবিত্র ৮ই যিলক্বদ শরীফ। সুবহানাল্লাহ!


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন- “হে হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম! নিশ্চয়ই আপনারা অন্য কোনো মহিলাদের মতো নন।” অর্থাৎ অন্য কোন পুরুষ ও মহিলা কারো মতো নন। সুবহানাল্লাহ! আজ বিশ্ব পর্দা দিবস; যা বরকতময় পবিত্র ৮ই যিলক্বদ শরীফ। সুবহানাল্লাহ!

সুমহান বরকতময় মহাসম্মানিত মহাপবিত্র ৭ শরীফ। সুবহানাল্লাহ! যা সাইয়্যিদাতু নিসায়িল আলামীন, আখাছছুল খাছ আহলু বাইতি রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সাইয়্যিদাতুনা হযরত উম্মুল উমাম আলাইহাস সালাম উনার পবিত্র বিলাদতী শান মুবারক প্রকাশ উনার সম্মানিত আ’দাদ শরীফ। সুবহানাল্লাহ!


নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “নিশ্চয়ই আমার হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম ও আলাইহিন্নাস সালাম উনারা আসমান ও যমীনবাসীদের জন্য নিরাপত্তা দানকারী।” সুবহানাল্লাহ! সুমহান বরকতময় মহাসম্মানিত মহাপবিত্র ৭ শরীফ। সুবহানাল্লাহ! যা সাইয়্যিদাতু

গরুর গোশত খাওয়া নিয়ে মুনাফিকদের বক্তব্য- সম্মানিত দ্বীন ইসলামবিরোধী ও কুফরী


সম্মানিত মুসলমান উনাদের জন্য সম্মানিত দ্বীন ইসলাম উনার বিরোধী কোনো বক্তব্য, মন্তব্য, ব্যাখ্যা, বিশ্লেষণ, লিখনী গ্রহণযোগ্য ও অনুসরণযোগ্য নয়। মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন- وَمَنْ يَّبْتَغِ غَيْرَ الْاِسْلَامِ دِيْنًا فَلَنْ يُّقْبَلَ مِنْهُ وَهُوَ فِى الْاٰخِرَةِ مِنَ الْخٰسِرِيْنَ অর্থ: “যে

অতিরিক্ত জনসংখ্যা কোনো সমস্যা নয়, বরং মহান আল্লাহ পাক উনার নিয়ামত


বর্তমান বাংলাদেশে ২৫ কোটিরও বেশি লোকের বসবাস। অন্যান্য দেশের তুলনায় এদেশের জন্মহার বেশি তাই জনসংখ্যাও বেশি। যা মহান আল্লাহ পাক উনার পক্ষ হতে এদেশের জন্য অশেষ রহমতস্বরূপ। কিন্তু ইহুদী-খ্রিস্টানদের দ্বারা নিয়ন্ত্রিত এই জনসমাজে এই নিয়ামতকে বাংলাদেশের প্রধান সমস্যা হিসেবে এদেশের জনসাধারণের