Archive for the ‘ইসলাম ও জীবন’ Category

মুহম্মদিয়া জামিয়া শরীফ মাদ্রাসা ও এয়াতিম খানা লিল্লাবোডিং যাকাত ,ফিতরা ও কুরবানীর চামড়া প্রদানের শ্রেষ্ঠ স্থান


আপনি কি পবিত্র যাকাত, ফিতরা ও উশর দেন? যদি দেন তাহলে আপনার পবিত্র যাকাত, ফিতরা ও উশর আমাদের এখানে (মুহম্মদিয়া জামিয়া শরীফ মাদ্রাসা ও এয়াতিম খানা লিল্লাবোডিং) এ দিতে পারেন। কারণ এই মাদ্রাসাই হচ্ছে একমাত্র হক্ব মাদ্রাসা। এর বৈশিষ্ট হচ্ছে নিম্নরুপ:

বদকার লোক মারা যাওয়ার সময় কি অবস্থা হয় তার একটি বাস্তব উদাহরণ


এক লোক মারা যাওয়ার সময় খুবই ছটফট করছিল, চোখ বড় বড় করে এদিক-সেদিক তাকাচ্ছিল, হাত-পা ছুটাছুটি করছিল।  উদাহরণছটফট করতে করতে শেষ পর্যন্ত চকির উপর থেকে নিচে পড়ে মারা যায়। এর মূল কারণ হলো-সে যেহেতু বদকার ছিলো তাই তার রুহ কবজ করার জন্য

বিস্ময়কর বরকতময় ফল: ত্বীন ও জয়তুন


বিস্ময়কর বরকতময় ফল: ত্বীন ও জয়তুন ==================== পবিত্র কুরআন শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, অর্থ: শপথ! ডুমুর ও জয়তুনের। (পবিত্র সূরা ত্বীন শরীফ: পবিত্র আয়াত শরীফ ১) মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ‘ত্বীন’ নামে একটি পবিত্র

প্রতি আরবী মাসের সাইয়্যিদু সাইয়্যিদিল আ’দাদ শরীফ, মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র ১২ই শরীফ উনাকে মহাপবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ । আজ মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র ১২ই রজবুল হারাম শরীফ। সুবহানাল্লাহ!


মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, “আমার হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে তা’যীম-তাকরীম মুবারক করো।” সুবহানাল্লাহ! আজ মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র ১২ই রজবুল হারাম শরীফ। সুবহানাল্লাহ! মালিকুত তামাম, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি

পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উনার অন্যতম উত্তম আমল; মুসলমানদের জন্য খাছভাবে দোয়া করা আর কাফিরদের জন্য কঠিন বদদোয়া করা


সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উনার মাহফিলে যে কোন দোয়া নিঃসন্দেহে মকবুল। এজন্য মুসলমানদের মুক্তির জন্য এবং বিপদ থেকে হিফায়েতর জন্য বিশেষ দোয়া করা কর্তব্য। আর সকল সন্ত্রাসী কাফির মুশরিকদের বিরুদ্ধে কঠিন বদদোয়া করাও ঈমানের দাবী। মুসলমানদেরকে নিয়ে কাফির মুশরকিদের ষড়যন্ত্র নতুন কোন

মুহইউস সুন্নাহ, আহলে বাইতে রসূল, সাইয়্যিদে মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম উনার বেমেছাল অভূতপূর্ব তাজদীদ মুবারক! ‘আন্তর্জাতিক পবিত্র সুন্নত মুবারক প্রচার কেন্দ্র’ প্রতিষ্ঠা ও বাস্তবায়ন


পবিত্র সুন্নত মুবারক উনার ফযীলত মুবারক প্রকাশে সাইয়্যিদে মুজাদ্দিদে আ’যম, নূরে মুকাররম, হাবীবুল্লাহ, মুহইউস সুন্নাহ, কূল মাখলুকাতের ইমাম ও মুজতাহিদ, যামানার শ্রেষ্ঠতম ইমাম ও মুজতাহিদ, সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম তিনি নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম

সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খাতামুন নাবিয়্যীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র ১২ই রবীউল আউওয়াল শরীফ ইয়াওমুল ইছনাইনিল ‘আযীম শরীফ মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র বরকতময় বিলাদতী শান মুবারক প্রকাশ করেছেন এটা সর্বোচ্চ পর্যায়ের মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র ছহীহ হাদীছ শরীফ দ্বারাই প্রমাণিত


সর্বোচ্চ পর্যায়ের মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র ছহীহ হাদীছ শরীফ দ্বারাই প্রমাণিত যে, সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খ¦াতামুন নাবিয়্যীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র ১২ই রবীউল আউওয়াল শরীফ ইয়াওমুল ইছনাইনিল ‘আযীম শরীফ মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র

মুসলমানদের অধিকার সংরক্ষণ করার ব্যাপারে সরকারকে অবশ্যই অত্যধিক তৎপর হতে হবে


মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র সূরা ক্বছাছ শরীফ উনার ৭৭নং পবিত্র আয়াত শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, ‘দুনিয়াতে তুমি তোমার অধিকারকে ভুলে যেও না।’ বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার শতকরা ৯৮ ভাগই মুসলমান আর রাষ্ট্রদ্বীন হচ্ছেন সম্মানিত দ্বীন ইসলাম। তাই সর্বক্ষেত্রেই পবিত্র

খনিজ সম্পদের ইজারা বিদেশীদের নিকট দেয়ার প্রতিবাদ জানাই


খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার অবারিত রহমতের ধনভাণ্ডার বিরাজ করছে আমাদের এই সোনার বাংলায়। বিশেষ করে খনিজ সম্পদের মজুদ এখানে ব্যাপক। এসব খনিজ সম্পদগুলো যথাযথ পদ্ধতিতে উত্তোলন করে দেশের জনসাধারণের চাহিদা পূরণ করে বিদেশেও রফতানী করা যায়। সরকারি-বেসরকারি অনেক

সম্মানিত ও পবিত্র ‘রজবুল আছম’ শরীফ মাস উনার বিভিন্ন নামকরণ এবং তাৎপর্য


সম্মানিত ও পবিত্র রজবুল হারাম শরীফ মাস উনার আরেকটি নাম মুবারক হচ্ছেন ‘আছম’ তথা বধির: কিতাবে বর্ণিত আছে- وَاِسْمُه اَيْضًا اَلْاَصَمُّ لِاَنَّ الْحُرُوْبَ تُرْفَعُ فِيْهِ فَلَايَسْمَعُ فِيْهِ لِلسِّلَاحِ قَعْقَعَةٌ অর্থ: “ইহা তথা সম্মানিত ও পবিত্র ‘রজবুল হারাম’ শরীফ মাস উনার আরেক

হিন্দুদের পূর্বপুরুষরাও একসময় মুসলমান ছিলো


কিছু অজ্ঞ মূর্খ আছে যারা বলে মুসলমানরা আগে অন্য ধর্মের ছিলো। এসব যবন মূর্খের বক্তব্যের জবাবে বলতে হয়- মুসলমানগণ নয়, বরং হিন্দুরাই কোনো একসময় মুসলমান ছিলো। পরবর্তীতে তারা মুসলিম জাতি থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে উপজাতিদের মতো পৃথক হয়ে মনগড়া ধর্ম পালন শুরু

নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মানহানী করলে ১০ বছরের কারাদণ্ড-! আর বঙ্গবন্ধুর মানহানী করলে ১৪ বছরের কারাদণ্ড!


সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খতামুন্নাবিয়্যীন নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি শুধু মহান আল্লাহ পাক তিনি নন, এছাড়া সব। সুবহানাল্লাহ! উনাকে তা’যীম-তাকরীম করা, কায়িনাতের সকলের জন্য ফরয। আর উনার প্রতি বিদ্বেষ পোষন করা, উনার শান-মানের খেলাফ কথা