Archive for the ‘ইসলাম ও জীবন’ Category

২২শে জুমাদাল ঊলা শরীফ উদযাপন ব্যতিত ফাল্ইয়াফ্রাহূ তথা খুশি মুবারক প্রকাশ করা সম্ভব নয়


সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খ¦তামুন নাবিয়্যীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি হলেন সমস্ত মাখলুকাতের জন্য, সমস্ত কায়িনাতের জন্য রহমত মুবারক। মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন- وَمَا أَرْسَلْنَاكَ إِلَّا رَحْمَةً

আফদ্বালুন নাস বা’দা রসূলিল্লাহ, সাইয়্যিদাতু নিসায়িল আলামীন, উম্মুল মু’মিনীন আল ঊলা, সাইয়্যিদাতুনা হযরত কুবরা আলাইহাস সালাম উনার একখানা বিশেষ স্বপ্ন মুবারক


উম্মুল মু’মিনীন আল ঊলা সাইয়্যিদাতুনা হযরত কুবরা আলাইহাস সালাম তিনি পূর্ব থেকেই মনোনীত। নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মুবারক খিদমতে আনজাম দেয়ার জন্য উনাকে মহান আল্লাহ পাক তিনি বিশেষভাবে সৃষ্টি করেছেন। যা উম্মুল মু’মিনীন আল ঊলা

সাইয়্যিদাতু নিসায়িল আলামীন, উম্মুল মু’মিনীন আল ঊলা সাইয়্যিদাতুনা হযরত কুবরা আলাইহাস সালাম উনার আযীমুশ নিসবতে আযীম মুবারক এবং প্রাসঙ্গিক আলোচনা


নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার বরকতময় কোন বিষয় সাধারণ মানুষের মত নয়। তাই, সাধারণ মানুষের ক্ষেত্রে ব্যবহৃত সাধারণ শব্দসমূহ উনার মুবারক শানে ব্যবহার করা যাবেনা। আর এ জন্য উনার মুবারক শানে শাদী, বিবাহ বা নিকাহ ইত্যাদী

মুজাদ্দিদে আ’যম, গউছুল আযম সাইয়্যিদুনা মামদুহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলাহ আলাইহিস সালাম উনার বিশেষ তাজদীদ মুবারক হচ্ছেন ‘বিবাহ দোহরানো’ তথা নবায়ন করা


এক হাজার হিজরী শরীফ উনার পর থেকে শুরু হয়েছে আখিরী যামানা , আর বর্তমানে চলছে ১৪৪১ হিজরী শরীফ যেটা হচ্ছে আখিরেরও আখির যামানা । মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে- عن حضرت انس رضي الله تعالى عنه

মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র ২২শে জুমাদাল উলা শরীফ কি এবং এ দিবসে কি করা হয়?


যিনি খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন- وَذَكِّرْهُمْ بِاَيَّامِ اللهِ اِنَّ فِـىْ ذٰلِكَ لَاٰيٰتٍ لِّكُلِّ صَبَّارٍ شَكُوْرٍ অর্থ: “আর আপনি তাদেরকে মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র আইয়্যামুল্লাহ শরীফ তথা মহান আল্লাহ পাক উনার মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র বিশেষ বিশেষ দিন

সর্বোচ্চ নিয়ামত মুবারক হলেন পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ


পবিত্র কুরআন শরীফ উনার পবিত্র আয়াত শরীফ ও সম্মানিত হাদীছ শরীফ উনার দ্বারা স্পষ্টভাবে সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে পাওয়ার কারণে খুশি প্রকাশ করা প্রমাণিত। মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন,

ইহুদী-নাছারা, মুশরিক-বৌদ্ধ, মজুসী-মুশরিকদের সর্বপ্রকার ষড়যন্ত্র থেকে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘অধিকাংশ আহলে কিতাব তথা কাফির-মুশরিকরা চায়- তোমরা পবিত্র ঈমান আনার পর তোমাদেরকে হিংসা বা শত্রুতাবশতঃ কাফির বানিয়ে দিতে।’ নাউযুবিল্লাহ! ইহুদী, মুশরিক, বৌদ্ধ, মজুসী, নাছারা প্রকৃতপক্ষে সমস্ত বিধর্মীরা মুসলমানদের চরম শত্রু।। তাই তারা সূক্ষ্মকৌশলে মুসলমানদের

অতিসত্বর বাল্যবিবাহ বিরোধী আইন উঠিয়ে নেয়া হোক


খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন- “নিশ্চয়ই আমার হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মাঝে নিহিত রয়েছে তোমাদের জন্য উত্তম আদর্শ মুবারক।” (পবিত্র সূরা আহযাব শরীফ: পবিত্র আয়াত শরীফ-২১) এতদ্বসত্ত্বেও ব্রিটিশ কুচক্রীদের

পবিত্র ২২ জুমাদাল ঊলা শরীফ উনার শাহী আয়োজনে শরীক থেকে বিবাহ দোহরায়ে শান্তিময় জীবন নিয়ে বসবাস করুন


২২শে জুমাদাল উলা শরীফ: বিবাহ দোহরানোর শাহী মজলিস। যে মজলিসে স্বয়ং আওলাদে রসূল যামানার লক্ষস্থ্যল আহলে বাইত ওলীআল্লাহ, খাযিনাতুস সুন্নাহ, হাদিয়াতুস সুন্নাহ, মুহইউস সুন্নাহ, সাইয়্যিদে মুজাদ্দিদে আ’যম, নূরে মুকাররম, হাবীবুল্লাহ, যামানার শ্রেষ্ঠতম ইমাম ও মুজতাহিদ, সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম

পবিত্র সামা’ শরীফ, ক্বাছীদা শরীফ উনার মাহফিল খাছ সুন্নত মুবারক উনার অন্তর্ভুক্ত


মহান আল্লাহ পাক তিনি কুরআন মজীদ উনার পবিত্র সূরা শূয়ারা শরীফ উনার ২২৪নং পবিত্র আয়াত শরীফ উনার মধ্যে বিভ্রান্ত, গুমরাহ কবি-সাহিত্যিকদের সম্পর্কে ইরশাদ মুবারক করেন- وَالشُّعَرَ‌اءُ يَتَّبِعُهُمُ الْغَاوُونَ অর্থ : “বিভ্রান্ত লোকেরাই (মিথ্যা, অশ্লীলতা, কুৎসা বর্ণনাকারী) কবিদের অনুসরণ করে।” এ পবিত্র

পবিত্র মসজিদ ভাঙ্গা বা উচ্ছেদের বিরুদ্ধে যারা প্রতিবাদ করবে না তারা ঈমানদার ও উম্মত হিসেবে থাকতে পারবে না


যিনি খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন- كُنتُمْ خَيْرَ أُمَّةٍ أُخْرِجَتْ لِلنَّاسِ تَأْمُرُونَ بِالْمَعْرُوفِ وَتَنْهَوْنَ عَنِ الْمُنكَرِ وَتُؤْمِنُونَ بِاللَّـهِ অর্থ: মানুষদের মধ্যে তোমরা হচ্ছো শ্রেষ্ঠ উম্মত, তোমাদেরকে শ্রেষ্ঠ উম্মত হিসেবে মনোনীত করা হয়েছে, এখন তোমাদের দায়িত্ব-কর্তব্য হচ্ছে,

গান বাজনার মাধ্যমে নিফাক্বী ব্যতীত আর কিছুই হাছিল হয় না


নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “আমি গান-বাজনা, বাদ্য-যন্ত্র ধ্বংস করার জন্য প্রেরিত হয়েছি।” এই পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার ব্যাখ্যায় বলা হয়, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি গান-বাজনা ধ্বংস