Archive for the ‘উদ্যোগ’ Category

উম্মুহাতুল মুমিনীন উনা‌দের সম্প‌র্কে জ্ঞান অর্জন করা সমস্ত মুসলমান‌দের জন্য ফরয ওয়া‌জিব


আমা‌দের প্রিয় নবী‌জি উনার সম্মা‌নিতা আজওয়াজুন মুতাহহারাতুন তথা সম্মা‌নিতা জীবন সঙ্গী‌নি উনারা হ‌লেন উম্মুহাতুল মু‌মিনীন তথা সমস্ত কা‌য়িনা‌তের মাতা। উনারা সমস্ত কা‌য়িনাতবাসীর জন্য উসওয়াতুন হাসনাহ তথা আর্দশ মুবারক। অথচ উনা‌দের সম্প‌র্কে কয়জন মুসলমান বা জা‌নে? উনা‌দের‌কে মহান আল্লাহপাক কত সম্মা‌নিত ক‌রে‌ছেন

৬৪ জেলার পুলিশের ওসির মোবাইল নাম্বার


বাংলাদেশের সকল থানার ওসির মোবাইল নাম্বার দেয়া হলো, আপনার থানার ওসি সাহেবের মোবাইল নাম্বার সংগ্রহে রেখে দিন বলা তো যায় কখন কোন প্রয়োজনে থানার মোবাইল নাম্বার কাজে লেগে যেতে পারে । বাংলাদেশের সকল ওসি সাহেবদের সরকারী মোবাইল নম্বর: ডিএমপি, ঢাকা: ১)

মঙ্গল শোভাযাত্রাকে সার্বজনীন করার সুযোগ নেই: অধ্যাপক মাহবুব


সরকার শিক্ষা সিলেবাসে নাস্তিক্যবাদী চিন্তা চেতনার বাস্তবায়ন করতে না পেরে নাস্তিক্যাবাদীদের সন্তুষ্ট করতেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মঙ্গল শোভাযাত্রাসহ পহেলা বৈশাখ উদযাপনের নির্দেশ দিয়েছে। কিন্তু নাস্তিক্যবাদী সিলেবাস যেমন এদেশের ইসলামপ্রিয় মুসলমান মেনে নেয় নি, তেমন মঙ্গলশোভা যাত্রার নির্দেশও তারা মানবে না। গতকাল আওয়ার

পবিত্র রজবুল হারাম শরীফ হলো মহান আল্লাহ পাক উনার মাসঃ


খালিক্ব মালিক রব আল্লাহ পাক সুবহানাহূ ওয়া তায়ালা তিনি এবং কুল-কায়িনাতের নবী ও রসূল, সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খাতামুন নাবিইয়ীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের ঘোষণাকৃত চারটি হারাম বা সম্মানিত মাস উনাদের মধ্যে একটি হলো পবিত্র

বিশ্ব কর্তৃত্বের আশায় বিশ্ব মিডিয়া নিয়ন্ত্রণ করছে ইহুদীরা। মূল টার্গেট পবিত্র দ্বীন ইসলাম এবং মুসলিমরা। মুসলিম বিশ্বের উচিত- এদের সম্পর্কে হুঁশিয়ার হয়ে শক্তিশালী ইসলামী মিডিয়া গঠন করা।


বর্তমান মিডিয়া এমন একটি অপশক্তি, যা সাধারণ ভাষায় বলতে গেলে- ‘মিডিয়া একটি অঘোষিত প্রকাশ্য বিশ্বসন্ত্রাসী’। মিডিয়ার প্রভাবে এখন চিরসত্যও চিরমিথ্যাতে পরিণত হয়। আর এই সন্ত্রাসী মিডিয়া পরিচালনা করে কুখ্যাত ইহুদী সম্প্রদায়। ইহুদীদের ইশারায় সারা বিশ্বের সব মিডিয়া প্রভাবিত এবং তাদের সিডিউল

রক্তের হক্ব আদায় করার জন্য জেগে উঠো


হযরত আব্দুল্লাহ বিন যুবায়ের রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু তিনি খ্রিস্টান শাসন কর্তৃক বন্দী হলেন। মুসলমান সৈন্য উনাদেরকে গরম তেলের ডেকচিতে ফেলে শহীদ করা হচ্ছে। উনাকে শর্ত দেয়া হল- যদি বশ্যতা স্বীকার করেন তাহলে শাসকের রাজার মেয়েকে বিয়ে দেয়া হবে- অর্ধেক রাজত্ব দেয়া

মোবাইল ও ইন্টারনেট ব্যবহার করতে কমপক্ষে বয়স ১৮ হতে হবে…!!


মোবাইলফোন এখন ছোট-বড়, ছেলে-মেয়ে সবাই ব্যবহার করে। মোবাইলফোনে ইন্টারনেটের ব্যবহারও সর্বত্র। ইন্টারনেটের এই অবাধ ব্যবহারে দেশের উঠতি বয়সের শিশু, কিশোর, যুবক থেকে শুরু করে সকলেই যে পর্নো দেখা, অশ্লীল ছবি-ভিডিও দেখাসহ নানা রকম বেহায়াপনায় যুক্ত হচ্ছে সেটা কারোই অজানা নয়। শুধু

সম্মানিত দ্বীন ইসলাম সম্পর্কিত আর্টিকেল লেখার জন্য ইংরেজি ভাষার কিছু সংস্কার করা আবশ্যক


বর্তমানে সারাবিশ্বে সবার নিকট বোধগম্য ভাষা বলতে ইংরেজিকেই বোঝানো হয়। অন্যান্য ভাষা থেকে ইংরেজি ভাষায় বিভিন্ন প্রবন্ধ ও আর্টিকেল লিখে ছড়ানো হয়, যেন তা অন্যান্য ভাষাভাষীর নিকট পৌঁছানো যায়। তবে এখানে একটি সমস্যা রয়েছে, তা হচ্ছে প্রচলিত ইংরেজি ভাষায় আদব, শরাফত,

সমস্ত মুসলিমা নারীদের জন্য উম্মুল উমাম আম্মাজী ক্বিবলা আলাইহাস সালাম উনার মোবারক ছোহবত ইখতিয়ার করা অত্যবাশ্যক।


মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, হে ঈমানদারগণ! তোমরা মহান আল্লাহ পাক উনার নৈকট্য লাভ করার জন্য উসীলা তালাশ কর। (পবিত্র সূরা মায়িদা শরীফ : পবিত্র আয়াত শরীফ ৩৫) এই পবিত্র আয়াত শরীফ উনার ব্যাখ্যায়

ইসলামই একমাত্র আধুনিকতায়, সভ্যতায় ও জ্ঞান-বিজ্ঞানের প্রাচুর্যতায় পূর্ণ দ্বীন|-


পবিত্র ইসলাম সর্বকালের জন্য, সর্বযুগের জন্য এমনকি ক্বিয়ামত পর্যন্ত আধুনিক। কেউ যদি পরিপূর্ণ ইসলাম উনার সৌন্দর্য অবলোকন করে তাহলে মুসলমানতো অবশ্যই, বরং অনেক কাফির মুশরিকও মুগ্ধ হবে এবং ইসলাম গ্রহণ করবে। এ যাবৎ যত অমুসলিম ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছে তারা পবিত্র

পবিত্র পর্দা পালনে ও সুন্নত মুবারক অনুসরণে হযরত ফারুকে আযম আলাইহিস সালাম।


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে বর্ণিত হয়েছে, একবার আমীরুল মু’মিনীন, খলীফাতুল মুসলিমীন হযরত উমর ফারুক আ’যম আলাইহিস সালাম তিনি উনার সম্মানিত মেয়ে, উম্মুল মু’মিনীন হযরত হাফসা আলাইহাস সালাম উনার সাথে একত্রে একটি রুমে বসে কিছু বিষয় আলাপ-আলোচনা করতেছিলেন। এমন সময় আমীরুল

আসুন আমরা পিতা মাতার হক্ব আদায় করার বিশেষ ব্যাবস্থা অবলম্বন করি।


খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, পবিত্র আয়াত শরীফ উনার ভাবার্থ হলো- “তোমরা মহান আল্লাহ পাক উনাকে ব্যতীত অন্য কারো ইবাদত করো না। আর পিতা-মাতা উনাদের সাথে সদাচরণ করবে। উনাদের মধ্য থেকে