Archive for the ‘উদ্যোগ’ Category

৯৮ ভাগ মুসলমানদের দেশের মুসলিম সরকার হিসেবে সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালনের জন্য সরকারের কোন উদ্যোগ আছে কি?


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘(আমার হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম!) আপনি বলুন, মহান আল্লাহ পাক উনার মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র ফদ্বল মুবারক ও মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র রহমত মুবারক অর্থাৎ আমাকে পাওয়ার কারণে তোমাদের উচিত ঈদ বা খুশি প্রকাশ করা।’

যে কারনে বাংলাদেশের বর্তমান জাতীয় সংগীত পরিবর্তন হওয়া দরকার


১) বাংলাদেশের বর্তমান জাতীয় সংগীত ভারতীয় জাতীয় কবির লেখা। বাংলাদেশে কি জাতীয় কবি নেই? বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত বাংলাদেশের জাতীয় কবির লেখা হওয়া উচিত। ২) পশ্চিমবঙ্গের হিন্দুরা সব সময় একটা কথা বলে, “দাও দুই বাংলা এক করে দাও”। পশ্চিমবঙ্গের হিন্দুদের বিশ্বাস অবশ্যই

অশালীন বিলবোর্ড রাস্তায় দুর্ঘটনার অন্যতম কারণ!


একবার এক মন্ত্রী এক সভার ভাষণে বলেন, “সুন্দরী মেয়েদের বিল বোর্ড এর কারণে রাস্তায় দুর্ঘটনা ঘটে, আমাদের চালক ভাইরা তারা সুন্দরী মেয়েদের বিলবোর্ডের দিকে তাকান এর ফলে দুর্ঘটনা ঘটে, তবে তারাও মানুষ”। বাস্তবতা সেটাই আমরা দেখতে পাই- শুধু সুন্দরী মেয়ে নয়,

ধর্মব্যবসায়ী ও বিধর্মীদেরকে গুরুত্বপূর্ণ পদগুলো থেকে অপসারণ জরুরী 


আমাদের দেশের প্রশাসন ও সরকার অনেক সময় হাক্বীকত না জেনে, না বুঝে বিধর্মী, মুশরিক, অমুসলিম, জামাতী খারেজী, ওহাবী, ধর্মব্যবসায়ীদেরকে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব ও পদে বসিয়ে থাকে। অথচ তারা এরপর যে দলীয়করণ ও স্বজনপ্রীতির ফলে প্রশাসন, সরকার ও দেশকে হুমকির মুখে ফেলে দেয়

উম্মুহাতুল মুমিনীন উনা‌দের সম্প‌র্কে জ্ঞান অর্জন করা সমস্ত মুসলমান‌দের জন্য ফরয ওয়া‌জিব


আমা‌দের প্রিয় নবী‌জি উনার সম্মা‌নিতা আজওয়াজুন মুতাহহারাতুন তথা সম্মা‌নিতা জীবন সঙ্গী‌নি উনারা হ‌লেন উম্মুহাতুল মু‌মিনীন তথা সমস্ত কা‌য়িনা‌তের মাতা। উনারা সমস্ত কা‌য়িনাতবাসীর জন্য উসওয়াতুন হাসনাহ তথা আর্দশ মুবারক। অথচ উনা‌দের সম্প‌র্কে কয়জন মুসলমান বা জা‌নে? উনা‌দের‌কে মহান আল্লাহপাক কত সম্মা‌নিত ক‌রে‌ছেন

৬৪ জেলার পুলিশের ওসির মোবাইল নাম্বার


বাংলাদেশের সকল থানার ওসির মোবাইল নাম্বার দেয়া হলো, আপনার থানার ওসি সাহেবের মোবাইল নাম্বার সংগ্রহে রেখে দিন বলা তো যায় কখন কোন প্রয়োজনে থানার মোবাইল নাম্বার কাজে লেগে যেতে পারে । বাংলাদেশের সকল ওসি সাহেবদের সরকারী মোবাইল নম্বর: ডিএমপি, ঢাকা: ১)

মঙ্গল শোভাযাত্রাকে সার্বজনীন করার সুযোগ নেই: অধ্যাপক মাহবুব


সরকার শিক্ষা সিলেবাসে নাস্তিক্যবাদী চিন্তা চেতনার বাস্তবায়ন করতে না পেরে নাস্তিক্যাবাদীদের সন্তুষ্ট করতেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মঙ্গল শোভাযাত্রাসহ পহেলা বৈশাখ উদযাপনের নির্দেশ দিয়েছে। কিন্তু নাস্তিক্যবাদী সিলেবাস যেমন এদেশের ইসলামপ্রিয় মুসলমান মেনে নেয় নি, তেমন মঙ্গলশোভা যাত্রার নির্দেশও তারা মানবে না। গতকাল আওয়ার

পবিত্র রজবুল হারাম শরীফ হলো মহান আল্লাহ পাক উনার মাসঃ


খালিক্ব মালিক রব আল্লাহ পাক সুবহানাহূ ওয়া তায়ালা তিনি এবং কুল-কায়িনাতের নবী ও রসূল, সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খাতামুন নাবিইয়ীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের ঘোষণাকৃত চারটি হারাম বা সম্মানিত মাস উনাদের মধ্যে একটি হলো পবিত্র

বিশ্ব কর্তৃত্বের আশায় বিশ্ব মিডিয়া নিয়ন্ত্রণ করছে ইহুদীরা। মূল টার্গেট পবিত্র দ্বীন ইসলাম এবং মুসলিমরা। মুসলিম বিশ্বের উচিত- এদের সম্পর্কে হুঁশিয়ার হয়ে শক্তিশালী ইসলামী মিডিয়া গঠন করা।


বর্তমান মিডিয়া এমন একটি অপশক্তি, যা সাধারণ ভাষায় বলতে গেলে- ‘মিডিয়া একটি অঘোষিত প্রকাশ্য বিশ্বসন্ত্রাসী’। মিডিয়ার প্রভাবে এখন চিরসত্যও চিরমিথ্যাতে পরিণত হয়। আর এই সন্ত্রাসী মিডিয়া পরিচালনা করে কুখ্যাত ইহুদী সম্প্রদায়। ইহুদীদের ইশারায় সারা বিশ্বের সব মিডিয়া প্রভাবিত এবং তাদের সিডিউল

রক্তের হক্ব আদায় করার জন্য জেগে উঠো


হযরত আব্দুল্লাহ বিন যুবায়ের রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু তিনি খ্রিস্টান শাসন কর্তৃক বন্দী হলেন। মুসলমান সৈন্য উনাদেরকে গরম তেলের ডেকচিতে ফেলে শহীদ করা হচ্ছে। উনাকে শর্ত দেয়া হল- যদি বশ্যতা স্বীকার করেন তাহলে শাসকের রাজার মেয়েকে বিয়ে দেয়া হবে- অর্ধেক রাজত্ব দেয়া

মোবাইল ও ইন্টারনেট ব্যবহার করতে কমপক্ষে বয়স ১৮ হতে হবে…!!


মোবাইলফোন এখন ছোট-বড়, ছেলে-মেয়ে সবাই ব্যবহার করে। মোবাইলফোনে ইন্টারনেটের ব্যবহারও সর্বত্র। ইন্টারনেটের এই অবাধ ব্যবহারে দেশের উঠতি বয়সের শিশু, কিশোর, যুবক থেকে শুরু করে সকলেই যে পর্নো দেখা, অশ্লীল ছবি-ভিডিও দেখাসহ নানা রকম বেহায়াপনায় যুক্ত হচ্ছে সেটা কারোই অজানা নয়। শুধু

সম্মানিত দ্বীন ইসলাম সম্পর্কিত আর্টিকেল লেখার জন্য ইংরেজি ভাষার কিছু সংস্কার করা আবশ্যক


বর্তমানে সারাবিশ্বে সবার নিকট বোধগম্য ভাষা বলতে ইংরেজিকেই বোঝানো হয়। অন্যান্য ভাষা থেকে ইংরেজি ভাষায় বিভিন্ন প্রবন্ধ ও আর্টিকেল লিখে ছড়ানো হয়, যেন তা অন্যান্য ভাষাভাষীর নিকট পৌঁছানো যায়। তবে এখানে একটি সমস্যা রয়েছে, তা হচ্ছে প্রচলিত ইংরেজি ভাষায় আদব, শরাফত,