Archive for the ‘কবিতা’ Category

দোজাহানে হাবীবী শান


দোজাহানে হাবীবী শান   দোজাহানে হাবীবী শান মামদূহী হাবীব আহালী দান বেমেছাল ইজ্জত হুরমত শওকত ছল্লু আলা নূরী বাশারত। ১৪ই যিলক্বদ মুবারক বিলাদত মামদূহী বাগে নূরী আলবৎ মুবারকবাদ শাফিউল উমাম নকশায়ে আপনি গাউছুল আ’যম। রসূলী নাজ আউওয়াল শাহদামাদ আহালী চাদরের নূরী

শাহদামাদ আউওয়াল হুসনে হাসিন


শাহদামাদ আউওয়াল হুসনে হাসিন   শাহদামাদ আউওয়াল সাইয়্যিদীবাগের বুরহানে হন আফরিদীন, শাহদামাদ আউওয়াল সাইয়্যিদীবাগের এক রহমতী আযীমিন। ইস্তিক্বামতে ক্বায়িম মুজাদ্দিদ মামদূহ উনার নিসবতে, জান ও জিসিম ওয়াক্ফ করেন শায়েখী নূরীতে। তামান্না তামাম লভিছেন ক্বিবলা কা’বা উনার রেযাতে। হলেন আক্বার ক্বায়িম-মক্বাম সাইয়্যিদী

দোজাহানে হাবীবী শান


দোজাহানে হাবীবী শান   দোজাহানে হাবীবী শান মামদূহী হাবীব আহালী দান বেমেছাল ইজ্জত হুরমত শওকত ছল্লু আলা নূরী বাশারত।   ১৪ই যিলক্বদ মুবারক বিলাদত মামদূহী বাগে নূরী আলবৎ মুবারকবাদ শাফিউল উমাম নকশায়ে আপনি গাউছুল আ’যম।   রসূলী নাজ আউওয়াল শাহদামাদ আহালী

হিদায়েতের নূর ছড়াতে উনার শাহী শান


হিদায়েতের নূর ছড়াতে উনার শাহী শান   শাহদামাদ আউওয়াল ক্বিবলা তিনি সাইয়্যিদী সুলত্বান ১৪ই যিলক্বদ বিলাদতে রওশন জাহান। খুশি করছে আরশ কুরসি লৌহ কলম আহলান সাহলান মুবারকবাদ মোরা জানাই সকল। ধুম লেগেছে তামাম দুনিয়ায় মীলাদের ছানা পড়ছে ফেরেশতাকুল আউওয়াল শাহদামাদের। পাক

হিদায়েতের নূর ছড়াতে উনার শাহী শান


হিদায়েতের নূর ছড়াতে উনার শাহী শান   শাহদামাদ আউওয়াল ক্বিবলা তিনি সাইয়্যিদী সুলত্বান ১৪ই যিলক্বদ বিলাদতে রওশন জাহান। খুশি করছে আরশ কুরসি লৌহ কলম আহলান সাহলান মুবারকবাদ মোরা জানাই সকল। ধুম লেগেছে তামাম দুনিয়ায় মীলাদের ছানা পড়ছে ফেরেশতাকুল আউওয়াল শাহদামাদের। পাক

একটি ধূলিকণার কথা


একটি ধূলিকণার কথা   হায়দারী তনু ধূলি ভরা পথে আনত নয়নে কভু হেঁটে যান পদতলে আঁটা এক ধূলিকণা মুর্শিদপুর বয়ে নিয়ে যান। ধুলিকণা সেতো তুচ্ছ অতি কে দেখে তারে, কে চেনে হায়দারী নূর ছোঁয়ায় সেই ধূলিকণার মান কে জানে। মুর্শিদপুরের অলিগলি

ইয়া শাহদামাদ আউওয়াল ক্বিবলাজান


ইয়া শাহদামাদ আউওয়াল ক্বিবলাজান     ক্বিবলাজান ক্বিবলাজান ইয়া শাহদামাদ আউওয়াল ক্বিবলাজান।   মোরা গোলাম আশিকান ধরেছি আপনার দামান আপনি নূরে মুজাদ্দিদ যামান ইয়া শাহদামাদ আউওয়াল ক্বিবলাজান।   হাবীব নূরে নূরানী আপনি শাহদামাদ আউওয়াল ক্বিবলা নূরে মাদানী আপনার নূরে উজ্জ্বল হলো

শাফিউল উমাম সাইয়্যিদুনা হযরত শাহদামাদ আউওয়াল


শাফিউল উমাম সাইয়্যিদুনা হযরত শাহদামাদ আউওয়াল   তিনি রসূলী আওলাদ ইলাহীবাগের প্রস্ফুটিত ফুল, আহলে বাইতের সদস্য হয়ে ধরাকে দানেন নিয়ামত অতুল।   মর্যাদা উনার কত যে ঊর্ধ্বে তা কী উপলব্ধি করা যায়? ওলীগণই বুঝেন ওলীদের শান মাঝে তামাম কায়িনায়।   তাশরীফে

দোজাহানে হাবীবী শান


দোজাহানে হাবীবী শান     দোজাহানে হাবীবী শান মামদূহী হাবীব আহালী দান বেমেছাল ইজ্জত হুরমত শওকত ছল্লু আলা নূরী বাশারত।   ১৪ই যিলক্বদ মুবারক বিলাদত মামদূহী বাগে নূরী আলবৎ মুবারকবাদ শাফিউল উমাম নকশায়ে আপনি গাউছুল আ’যম।   রসূলী নাজ আউওয়াল শাহদামাদ

মারহাবা মারহাবা শাহী শাহদামাদ আউওয়াল ক্বিবলা!


মারহাবা মারহাবা শাহী শাহদামাদ আউওয়াল ক্বিবলা!   হায়দারী নাজ নিয়ে বাংলায় আসিলেন নূরী শাহদামাদ আউওয়াল, আসাসালাতু আস সালাম পড়ি গোলাম নিরালা॥ নক্বশায়ে আলী হায়দার করিলেন বাতিল চুরমার, দিয়ে অসীম প্রেরণা করেন মোদের উজালা॥ মুবারক মাহে যিলক্বদে রহি মোরা আহলাদে, ঈদের খুশি

সাইয়্যিদুনা হযরত শাহদামাদ আউওয়াল ক্বিবলা সবার আপন


সাইয়্যিদুনা হযরত শাহদামাদ আউওয়াল ক্বিবলা সবার আপন   আসমান যমীনে, সুরভী ছড়িয়ে, নূর মাখিয়ে, হায়দারী নকশায়ে, আপনার শুভ আগমন। নববী পরশে, খোদায়ী আরশে, চমক লাগিয়ে, সাইয়্যিদী আলয়ে, গ্রহেন শুভ আসন। মামদূহ ছোঁয়াতে, ছিলেন অজুদে, মুবারক পরশে, শুভ নিমন্ত্রণে, বিলাদতী আলোড়ন। কুফর

ক্ষমা করুন- শাহদামাদ আউওয়াল ক্বিবলাজী!


ক্ষমা করুন- শাহদামাদ আউওয়াল ক্বিবলাজী!   শাহদামাদ আউওয়াল ক্বিবলা আলাইহিস সালাম তিনি হন শাফিউল উমাম ॥ আপনি মোদের দিশা দানেন মামদূহ ক্বিবলা উনার ইশারায় ॥ আওলাদে রসূল শাফিউল উমাম হন নকশায়ে আলী হায়দার ॥ হায়দারী শানে খিলাফতী আনজাম দিচ্ছেন উম্মতের মাঝে