Archive for the ‘কবিতা’ Category

হে আক্বা শাহদামাদ আউওয়াল!


হে আক্বা শাহদামাদ আউওয়াল!   সত্য ও ন্যায়ের নূরী প্রতীক আদর্শের লড়াইয়ে সদা নির্ভীক হে আক্বা শাহদামাদ! আপনায় জানাই মুবারকবাদ। কাফির-মুশরিকের সব কষাঘাত শোর্যে-বীরত্বে করবেন নিপাত, হে আক্বা রসূলী আওলাদ! আপনায় জানাই মুবারকবাদ। জ্ঞান-বিজ্ঞান আপনার ক্বদম তলে বাহরুল ইলম আপনার মূলে

শাহদামাদ আউওয়াল ক্বিবলা


শাহদামাদ আউওয়াল ক্বিবলা   শাহদামাদ আউওয়াল ক্বিবলা মারহাবা মারহাবা! ক্বলবে ও জিগার মুর্শিদী রঙে রাঙা খিদমতে আহলে বাইত আগুয়ান আপনি রিযায়ে রসূল ও খোদায় ভরপুর বহ্নি ॥ মুরীদানেরা ধ্বনি তুলে আল্লাহ আল্লাহ! মুবারক হে শাহযাদী ঊলা ও শাহদামাদ ক্বিবলা ॥ চিনিলো

শাহদামাদ আউওয়াল হুসনে হাসিন


শাহদামাদ আউওয়াল হুসনে হাসিন   শাহদামাদ আউওয়াল সাইয়্যিদীবাগের বুরহানে হন আফরিদীন, শাহদামাদ আউওয়াল সাইয়্যিদীবাগের এক রহমতী আযীমিন। ইস্তিক্বামতে ক্বায়িম মুজাদ্দিদ মামদূহ উনার নিসবতে, জান ও জিসিম ওয়াক্ফ করেন শায়েখী নূরীতে। তামান্না তামাম লভিছেন ক্বিবলা কা’বা উনার রেযাতে। হলেন আক্বার ক্বায়িম-মক্বাম সাইয়্যিদী

জামিউল আলক্বাব সাইয়্যিদুনা হযরত শাফিউল উমাম আলাইহিস সালাম


জামিউল আলক্বাব সাইয়্যিদুনা হযরত শাফিউল উমাম আলাইহিস সালাম   আমি প্রদীপের আলো জ্বালিয়েছিলাম কিন্তু অবাক এক সূর্যের আলো সব ঝলমল করে দিলো আমি নক্ষত্রের দিকে তাকিয়েছিলাম কিন্তু অপূর্ব এক পূর্ণ উদিত চাঁদ চারদিক ঝিকিমিকি করে দিলো। আমি হামাগুড়ি দিয়ে হাঁটছিলাম কিন্তু

দোজাহানে হাবীবী শান


দোজাহানে হাবীবী শান   দোজাহানে হাবীবী শান মামদূহী হাবীব আহালী দান বেমেছাল ইজ্জত হুরমত শওকত ছল্লু আলা নূরী বাশারত। ১৪ই যিলক্বদ মুবারক বিলাদত মামদূহী বাগে নূরী আলবৎ মুবারকবাদ শাফিউল উমাম নকশায়ে আপনি গাউছুল আ’যম। রসূলী নাজ আউওয়াল শাহদামাদ আহালী চাদরের নূরী

নূরী শাহদামাদ


নূরী শাহদামাদ   শাহদামাদ আউওয়াল গ্রহেন মোদের ত্বলায়াল হায়দারী দীপ্ত রবি হন রহমতে কামাল। শাহী মীলাদ উনার মজলিস আজ নূরী বিলাদত দিবস মুর্শিদী নূরী জালওয়ায় আপনি হরদম উজাল। আযীমুশ শান বিলাদত গ্রহি মোরা নিয়ামত আউওয়ালে শাহদামাদ উনার ছোহবত ছোহবতে মামদূহ ও

উদিত ওই মহা রবি


উদিত ওই মহা রবি     শাফিউল উমাম আক্বা, ওয়ারাউল ওয়ারা আক্বা নকশায়ে হায়দার আক্বা, ইলাহী হাবীব আক্বা   উদিত ওই মহা রবি, চিরন্তন চিরজীবী আলে রসূলী আক্বা, মামদূহজীর প্রতিচ্ছবি।   মালিকায়ে ঊলাজীর আহাল ছূরতে/সীরতে কামালে কামাল মাদানী সাজে নববী আক্বা

বিলাদতে নূরী পয়গাম


বিলাদতে নূরী পয়গাম     আজাদ, আজাদ, আউওয়ালে শাহদামাদ, তাশরীফ ধ্বনি, জিন্দাবাদ।   চৌদ্দই যিলক্বদ, নূরী বিলাদত, আলবৎ শানদার, সাইয়্যিদী কানন খুশিতে বরণ মৌ মৌ-এ একাকার।   খোশ জান্নাতী আহলাদ, হে শাহদামাদ!   আজ সম্ভাষণ আর অভিবাদনের জোরালো জোয়ার বহে, পুরো

আজিকে শাদী বা নিসবাতুল আযীম দিবস!


আজিকে শাদী বা নিসবাতুল আযীম দিবস!     মহাসমারোহে, মহা আয়োজন! ব্যাকুল বিশ্ব, মহা আলোড়ন! ছুটাছুটি করে হুর গেলমান সজ্জিত সাত যমীন আসমান! অপরূপ সাজে কেন সাজে ধরা? ফুলে ফুলে আজ কেন ডালি ভরা? হাজার চাঁদে ভরেছে আকাশ, লক্ষ সিতারা হাসে,

জোড়া ফুলের বাহার


জোড়া ফুলের বাহার   যে বাগানের ফোটা ফুল আপনি, ধরাতে নেই যে আর, গেলে ছেঁড়ে কেবলি আসবে শুধু হাহাকার। ক্ষমা করুন হে শাহযাদী উলা! আরজু মোদের সবার, থাকেন যেন মোদের মাঝে, চাই জোড়া ফুলের বাহার, যে বাগানের ফোটা ফুল আপনি, রয়ে

শাহযাদী উলার মুবারক নিকাহ বা নিসবাতুল আযীম মুবারক


শাহযাদী উলার মুবারক নিকাহ বা নিসবাতুল আযীম মুবারক   শাহযাদী উলার নিকাহ মুবারকে খুশি করতেছে ধরার বুকে। ২২শে শাওওয়াল অনুষ্ঠিত হয় শাহযাদী উলার নিকাহ বা নিসবাতুল আযীম মুবারক হয়। খুশি করছে যমীন ও আসমান আরো করছে ফেরেশতা জাহান, শাহযাদী উলার শাদী

খুশিতে কাটাই মোরা দিন রজনী *************************


খুশিতে কাটাই মোরা দিন রজনী ******************************** হে মুজাদ্দিদে আযম , ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম! দেশ হতে দেশান্তরে, পৃথিবীর সব জুড়ে দিকে দিকে আপনার বিজয় ধ্বনি খুশিতে কাটাই মোরা দিন রজনী। আপনারই তাশরীফে বসুন্ধরায় বিদয়াত বেশরা সব চলে যায় কাওনাইনে আপনি মধ্যমণি