Archive for the ‘কৃষি’ Category

‘গোল্ডেন রাইস’ একটি বহুমুখী ষড়যন্ত্রের অংশ 


সম্প্রতি সরকারী কিছু আমলারা গোল্ডন রাইসের পক্ষে কথা বলছে। তারা না জেনে হোক অথবা লোভে পড়ে হোক যেভাবেই এটার পক্ষে কথা বলে না কেন, এটা মূলত একটি চক্রান্তের অংশ। গোল্ডেন রাইস উন্নয়নশীল দেশগুলোতে বহুজাতিক কোম্পানির এগ্রিবিজনেসের নতুন হাতিয়ার হিসেবেই কাজ করবে।

পানির জন্য ভারতের দরকার নেই, নদী ড্রেজিংয়েই পর্যাপ্ত পানির যোগান দেয়া সম্ভব


বাংলাদেশ নদীমাতৃক দেশ। প্রতিবছর শুষ্ক মৌসুমে ভারত কৃত্রিম বাঁধ সৃষ্টি করে আমাদের নদীগুলো বালুচরে পরিণত করছে। এর ফলে আমাদের ফসল-ফলাদী ব্যাপকভাবে খরায় আক্রান্ত হয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। আসলে পানির জন্য ভারতের দ্বারস্থ হওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই। আমাদের নদীগুলো ১০০-১৫০ হাত গভীর করা

স্টেরয়েড জাতীয় বড়ি ,ইনজেকশন দিয়ে নয় , প্রাকৃতিক পদ্ধতিতেই বাংলাদেশে পশু মোটাতাজাকরন করা হয় – ৪


কোরবানির ঈদের আগে গরু কিনতে গেলে মোটাতাজা গরু দেখলেই মনে করা হয় ইঞ্জেকশন দিয়ে মোটা করা গরু। কিন্তু এটা সম্পূর্ণ ভুল ধারণা। প্রাকৃতিক উপায়েই ৩-৪ মাসের মধ্যে গরু মোটাতাজাকরণ করা যায়। সর্তকতা– যে ব্যক্তি ঔষুধ লাগাবেন, তিনি গরুর শরীরের ক্ষতস্থান সম্পর্কে

স্টেরয়েড জাতীয় বড়ি ,ইনজেকশন দিয়ে নয় , প্রাকৃতিক পদ্ধতিতেই বাংলাদেশে পশু মোটাতাজাকরন করা হয় – ৩


কোরবানির ঈদের আগে গরু কিনতে গেলে মোটাতাজা গরু দেখলেই মনে করা হয় ইঞ্জেকশন দিয়ে মোটা করা গরু। কিন্তু এটা সম্পূর্ণ ভুল ধারণা। প্রাকৃতিক উপায়েই ৩-৪ মাসের মধ্যে গরু মোটাতাজাকরণ করা যায়। বিভিন্ন প্রকার খাবার খড়ের সাথে মিশিয়ে ইউরিয়া খাওয়ানোর নিয়মঃ ১০

স্টেরয়েড জাতীয় বড়ি ,ইনজেকশন দিয়ে নয় , প্রাকৃতিক পদ্ধতিতেই বাংলাদেশে পশু মোটাতাজাকরন করা হয় – ২


কোরবানির ঈদের আগে গরু কিনতে গেলে মোটাতাজা গরু দেখলেই মনে করা হয় ইঞ্জেকশন দিয়ে মোটা করা গরু। কিন্তু এটা সম্পূর্ণ ভুল ধারণা। প্রাকৃতিক উপায়েই ৩-৪ মাসের মধ্যে গরু মোটাতাজাকরণ করা যায়। গ. বাসস্থানের গঠনঃ গরুর বাসস্থান তৈরির জন্য খোলামেলা উঁচু জায়গায়

স্টেরয়েড জাতীয় বড়ি ,ইনজেকশন দিয়ে নয় , প্রাকৃতিক পদ্ধতিতেই বাংলাদেশে পশু মোটাতাজাকরন করা হয় – ১


কোরবানির ঈদের আগে গরু কিনতে গেলে মোটাতাজা গরু দেখলেই মনে করা হয় ইঞ্জেকশন দিয়ে মোটা করা গরু। কিন্তু এটা সম্পূর্ণ ভুল ধারণা। প্রাকৃতিক উপায়েই ৩-৪ মাসের মধ্যে গরু মোটাতাজাকরণ করা যায়। গরু মোটাতাজাকরণ বা বীফ ফ্যাটেনিং (Beef Fattening) বলতে এক বা

গরু মোটাতাজাকরণের প্রাকৃতিক পদ্ধতি


বাংলাদেশে  গোস্ত ছাড়া বিভিন্ন উৎসব পালন, চিন্তা করাই যেনো অমূলক।  কোরবানি উপলক্ষকে সামনে রেখে যারা গরু মোটাতাজাকরণে আগ্রহী তাদের আগে থেকেই প্রস্তুতি নেয়া দরকার। গরু মোটাতাজাকরণ বা বীফ ফ্যাটেনিং (Beef Fattening) বলতে এক বা একাধিক গরু বা বাড়ন্ত বাছুরকে একটি নির্দিষ্ট

গ্রোথ হরমোন ছাড়া গরু মোটাতাজাকরণ পদ্ধতি


কোনো গ্রোথ হরমোন ব্যবহার ছাড়াই যেভাবে গবাদিপশুর বেশি গোশত নিশ্চিত করা যায়, সে সম্পর্কে কিছু পদ্ধতি স্বল্প পরিসরে আলোকপাত করা হল:অধিক গোশত উৎপাদনের জন্য ২ থেকে ৩ বছর বয়সের শীর্ণকায় গরুকে একটি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে বিশেষ ব্যবস্থাপনায় খাদ্য সরবরাহ করে হূষ্টপুষ্ট

প্রাকৃতিক কোরবানীর জন্য গরু মোটাতাজাকরণ পদ্ধতি 


কিছুদিন পরেই আসছে মুসলমানদের দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আযহা তথা কুরবানীর ঈদ। সাধারণত বাংলাদেশে মানুষ কোরবানী করার জন্য গরুকেই বেছে নেই। আর সেটা যদি হয় মোটাতাজা তবে আনন্দের সীমা থাকে না। তাই কুরবানীকে সামনে রেখে যেসকল খামারী গরু মোটাতাজাকরণে আগ্রহী

বিটি বেগুন চাষের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করতে হবে: মনসান্তো-মাহিকোর বায়োসন্ত্রাস রুখতে হবে (১)


সিনজেন্টার পর এবার মনসান্তো-মাহিকোর বায়োসন্ত্রাসের কবলে বাংলাদেশ। এদেশের ঐতিহ্যবাহী শস্যবীজের দখল নিতে চায় এ বহুজাতিক কোম্পানি। এদেশের প্রাণ-পরিবেশ-প্রকৃতির উপর চাপিয়ে দেয়া হচ্ছে বায়োলজিক্যাল দূষণ। শুধু বিটি বেগুন নয়, সামনে আসবে বিটি তুলা, বিটি আলু। এদেশকে বানানো হচ্ছে বহুজাতিক এগ্রো কর্পোরেশনের মুনাফার

খেজুরের ৫৩টি উপকারিতা


জেনে নিন খেজুরের ৫৩টি উপকারিতা… (১) খাদ্যশক্তি থাকায় দুর্বলতা দূর হয় (২) স্নায়ুবিক শক্তি বৃদ্ধি করে (৩) রোজায় অনেকক্ষন খালি পেটে থাকা হয় বলে দেহের প্রচুর গ্লুকোজের দরকার হয় (৪) খেজুরে অনেক গ্লুকোজ থাকায় এ ঘাটতি পূরণ হয় (৫) হৃদরোগীদের জন্যও

একটি খেজুর গাছ —


দেশজুড়ে এখন চলছে ভরা শীত মৌসুম। এক সময় শীত মৌসুম বলতেই বোঝা যেত খেজুরের রস এবং রসের তৈরি নানা রকমের পিঠা ও পায়েসের আয়োজন। আর এসব পিঠা ও পায়েস খুবই মজাদার। আমার মনে হয় এমন কোন লোক নেই যে, খেজুরের রস