Archive for the ‘খবর’ Category

সুস্থ্য থাকতে হলে চাই খাদ্য সচেতনতা: কোমল পানীয় থেকে দূরে থাকুন, রোগ-ব্যাধি থেকে সুস্থ থাকুন


আমাদের দেশে যেকোন পার্টিতে, অনুষ্ঠানে কিংবা অতিথি আপ্যায়নে কোল্ড ড্রিংক্স, সফট ড্রিংক্স কিংবা এনার্জি ড্রিংক্স পরিবেশন করাটা হালের ফ্যাশন হয়ে দাঁড়িয়েছে। এমনকি ঘরের অতি আদরের সন্তানদেরও অনেকে অতি উৎসাহে এসব ড্রিংক্স পান করায়। কিন্তু এসব পানীয়ের মধ্যে যে কি পরিমাণ এ্যালকোহল

বাল্যবিবাহ বিরোধীদের উচিত ক্লিনিকগুলোর গর্ভপাতের বিষয়ে নিয়ে নজর দেয়া


যারা বাল্যবিবাহ নিয়ে ও বিয়ের বয়স নিয়ে কথা বলে তাদের উচিত- আগে বাংলাদেশের যত হাসপাতাল, ক্লিনিক আছে সেখানে জরিপ করা। কেননা যেখানে যথাসময়ে ও উপযুক্ত বয়সে বিয়ে না দেয়ায় অনৈতিক সম্পর্কে জড়িয়ে, শেষে গর্ভপাত ঘটায় মেয়েরা। বাল্যবিবাহ বিরোধীদের উচিত সেখানে গিয়ে

বাংলাদেশের খনিজ তেলও ভারতের হাতে


সরকারি অর্থ ব্যয় করে প্রকল্প গ্রহণ করে জ্বালানি তেল অনুসন্ধান কাজ শেষে তেল উত্তোলন শুরু হয়েছিল ১৯৮৯ সালে। দীর্ঘ সময় অতিক্রান্ত হবার পর রহস্যজনক কারণে তা কৌশলে তুলে দেয়া হয়েছে পার্শ্ববর্তী দেশের হাতে। আমাদের দেশের মূল খনিমুখ চিরতরে বন্ধ করে দেবার

বাংলার আকাশে বহুজাতিক শকুনের ছায়া। প্রসঙ্গ: গোল্ডেন রাইস


গোল্ডেন রাইস কী? বাংলাদেশে বহুজাতিক এগ্রো কর্পোরেশনের বীজ রাজনীতির নতুন সংযোজন জেনেটিক্যালী মডিফাইড (জিএম) ধান গোল্ডেন রাইস। গোল্ডেন রাইস প্রকল্পের সাথে জড়িত মূলত আন্তর্জাতিক ধান গবেষণা ইন্সটিটিউ (ওজজও), বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইন্সটিটিউট, ব্রি (ইজজও) এবং মার্কিন সংস্থা বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস

কে বেশি শক্তিশালী: সরকার নাকি সিন্ডিকেট?


সরকার নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্যের আমদানি শুল্ক হ্রাস করলেও খাদ্যদ্রব্যের মূল্য কমেছে এমন নজির বাংলাদেশে নেই। বাংলাদেশে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির কারণ জানতে, একটি বিশেষ গবেষণার জরিপে উল্লেখ করা হয়েছে যে, বাংলাদেশে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির মূল কারণ সিন্ডিকেট ও মূল্য নিয়ন্ত্রণে সরকারের ব্যর্থতা এবং রাজনীতিবিদদের দুর্নীতি।

বিকেন্দ্রীকরণই একমাত্র সমাধান 


ঢাকায় চাকার গতি ১০ বছর আগে ছিল ঘণ্টায় ২১ কিলোমিটার, আর বর্তমানে তা প্রায় ৪ কিলোমিটারে নেমে আসছে। মানুষের হাঁটার গতির মান ঘণ্টায় গড়ে পাঁচ কিলোমিটারের মতো। এর মানে কী? গাড়িগুলো কি হেঁটে যাচ্ছে। ‘ঘোড়ায় চড়িয়া মর্দ হাঁটিয়া চলিল’ দশাই কি

ভারতের মলমিশ্রিত নোংরা পানি ঢুকছে বাংলাদেশে, দুর্গন্ধে পরিবেশ বিপর্যয়


  ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের রাজধানী আগরতলা থেকে সুয়ারেজের নোংরা পানি বাংলাদেশের প্রবেশ করছে। এতে শুধু সুয়ারেজ লাইনের পানি নয়, আছে আগরতলার ইন্দিরা গান্ধী মেমোরিয়াল হাসপাতাল, ডাইং কারখানা, চামড়া কারখানা ও মেলামাইন কারখানার বিষাক্ত দুর্গন্ধযুক্ত বর্জ্য। যে খালের মাধ্যমে এই দুষিত পানি

প্রসঙ্গ: সীমান্তে সন্ত্রাসী বিএসএফ কর্তৃক বাংলাদেশী হত্যা 


ভারতের সীমান্ত বাহিনী হানাদার বিএসএফ বাংলাদেশ সীমান্তে অনেক দিন ধরে বাংলাদেশীদের উপর গুলি চালিয়ে আসছে; যাতে নিহত হয়েছেন বহু বাংলাদেশী। এমন কোনো দিন নেই যেদিন হানাদার বিএসএফ সীমান্তে বাংলাদেশীদের উপর নির্যাতন চালায় না। কিন্তু কি সরকার, কি জনগণ কেউ-ই প্রতিবাদ জানায়

উন্নয়নের কথা বলে পবিত্র মসজিদগুলো ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে! নাউযুবিল্লাহ!


পবিত্র মসজিদ হচ্ছে মহান আল্লাহ পাক উনার ঘর। সম্মানিত মুসলমানগণের ইবাদত- বন্দেগীর স্থান। বাংলাদেশ ৯৮ ভাগ মুসলমানের দেশ। সঙ্গতকারণে অতিব প্রয়োজনে বিভিন্ন স্থানে গড়ে উঠেছে পবিত্র মসজিদসমূহ। প্রতিটি এলাকার মুসল্লিগণের অর্থে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে এসব পবিত্র মসজিদ। অথচ নানা অজুহাত দাঁড় করিয়ে

এসব অপকর্ম চললে তাহলেতো চারুকলা ইন্সটিটিউট বন্ধ করে দেয়া উচিত


চারুকলা ইন্সটিটিউট। ৯৮ ভাগ মুসলিম অধ্যুষিত দেশের মুসলমানের টাকায় পরিচালিত এ প্রতিষ্ঠানের মূল কাজ কি? মূল কাজ হলো- বাঙালি মুসলমানদের তাহযীব-তমাদ্দুন (মুসলিম সংস্কৃতি) তুলে ধরা। কিন্তু বাস্তব প্রেক্ষাপটে আমরা কী দেখতে পাই? চারুকলায় এবার মহাধূমধামে আয়োজিত হয়েছে হোলি পূজা। আয়োজকদের ভাষায়-

প্রথম আলোর কাঁধ থেকে শয়তান কি কখনো নামবে না?


সুযোগ পেলেই ইসলাম বিদ্বেষী পরিচয়টা দিতে ভুল করেনা। দূর পরবাস =>আমেরিকা সেকশনে “বান্ধবী বনাম বউ ” প্রবন্ধে পবিত্র হাদীছ শরীফ নিয়ে কটাক্ষ করে। মূল লিংকঃhttp://archive.is/qMNA8 পরবর্তীতে অনেক পাঠকের প্রতিবাদে তা ফেসবুক থেকে ডিলিট করে দেয় এবং মূল লিংক থেকে এডিট করে

চাকরিক্ষেত্রে ভারতীয়; এ কেমন দেশপ্রেম? 


এটা এখন ওপেন সিক্রেট খবর যে, বাংলাদেশে নামে-বেনামে, বৈধ-অবৈধভাবে লাখ লাখ ভারতীয় অবস্থান করছে। তারা বিভিন্নভাবে নিজেদের দেশে প্রায় হাজার হাজার মিলিয়ন ডলার আমাদের দেশ থেকে পাচার করছে। ভারতের রেমিট্যান্স উৎসের শীর্ষ পাঁচে রয়েছে বাংলাদেশ। এই সংখ্যা শুধু সরকারি হিসাবে। কিন্তু