Archive for the ‘জানতে চাই’ Category

সুন্নাত নামাজ কি কাজা পরা যায়?


সুন্নাত নামাজ কি কাজা পরা যায়?

www.markajomar.com/?p=963 / www.markajomar.com/?p=1044 / http://www.markajomar.com/?p=493 \ / ওহাবী সালাফীদের এই পোষ্টগুলোর খন্ডন মূলক জবাব:-(৪)


এছাড়াও ফকীহুল উম্মত হয়রত আব্দুল্লাহ ইবনে মাসউদ রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনার থেকে বর্ণিত হাদিস শরীফ উনার মধ্যে সুস্পষ্টভাবে বর্ণিত রয়েছে যে মহান আল্লাহপাক উনার হাবিব হুজুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে মাটি মুবারক দ্বারা সৃষ্টি করা হয়েছে।সম্মানিত হাদিস শরীফ খানা

হাদিস শরিফে জুমার দিনকে “ঈদের দিন” নামে নামকরণ করা হয়েছে কেন? http://www.markajomar.com/?p=854 ওহাবী সালাফীদের এই পোষ্টের খন্ডনমূলক জবাব:-(১১)


প্রশ্ন:-১২ই রবীউল আউয়াল শরীফ কিভাবে সবচেয়ে বড় খুশির দিন বা ঈদের দিন বা সাইয়্যিদুল আইয়াদ শরীফ হয় ? এর জবাবে বলতে হচ্ছে, হাদিস শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে-عن حضرت ابى لبابة بن عبد المنذر قال قال النبي صلى الله عليه

সুন্নত মোবারক


সুন্নত মোবারক


সুন্নত মোবারক


সুন্নত মোবারক


www.markajomar.com/?p=963 / www.markajomar.com/?p=1044 / http://www.markajomar.com/?p=493 \ / ওহাবী সালাফীদের এই পোষ্টগুলোর খন্ডন মূলক জবাব:-(৩)


(১২)وَلَقَدْ خَلَقْنَا الْإِنسَانَ مِن صَلْصَالٍ مِّنْ حَمَإٍ مَّسْنُونٍ ﴿٢٦﴾ আমি মানুষকে পচাঁ কাদা থেকে তৈরী শুকনো ঠন ঠনে মাটি দ্বারা সৃষ্টি করেছি।(সুরায়ে হিজর শরীফ,পবিএ আয়াত শরীফ নং-২৬) এই আয়াত শরীফ উনার তাফসীরে, আল্লামা ইমাম কুরতবী রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার “তাফসীরে কুরতবী”-এর ৫ম

হাদিস শরিফে জুমার দিনকে “ঈদের দিন” নামে নামকরণ করা হয়েছে কেন? http://www.markajomar.com/?p=854 ওহাবী সালাফীদের এই পোষ্টের খন্ডনমূলক জবাব:-(১০)


অনুরুপভাবে বলতে হয় সাইয়্যিদুল আইয়াদ শরীফ সবচেয়ে বড় ঈদ হওয়ার কারনে জ্বীন-ইনসানের জামায়াত ও ক্বিরাত উনার সাথে স্বয়ং মহান আল্লাহপাক তিনি ও হযরত ফেরেশতা আলাইহিমুস সালাম উনাদের জামায়াত সহ ক্বিরাতে হাবীবি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বা মহান আল্লাহপাক উনার হাবিব হুজুর

হাদিস শরিফে জুমার দিনকে “ঈদের দিন” নামে নামকরণ করা হয়েছে কেন? http://www.markajomar.com/?p=854 ওহাবী সালাফীদের এই পোষ্টের খন্ডনমূলক জবাব:-(৯)


প্রশ্ন:- দুঈদ ও জুমুয়ার দিন ঈদ হওয়ার কারনে খুতবা, বড় জামায়াত, ক্বিরাত সব রয়েছে কিন্তু ১২ই রবীউল আউয়াল শরীফ যদি ঈদের দিন হত তবে খুতবা, বড় জামায়াত, ক্বিরাত নেই কেন? জবাবে বলতে হচ্ছে আসলে যারা কুফরীর মধ্যে নিমজ্জিত থাকে তাদের উপর

www.markajomar.com/?p=963 / www.markajomar.com/?p=1044 / http://www.markajomar.com/?p=493 \ / ওহাবী সালাফীদের এই পোষ্টগুলোর খন্ডন মূলক জবাব:-(২)


প্রশ্ন:-পবিত্র কুরআন শরীফ উনার সূরা ত্বহার আয়াত শরীফ নং ৫৫ ও ফকীহুল উম্মত হয়রত আব্দুল্লাহ ইবনে মাসউদ রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনার থেকে বর্ণিত হাদিস শরীফ উনার মাধ্যমে দিয়ে প্রমাণিত হয় যে, মহান আল্লাহপাক উনার হাবিব হুজুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম

হাদিস শরিফে জুমার দিনকে “ঈদের দিন” নামে নামকরণ করা হয়েছে কেন? http://www.markajomar.com/?p=854 ওহাবী সালাফীদের এই পোষ্টের খন্ডনমূলক জবাব:-(৮)


কেননা উক্ত আয়াত শরীফ-এ فَلْيَفْرَحُواْ অর্থাৎ “তারা যেনো খুশি প্রকাশ করে” আদেশসূচক বাক্য ব্যবহৃত হয়েছে। আর আদেশসূচক বাক্য দ্বারা যে ফরয সাব্যস্ত হয়। এটা ঊছুলে ফিক্বাহর সমস্ত কিতাবেই উল্লেখ আছে যে, الامر للوجوب অর্থাৎ আদেশসূচক বাক্য দ্বারা সাধারণত ফরয-ওয়াজিব সাব্যস্ত হয়ে