Archive for the ‘জানা-অজানা’ Category

জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ১১ দফা দাবিতে- আওয়ামী ওলামা লীগসহ সমমনা ১৩ ইসলামী দলের বিশাল মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত


(১). মীর কাসেমসহ কুখ্যাত যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী সরকারকে দেশ ও জাতীর পক্ষ থেকে তথা দ্বীনপ্রাণ মুসলমান ও আলিম উলামাদের পক্ষ থেকে আন্তরিক মোবারকবাদ। বাংলার ইহুদী রাজাকার সাঈদীরও ফাঁসির ব্যবস্থা করতে হবে। (২). বশহীদ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

বহুজাতিক কোম্পানির সঙ্গে জিএম শস্য নিয়ে সম্পাদিত চুক্তি বাতিল করুন (১)


বহুজাতিক কোম্পানির সঙ্গে জিএম শস্য নিয়ে সম্পাদিত চুক্তি বাতিল করুন (১)   বীজ নিয়ে বহুজাতিক কোম্পানির যে রাজনীতি তার নিষ্করুণ শিকার হচ্ছে বাংলাদেশের কৃষি ও প্রাণবৈচিত্র্য! ব্যাসিলাস থুরিনজেনসিস (বিটি) বেগুন চাষের অনুমোদন দেয়ার পর এবার জেনেটিক্যালি মডিফাইড (জিএম) আলুর ফিল্ড ট্রায়াল

নির্দিষ্ট স্থানে পশু কুরবানী,ইমাম ও কসাই নির্দিষ্টকরন করে কুরবানী করা সম্পুর্নরুপে বাস্তবতাবিবর্জত এবং অসম্ভব একটি বিষয়।


সরকার পশু জবাই এর স্থান, ইমাম ও কসাই নির্ধারন করে দিয়ে বলেছে এসকল স্পটে কুরবানী করার জন্য। সরকারের পক্ষ থেকে এমন সিদ্ধান্ত মুসলমানগন উনাদের উপর চাপিয়ে দেওয়ার ব্যার্থ চেষ্টা করছে। সরকার সেসকল তথ্য উপাথ্য এবং হিসেবে দিয়েছে তা বাস্তবায়ন করা অবাস্তব

রাজধানীতে এবার ২৩টি পশুর হাট বসবে : প্রস্তুতি সম্পন্ন , রাজস্ব আয় বাড়ছে


রাজধানীতে এবার ২৩টি পশুর হাট বসবে : প্রস্তুতি সম্পন্ন , রাজস্ব আয় বাড়ছে     সাড়ে ৩ লাখ পশু কুরবানীর টার্গেট করে দুই সিটি কর্পোরেশন (ডিসিসি) এলাকায় এবার রাজধানী ঢাকায় ২৩টি পশুর হাঁ বসানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। গত বছরের চেয়ে এবার

##রবী ঠাকুরের সম্প্রদায়ভুক্ত পরিচয়


ঢাকা কলেজের বাংলার শিক্ষক সোহেল হাসান গালিব তার এক প্রবন্ধে মজহার সাহেবের রবী ঠাকুরের সম্প্রদায়ভুক্ত পরিচয়ের মুল্যায়নে বলেন; “এ কথার সমর্থন রবীন্দ্রনাথের জবানেও মিলবে : […] আমি নিজের গৃহ নির্মাণ করিতেছি বলিয়া কি সকলে বলিবে, আমি হৃদয়ের সংকীর্ণতাবশত পরের সহিত স্বতন্ত্র

# পঁচাত্তরের ১৫ অগাস্ট। ভোররাত।——-সেই রাতে যা ঘটেছিল


# ===••••======= “আমি প্রেসিডেন্ট শেখ মুজিব বলছি …”। “তোরা কী চাস? কোথায় নিয়ে যাবি আমাকে?” বঙ্গবন্ধু তার কথা শেষ করতে পারেননি। বাংলাদেশের ইতিহাসের পাতা থেকে কলঙ্কিত সেই রাতের কথা সংকলিত করেছেন সুমন মাহবুব। পঁচাত্তরের ১৫ অগাস্ট। ভোররাত। ধানমণ্ডির বাড়িটি আক্রান্ত হওয়ার

## ইংরেজ শোষণের প্রাথমিক পর্যায়– ২য় পর্ব।


শোষণের চিরস্থায়ীকরণ এক দিকে লুণ্ঠন অন্যদিকে দুর্ভিক্ষ।একদিকে না খেয়ে মানুষ মারা যাচ্ছে অন্যদিকে একশ্রেণীর বাঙালী বৃটিশের দালালী করে ‘আঙুল ফুলে কলাগাছ’ হয়ে গেছে।কিন্তু সেই টাকা খরচ করার জায়গা পাচ্ছিলনা। ১৭৯৩ সালের ৬ই মার্চ লর্ড কর্ণওয়ালিস ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির লন্ডনস্থ ডিরেক্টরদের কাছে

## ইংরেজ শোষণের প্রাথমিক পর্যায়-১ম পর্ব।


  পলাশীর পরবর্তী মানুষের অবর্ণনীয় যাতনার কথা লিখিত আছে বিভিন্ন কবিদের কবিতায়, পুঁথিতে। যেহেতু সেসময় রাষ্ট্রীয় ও মুসলমানদের সাহিত্যিক ভাষা ছিল ফার্সি, সেসব শোকগাথা নিয়ে রচিত অধিকাংশ রচনাই ফার্সি বা উর্দুতে। উর্দুতে এমন একটি কবিতার ধারার নাম ছিল SHAHR-ASHOB (Lament for

##জমিদারি শোষণের স্মৃতি ও চিরস্থায়ী যন্ত্রণার বন্দোবস্ত


  গোঁড়ার কথা “ইংরেজ আমলের গোড়ার দিকে, আঠার শতকের মধ্যে কলকাতা শহরে যে সমস্ত কৃতি ব্যক্তি তাদের পরিবারের আভিজাত্যের ভিত প্রতিষ্ঠা করেছিলেন, তারা অধিকাংশই তার রসদ (টাকা) সংগ্রহ করেছিলেন বড় বড় ইংরেজ রাজপুরুষ ও ব্যবসায়ীদের দেওয়ানি করে।এক পুরুষের দেওয়ানি করে তারা

মুসলমানদের মধ্যে বিভক্তির কারণ নিয়ে যারা প্রশ্ন তোলে তারা ইতিহাস জ্ঞানশূন্য


সমাজে নামধারী অনেক মুসলমান আছে, যারা ইসলাম সম্পর্কে তো কিছু জানেই না, ইতিহাস সম্পর্কেও ধারণা নেই। এ শ্রেণীর লোকগুলো সাধরণত দুনিয়াদার (টাকার মোহে অন্ধ) হয়ে থাকে। ইতিহাস ও ইসলামী শিক্ষায় অজ্ঞতার কারণে মুসলমানদের মধ্যে বিভক্তি নিয়ে এরা প্রায় সময়ই এমন কথা

পানির অপর নাম জীবন পানির আছে শত গুণ


মানুষের শরীরের ৬০ ভাগই পানি। যদি কোনো কারণে এই পানির ভারসাম্য মানব দেহে নষ্ট হয়ে যায়, তবে মানুষ মারা যাবে। পানি মানুষের জন্য এতটাই প্রয়োজনীয় পদার্থ যে, পানির অপর নাম হয়েছে জীবন। পৃথিবী ৩/৪ অংশ পানি। এরপরও বড় বড় মরুভূমিগুলিতে পানির

সমস্ত মুসলিমা নারীদের জন্য উম্মুল উমাম আম্মাজী ক্বিবলা আলাইহাস সালাম উনার মোবারক ছোহবত ইখতিয়ার করা অত্যবাশ্যক।


মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, হে ঈমানদারগণ! তোমরা মহান আল্লাহ পাক উনার নৈকট্য লাভ করার জন্য উসীলা তালাশ কর। (পবিত্র সূরা মায়িদা শরীফ : পবিত্র আয়াত শরীফ ৩৫) এই পবিত্র আয়াত শরীফ উনার ব্যাখ্যায়