Archive for the ‘বিভাগবিহীন’ Category

রংপুরের ঘটনা এবং সরকারের পতন


রংপুরের ঘটনা দেশের মধ্যে অরাজকতা সৃষ্টির জন্য হয়েছে। সরকার ভাবছে- এই সব সাম্প্রদায়িক ঘটনার মাধ্যমে সরকারের পতন ঘটানো হবে। কিছুদিন আগে, মোসাদ এজেন্ট শিপন কুমার বসু স্ট্যাটাস দিয়েছিলো- নভেম্বরের মধ্যে সরকারের পতন ঘটানো হবে (http://bit.ly/2xGb8fb)। তাহলে রংপুরের ঘটনা ঘটায় যেসব হিন্দু

সুমহান বরকতময় পবিত্র আখিরী চাহার শোম্বাহ শরীফ


‘আখিরী চাহার শোম্বাহ’ উনার অর্থ হলো শেষ আরবিয়া বা বুধবার। অর্থাৎ পবিত্র ছফর শরীফ মাস উনার শেষ আরবিয়া বা বুধবারকেই বলা হয় “আখিরী চাহার শোম্বাহ” শরীফ। এ দিনটি হচ্ছে সকল মুসলমান পুরুষ-মহিলা উনাদের জন্য মহা খুশির দিন। কারণ যিনি নবী আলাইহিমুস

সম্মানিত ছফর মাস উনাকে অশুভ বা কুলক্ষণে মনে করা কুফরী


আইয়ামে জাহিলিয়াত বা অন্ধকার যুগে সম্মানিত ছফর শরীফ মাস উনাকে অশুভ বা কুলক্ষণে মনে করা হতো। অদ্যবধি কিছু মানুষের মাঝে এই বদধারণার প্রচলন আছে। অথচ নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি তাদের এই ভ্রান্ত ধারণা, আক্বীদা বিশ্বাসের

কুল-কায়িনাতের সর্বশ্রেষ্ঠ ঈদ পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উনাকে মানুষ ভুলে গেলো কী করে?


আমরা ছোটবেলায় দেখেছি অনেক উৎসাহ-উদ্দীপনার সাথে মুসলমানগণ উনাদের শ্রেষ্ঠ ঈদ, পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম অর্থাৎ পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালিত হতো। স্কুল, কলেজে পবিত্র মীলাদ মাহফিলের জন্য বার্ষিক হাদিয়া নেয়া হতো এবং অনেক উৎসবমুখর পরিবেশে দিনটি পালন

“সখী বা দানশীল হচ্ছে ‘হাবীবুল্লাহ’ অর্থাৎ মহান আল্লাহ পাক উনার বন্ধু।”


নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “সখী বা দানশীল হচ্ছে ‘হাবীবুল্লাহ’ অর্থাৎ মহান আল্লাহ পাক উনার বন্ধু।” সাইয়্যিদে ঈদে আ’যম, সাইয়্যিদে ঈদে আকবর পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম অর্থাৎ পবিত্র সাইয়্যিদুল

বনী ইসরাঈলের ২০০ বছরের গুনাহগার বান্দা জান্নাতী ………….


বনী ইসরাঈলের ২০০ বছরের গুনাহগার বান্দা যদি হযরত নবী করীম ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম নাম মুবারক মুহব্বত করে জান্নাতী হতে পারে, তাহলে আমরা উম্মতরা নবীজী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার আগমন উপলক্ষে খুুশি প্রকাশ করলে কি নিয়ামত পাবো সেটা হিসাব করুন।

মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম উনার দোয়ার প্রতিফলন স্বরূপ মুসলমানদেরকে জুলুম নির্যাতনকারী কাফিরদের উপরে খোদায়ী গজব ভারতের রাজস্থানে মেয়েদের প্রধান পেশা অনৈতিক কাজ; পরিবারের পুরুষরা তাদের দালাল!


ভারতে বসবাসরত মুসলিম নারীরা যালিম ও সন্ত্রাসী মুশরিকদের দ্বারা যেভাবে নির্যাতনের শিকার হয়েছে ও হচ্ছে, তা পৃথিবীর ইতিহাসে বিরল। যার ফলে খোদায়ী গযবে তারা নিজেরাই বর্তমানে কঠিনভাবে পর্যুদস্ত। ভারতের রাজধানী দিল্লি থেকে রাজস্থানের একটি গ্রামের দূরত্ব ২০০ কিলোমিটার। কিন্তু অবস্থানগত দূরত্ব

পবিত্র ছফর শরীফ মাস অশুভ নয় এবং কুলক্ষণের প্রতীক নয়


পবিত্র ছফর শরীফ মাস মহান আল্লাহ পাক উনার মনোনীত খাছ মাস। এ মাস অশুভ ও কুলক্ষণে নয়। কাফির-মুশরিকরা এ মাসকে অশুভ ও কুলক্ষণের প্রতীক মনে করে থাকে। আইয়ামে জাহিলিয়াতের যুগে ‘পবিত্র ছফর শরীফ’ মাসকে কাফির-মুশরিকরা অশুভ ও কুলক্ষণে মনে করতো। এ

প্রত্যেক মুসলমান উনাদের জন্য ফরয হচ্ছে- কাফির-মুশরিকদের সর্বপ্রকার ষড়যন্ত্রের ব্যাপারে সজাগ ও সতর্ক থাকা এবং সম্মানিত শরয়ী পর্দা উনার প্রতি গুরুত্ব দেয়া। অর্থাৎ খাছ শরয়ী পর্দা পালন করা।


হিজাব বা পর্দা স্বয়ং মহান আল্লাহ পাক তিনি এবং উনার রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনারাই ফরয করেছেন। যেমন, পবিত্র কুরআন শরীফ উনার “পবিত্র সূরা নিসা শরীফ, পবিত্র সূরা নূর শরীফ ও পবিত্র সূরা আহযাব শরীফ”

সুমহান ২৮ ছফর শরীফ: পবিত্র নকশবন্দিয়ায়ে মুজাদ্দেদিয়া তরীক্বা উনার ইমাম হযরত মুজাদ্দিদে আলফে ছানী রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার পবিত্র বিছালী শান মুবারক প্রকাশ দিবস


মহান আল্লাহ পাক উনার খালিছ ওলী দ্বিতীয় সহস্রাব্দের (একাদশ হিজরী শতকের) মহান মুজাদ্দিদ, আফদ্বালুল আউলিয়া, কাইয়্যুমে আউওয়াল শাহ ছূফী শায়েখ আহমদ ফারূক্বী হযরত মুজাদ্দিদে আলফে ছানী সিরহিন্দী হানাফী রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি। তিনি ১০৩৪ হিজরী সনের ২৮ পবিত্র ছফর শরীফ মাসে প্রায়

সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সাথে আহলু বাইতি রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, মুজাদ্দিদে আ’যম মামদূহ মুর্শিদ ক্বিবলা সাইয়্যিদুনা ইমাম খলীফাতুল্লাহ হযরত আস সাফফাহ আলাইহিছ ছলাতু ওয়াস সালাম উনার বেমেছাল সম্মানিত তা‘য়াল্লুক-নিসবত মুবারক


মহাসম্মানিত হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদের সম্মানিত শান মুবারক-এ আখাচ্ছুল খাছ বিশেষ তিনখানা সম্মানিত ও পবিত্র হাদীছ শরীফ, যেই সম্মানিত ও পবিত্র হাদীছ শরীফগুলো মুজাদ্দিদে আ’যম মামদূহ মুর্শিদ ক্বিবলা সাইয়্যিদুনা ইমাম খলীফাতুল্লাহ হযরত আস সাফফাহ আলাইহিছ ছলাতু ওয়াস সালাম

পবিত্র মীলাদ শরীফ বা পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পক্ষে রচিত


শাইখুল ইসলাম, মুফতীয়ে আ’যমে মক্কা মুকাররামাহ, ইমাম ইবনে হাজার হাইতামী মক্কী শাফিয়ী ক্বাদিরী রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার লিখিত বিশ্ববিখ্যাত, বিশ্ব সমাদৃত, সর্বজন স্বীকৃত ও গ্রহণযোগ্য কিতাব- النعمة الكبرى على العالـم فى مولد سيد ولد ادم صلى الله عليه وسلم আন নি’মাতুল কুবরা