Archive for the ‘বিভাগবিহীন’ Category

একজন মুসলমান উনার কেমন হওয়া উচিত?


যিনি মহান আল্লাহ পাক উনার উপর পরিপূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাস স্থাপন করেছেন, আখিরী নবী, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার উপর ঈমান এনেছেন, উনাকে সম্মানিত নবী ও রসূল হিসেবে এবং একমাত্র আদর্শ হিসেবে মেনে নিয়েছেন, সর্বোপরি আহলে

অন্যান্য দেশে উড়াল সেতু ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে; আর বাংলাদেশ সরকার ফ্লাইওভার তৈরি করছে


ইন্টারনেটের বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, চীন, ফ্রান্স, ইতালী, জাপানসহ অন্যান্য দেশে উড়াল সেতু (ফ্লাইওভার) ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে। এর কারণ উল্লেখ করা হয়, উড়াল সেতু থেকে নেমে আবার কঠিন যানজটের সম্মুখীন হয়। যেমন পাঁচ মিনিটের রাস্তা এক মিনিটে এসে উড়াল সেতু থেকে

যানজট নিরসনে ঢাকা শহর সম্প্রসারণের ও বিকেন্দ্রীকরনের বিকল্প নেই


চলতি কয়েক বছরে পুরো ঢাকা শহর যানজট নিরসনের নামে ফ্লাইওভার তথা উড়াল সেতুতে ছেঁয়ে যাচ্ছে। জনগণের এই মিলিয়ন মিলিয়ন কোটি টাকা ব্যয় করে উড়াল সেতু নির্মাণ করে লাভটা হচ্ছে কি? উড়াল সেতু থেকে নামা মাত্রই আবার কঠিন যানজটের সম্মুখীন হতে হচ্ছে।

প্রখ্যাত ইতিহাসবিদদের দৃষ্টিতে পবিত্র হারামাইন শরীফে সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালনের ইতিহাস


বাতিল ফিরকার লোকেরা বলে থাকে, পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ এই সেদিন থেকে প্রচলিত হয়েছে! নাউযুবিল্লাহ! হারামাইন শরীফে এ দিবস পালন হতনা! নাউযুবিল্লাহ! অথচ ইতিহাস সাক্ষী সম্মানিত ইসলাম উনার শুরু থেকেই হারামাইন শরীফে পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালন হতো। নিম্নে কয়েকজন প্রখ্যাত

বাল্যবিবাহ মুক্ত জেলা উপজেলা ঘোষণা করার অন্তরালে আসল রহস্য কি?


ইদানীং পত্র-পত্রিকা-মিডিয়াতে একটি সংবাদ খুব হাইলাইট করে প্রচার করা হয়। সেটা হলো- আজ অমুক জেলা, কাল অমুক উপজেলা কিংবা ইউনিয়নকে বাল্যবিবাহ মুক্ত হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। অর্থাৎ দ্বীন ইসলাম বিষয়ে জাহিল প্রশাসন এবং বিদেশী বিজাতি এনজিও গং খুব তৎপরতার সাথে জেলা,

যদি গোবর-গোচনা থেকে বিরত থাকতে চান, তাহলে বিধর্মীদের হোটেলে খাওয়া-দাওয়া থেকে বিরত থাকুন


মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, “নিশ্চয়ই মুশরিকরা (পূজারী) নাপাক”। নাপাক মুশরিক মূর্তিপূজারীদের জাতিগত অভ্যাস ধর্মের পবিত্রতার নামে খাবার জাতীয় মিষ্টি, জিলাপী, দই, রসগোল্লা ইত্যাদিতে গোবর-গোচনা ছিটানো যা আমি প্রত্যক্ষদর্শী। নাপাক হিন্দুরা গরুকে তাদের মা

মুসলমানদেরকে সম্মানিত দ্বীন ইসলাম উনার উপর আরো বেশি দৃঢ়ভাবে অটল থাকতে হবে


পৃথিবীর তাবৎ বিধর্মী-বিজাতিদেরকে কখনোই দেখা যায় না- তাদের মনগড়া বাতিল ধর্মের নিয়মনীতির সাথে সাথে সম্মানিত দ্বীন ইসলাম উনার নিয়মনীতি গ্রহণ করতে। তারা সর্বাবস্থায় মুসলমানদের খিলাফ আমল করতে পারলেই নিজেদেরকে বিরাট কিছু মনে করে থাকে। অথচ বিপরীত দিকে দেখা যায়, সম্মানিত দ্বীন

মুসলমানরা ঈমান রক্ষার্থে বিধর্মীদের উৎসব পরিত্যাগ করুন


পবিত্র কালাম পাক উনার মধ্যে মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেছেন- “যে কেউ সম্মানিত দ্বীন ইসলাম উনার নিয়মনীতি তর্জ-তরীক্বা পরিত্যাগ করে অন্য কোনো ধর্ম-নিয়মনীতি অনুসরণ-অনুকরণ করে কিংবা সম্মান করে, তাহলে তা কখনোই তার থেকে কবুল করা হবে না। বরং পরকালে

সাইয়্যিদুল আম্বিয়া ওয়াল মুরসালীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পবিত্র আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনার মুহব্বতকারীগণ জান্নাতী এবং বিদ্বেষকারীরা জাহান্নামী


কুল-মাখলুক্বাতের নবী ও রসূল, সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খাতামুন নাবিইয়ীন, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পবিত্রতম, সম্মানিত, নূরানী আহাল-ইয়াল, পরিবার-পরিজন উনারাই হচ্ছেন ‘আহলু বাইত’ উনাদের অন্তর্ভুক্ত। হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদের প্রথম সারির অন্তর্ভুক্ত

সাইয়্যিদুল আম্বিয়া ওয়াল মুরসালীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পবিত্র আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনার মুহব্বতকারীগণ জান্নাতী এবং বিদ্বেষকারীরা জাহান্নামী


কুল-মাখলুক্বাতের নবী ও রসূল, সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খাতামুন নাবিইয়ীন, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পবিত্রতম, সম্মানিত, নূরানী আহাল-ইয়াল, পরিবার-পরিজন উনারাই হচ্ছেন ‘আহলু বাইত’ উনাদের অন্তর্ভুক্ত। হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদের প্রথম সারির অন্তর্ভুক্ত

পবিত্র আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনারা সকল মিছালের উর্ধ্বে। সুবহানাল্লাহ!


এ প্রসঙ্গে পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে- قَالَ النَّبِىُّ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ نَـحْنُ اَهْلُ الْبَيْتِ لَايُقَاسُ بِنَا اَحَدٌ অর্থ : নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন- আমরা, পবিত্র আহলু বাইত

পবিত্র আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদের মুহব্বতকারীগণ সম্মানিত পুলছিরাতে অটল বা স্থির থাকবেন। সুবহানাল্লাহ!


এ প্রসঙ্গে পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে- عَنْ حَضْرَتْ عَلِىٍّ عَلَيْهِ السَّلَامُ قَالَ قَالَ رَسُوْلُ اللهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ اَثْبَتُكُمْ عَلَى الصِّرَاطِ اَشَدُّكُمْ حُبًّا لِاَهْلِ بَيْتِـىْ অর্থ : তোমাদের মধ্যে (কিয়ামতের দিন, মুছীবতের দিন) ঐ ব্যক্তি ই