এক জন নরী যদি বেপর্দায় চলে তাহলে জাহান্নামে যাবে চার জন পূরুষ


 

এক জন নরী যদি বেপর্দায় চলে তাহলে জাহান্নামে যাবে চার জন পূরুষ তারা হলেন

১. তার বাবা

২. তার বড় ভাই

৩. তার স্বামী এবং

৪. তার বড় ছেলে

বর্তমান বাংলাদেশ সরকার নারী অধীকার নামে নারীরদর যে উগ্রতার দিকে নিয়ে যাচ্ছে তা নারীদের শুধু ধংশ ছাড়া আর কিছুই নয়।হেফাজতে ইসলাম এর ১৩ দফা দবি নিয়ে সরকার এত ভীতু কেন । এ দাবিতে নারীদের কোন অবমূল্যায় করা হয়নি।যদি বাংলাদেশ সরকার আল্লাহ ও রাসুলকে বিশ্বাস করেন, ভালবাসেন তাহলে এ দবি মানতে কেন এত দিধা। কার প্ররোচনা, প্রলোভন, ভয়-ভীতিতে আপনি আল্লাহ ও তার রাসুলের বিপক্ষে অবস্থান নিয়ে নিজের ঈমানকে ধ্বংস করে জাহান্নামের দিকে ধাবিত হচ্ছেন । আপনি এবং বাবার বিরুদ্ধে কোন কথা বললে আপনি রাষ্টদ্রোহী মামলা করেন আর আল্লাহ ও রাসুলের বিরোদ্ধে নাস্তিকরা নানান ধরনে কটুক্তি করছে আপনার কোন পদক্ষেপ নাই।আজ ইসলাম বিদ্ধেশি বিদেশী শত্রুরা আমারদর অবস্থা মুচকি হাসে আর বলে বাংলাদেশের মুসলমানরা মুসলমানদের বিরোদ্ধে আমাদের মিশন সফল। আপনি কেন শাহবাগীদের বিচার করেন না নাকি আপনিও তাদের এক জন।আপনি যদি তাদের একজন হন তাহলে জেনে রাখুন যে আল্লাহ আপনাকে আমাকে এই পৃথিবী সৃষ্টি করেছে আপনাকে ক্ষমতায় বসিয়েছে সে আল্লাহ আপনাকে ছাড়বে না। আল্লাহর ক্ষমতার বাইরে আপনি যেতে পারবেন না।তাই নাস্তিক ব্লগারদের শাস্তি দিয়ে দেশের পরিস্থি শান্ত করার অনুরোধ করছি।আমাকে আপনাকে এক দিন না একদিন মরেতই হবে এবং আপনি যে ইসলামের বিরোধিতা করছেন সে ইসলামের বিধান অনুযায়ী আপনাকে আমাকে কবরে যেতে হবে।তা হলে মিছে কেন এই বাড়াবাড়ি , কেন এই ক্ষমতার লোভ, কেন এই নিজের ইমানকে ধংস করা।আপনি ইসলামের বিদিবিধান অনুযায়ী নিজের জীবন পরিচালনা করেন এবং ইসলামের বিধান কে রক্ষা করেন তাহলে আপনার মত উত্তম আর কে হকত পারে।আর যদি ইসলামের বিধানের বিরোধিতা করেন তাহলে আপনার মত নিকৃষ্ট আর কে হবে।আপনি যদি শত্তি ইমানদার হন মুসলমান হন তাহলে নাস্তিক ব্লগারদের শাস্তি আপনি অবশই দিবেন ।

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+