ব্লগ উন্নয়নের জন্য কাজ চলছে । সাময়িক অসুবিধার জন্য আমরা আন্তরিকভাবে দু:খিত। অতিশীঘ্রই আমরা নতুন আঙ্গিকে ব্লগকে উপস্থাপন করবো ইনশাআল্লাহ। ==============================



মুসলমানদের টাকা মূর্তিপূজায় খরচ করার জন্য সরকারী আমলাদের কঠিন কাফফারা দিতে হবে


পবিত্র দ্বীন ইসলাম পরম সহিষ্ণু দ্বীন। মুসলমানদের দেশে অন্য ধর্ম পালনে কোনো বাধা নেই। তাই বলে বিধর্মীদের বাড়াবাড়ি তো সহ্য করা যাবে না। ৯৮ ভাগ মুসলমান অধ্যুষিত দেশে হিন্দুদের এতো লম্ফঝম্ফ কেন? হিন্দুধর্মের অসারতা নিয়ে কিছু বলবো না। শতকরা মাত্র প্রায় 

সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ বিরোধীরাই সন্ত্রাসবাদের সমর্থক; এদের ধরিয়ে দিন, গ্রেফতার করুন


মুসলমানদের মধ্যে বাতিল বাহাত্তর ফিরক্বা তথা ওহাবী, ছালাফি, তাবলীগী, দেওবন্দী, মওদুদীবাদী জামাতী ইত্যাদি ভ্রান্ত মতবাদের অনুসারীরাই পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উদযাপনের বিরোধিতা করে থাকে। নাউযুবিল্লাহ! বাংলাদেশসহ বিশ্ব সন্ত্রাসবাদের সাথে এসব ভ্রান্ত মতবাদের অনুসারীদের সংশ্লিষ্টতার বিষয়টিও সূর্যের আলোর মতোই পরিষ্কার। যেমন- বিশ্ব 

বাবুল হাওয়ায়িজ, যাইনুল মুতাহাজ্জিদীন, আল ওয়াফী, আত ত্বইয়্যিব, আছ ছালিহ, আস সাইয়্যিদ, আত ত্বহির, মালিকুল জান্নাহ, মালিকুল কায়িনাত সাইয়্যিদুনা


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, وَلِلّٰهِ الْاَسْـمَاءُ الْـحُسْنٰـى فَادْعُوْهُ بِـهَا অর্থ: “মহান আল্লাহ পাক উনার অনেক সুন্দর সুন্দর সম্মানিত নাম মুবারক তথা সম্মানিত লক্বব মুবারক রয়েছেন, তোমরা উনাকে সেই সম্মানিত নাম মুবারক তথা সম্মানিত লক্বব মুবারক দ্বারা আহ্বান মুবারক 

সুমহান ও বরকতময় ৭ই পবিত্র ছফর শরীফ।! সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুস সাবি’ মিন আহলি বাইতি রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম


নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘আমার সেই উম্মতের জন্য আমার শাফায়াত মুবারক ওয়াজিব, যে উম্মত আমার আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে মুহব্বত করেন।’ সুবহানাল্লাহ! সুমহান ও বরকতময় ৭ই পবিত্র ছফর শরীফ। সুবহানাল্লাহ! 

আক্বীদা শুদ্ধ করার মাস হচ্ছে ‘পবিত্র ছফর শরীফ মাস’


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘হে ঈমানদাররা! তোমরা ঈমান আনো। অর্থাৎ পবিত্র আক্বীদা উনাকে বিশুদ্ধ করো।’ সুবহানাল্লাহ! পবিত্র আক্বীদা শুদ্ধ করার মাস হচ্ছে ‘পবিত্র ছফর শরীফ মাস’। সুবহানাল্লাহ! যার আক্বীদা শুদ্ধ সেই মু’মিন বা মুসলমান। আর যার আক্বীদা শুদ্ধ 

কুল-কায়িনাতের সবার উচিত সর্বাধিক শান-শওকতের সাথে মহাসম্মানিত ১২ই রবীউল আউওয়াল শরীফ পালনের জন্য বিশেষ প্রস্তুতি গ্রহণ করা


খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কুরআন শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, হে আমার হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! আপনি সমস্ত জিন-ইনসান, কায়িনাতবাসীকে জানিয়ে দিন, মহান আল্লাহ পাক তিনি যে ফদ্বল, করম ও রহমত মুবারক হিসেবে উনার হাবীব 

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কিংবা রাস্তাঘাটে কেন পূজা করতে দেয়া হচ্ছে, পূজাতো মন্দিরের বিষয়


আমাদের দেশে বর্তমানে প্রকাশ্যে মাঠে-ঘাটে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পূজা করাটা খুব স্বাভাবিক একটি বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারণ অধিকাংশ মুসলমানই এরূপ ধারণা করে থাকে যে, মূর্তিপূজারীরা তাদের ধর্ম পালন করছে, তারা তো কারো কোনো ক্ষতি করছে না। কিন্তু মুসলমানদের এই ধারণা সম্পূর্ণই ভুল। কারণ 

আজ সুমহান বরকতময় পবিত্র ৫ই ছফর শরীফ। হযরত উম্মুল মু’মিনীন আছ ছানিয়াহ আলাইহাস সালাম উনার মহাসম্মানিত মহাপবিত্র বিলাদতী


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘মহান আল্লাহ পাক উনার বিশেষ বিশেষ রাত ও দিনগুলো তাদেরকে স্মরণ করিয়ে দিন।’ সুবহানাল্লাহ! আজ সুমহান বরকতময় পবিত্র ৫ই ছফর শরীফ। সুবহানাল্লাহ! সাইয়্যিদাতু নিসায়িল আলামীন, সাইয়্যিদাতুনা হযরত উম্মুল মু’মিনীন আছ ছানিয়াহ আলাইহাস সালাম উনার 

যে ব্যক্তি নিজেকে মুসলমান দাবি করবে আবার পূজার শুভেচ্ছাও দিবে সে কিন্তু মুশরিক হয়ে যাবে


যিনি খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, “নিশ্চয়ই মুশরিকরা নাপাক।” (পবিত্র সূরা তওবা শরীফ: পবিত্র আয়াত শরীফ-২৮) “তোমরা ছবি বা মুর্তির অপবিত্রতা বেঁচে থাকো এবং মিথ্যা কথা বা (গান-বাজনা, নাটক-সিনেমা, কাল্পনিক, মনগড়া-বানোয়াটি 

পবিত্র ছফর শরীফ মাস অশুভ নয় এবং কুলক্ষণের প্রতীক নয়


পবিত্র ছফর শরীফ মাস মহান আল্লাহ পাক উনার মনোনীত খাছ মাস। এ মাস অশুভ ও কুলক্ষণে নয়। কাফির-মুশরিকরা এ মাসকে অশুভ ও কুলক্ষণের প্রতীক মনে করে থাকে। আইয়ামে জাহিলিয়াতের যুগে ‘পবিত্র ছফর শরীফ’ মাসকে কাফির-মুশরিকরা অশুভ ও কুলক্ষণে মনে করতো। এ 

বেমেছাল আত্মত্যাগের এক বেদনাদায়ক ওয়াক্বিয়া


সাইয়্যিদুনা হযরত ফারূক্বে আ’যম আলাইহিস সালাম উনার খিলাফত মুবারক পরিচালনাকালে তিনি হযরত যায়ীদ বিন আমের আল জুমাহী রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনাকে হিমসের গভর্নর করে পাঠালেন। সাইয়্যিদুনা হযরত ফারূক্বে আ’যম আলাইহিস সালাম তিনি কিছুদিন পর হিমসের সার্বিক অবস্থা পর্যবেক্ষণের জন্য হিমসে গেলেন। 

এক নজরে সাইয়্যিদাতুন নিসায়ি ‘আলাল ‘আলামীন, আফদ্বলুন নাস ওয়ান নিসা বা’দা রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা


সাইয়্যিদাতুন নিসায়ি ‘আলাল ‘আলামীন উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত আল হাদিয়াহ্ ‘আশার আলাইহাস সালাম তিনি হচ্ছেন হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের মধ্যে বিশেষ ব্যক্তিত্বা মুবারক। সুবহানাল্লাহ! তিনি শুধু যিনি খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি নন এবং নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ