ব্লগ উন্নয়নের জন্য কাজ চলছে । সাময়িক অসুবিধার জন্য আমরা আন্তরিকভাবে দু:খিত। অতিশীঘ্রই আমরা নতুন আঙ্গিকে ব্লগকে উপস্থাপন করবো ইনশাআল্লাহ। ==============================



ব্যক্তির জন্যই রাষ্ট্র; কিন্তু রাষ্ট্রের জন্য ব্যক্তি নয়। আর দ্বীনদার বা ধর্মপ্রাণ ব্যক্তির জন্য দ্বীন বা ধর্মটাই সবচেয়ে বড়।


পবিত্র ‘ইসলাম’ শব্দের অর্থ হচ্ছে শান্তি। পবিত্র ‘ইসলাম’ই পেরেছে এবং পারে যমীনে শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে। পবিত্র ইসলাম উনার বাইরে কোথাও শান্তি পাওয়া যায়নি এবং যাবেও না। কাজেই শরয়ী পর্দা পালনই শান্তি স্থাপন করতে পারবে। শরয়ী পর্দার অভাবেই আজ সবদিকেই শুধু অশান্তি 

মুসলমানদের মধ্যে বিভক্তির কারণ নিয়ে যারা প্রশ্ন তোলে তারা ইতিহাস জ্ঞানশূন্য


সমাজে নামধারী অনেক মুসলমান আছে, যারা ইসলাম সম্পর্কে তো কিছু জানেই না, ইতিহাস সম্পর্কেও ধারণা নেই। এ শ্রেণীর লোকগুলো সাধরণত দুনিয়াদার (টাকার মোহে অন্ধ) হয়ে থাকে। ইতিহাস ও ইসলামী শিক্ষায় অজ্ঞতার কারণে মুসলমানদের মধ্যে বিভক্তি নিয়ে এরা প্রায় সময়ই এমন কথা 

ডাকাতের কবলে চট্টগ্রাম ভ্রমণ


ডাকাতের কবলে চট্টগ্রাম ভ্রমণ ————————————— মাদ্রাসার ভিতর ঝিম ধরে বসে থাকতে ভালো লাগছে না।ঝিম কাঠতে বন্ধের দিনকে কাজে লাগাতে গত ১৪ই সেপ্টেম্বর জুমাবার গেলাম চট্টগ্রামের বিভিন্ন দর্শনীয় স্থানে।সাথে ছিলো, বন্ধু ইমরান ও ফুফাত ভাই মোহাম্মদ। প্রথমে মাদ্রাসা থেকে বের হয়ে উঠলাম 

পবিত্র কুরআন শরীফ ও পবিত্র হাদীছ শরীফ উনাদের মাঝে পবিত্র ‘মীলাদ’ শব্দ মুবারক উনার ব্যবহার


পবিত্র কুরআন শরীফ উনার মধ্যে ব্যবহৃত মীলাদ শব্দ মুবারক : মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন- وَسَلَامٌ عَلَيْهِ يَوْمَ وُلِدَ وَيَوْمَ يَـمُوْتُ وَيَوْمَ يُبْعَثُ حَيًّا অর্থ : “আর (হযরত ইয়াহইয়া আলাইহিস সালাম) উনার প্রতি সালাম (অবারিত শান্তি) যেদিন তিনি পবিত্র 

পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনার মধ্যে একটি বিশেষ দিন ‘পবিত্র আখিরী চাহার শোম্বাহ শরীফ’


‘পবিত্র আখিরী চাহার শোম্বাহ শরীফ’ বলতে পবিত্র ছফর শরীফ মাস উনার শেষ বুধবার উনাকে বলা হয়। পবিত্র ছফর শরীফ মাস ব্যতীত আর কোনো মাস উনার শেষ আরবিয়া বা বুধবারকে ‘পবিত্র আখিরী চাহার শোম্বাহ শরীফ’ বলা হয় না। যেমন ‘আশূরা’ শব্দটি আরবী 

ক্বওমীদের ‘শুকরিয়া মাহফিল’: আ. শফীগংদের কুফরী প্রকাশের আনুষ্ঠানিকতা মাত্র


যে খবরটা নিয়ে এ লেখার অবতারনা; খবরটি হলো- ‘ক্বওমী মাদরাসাকে সরকারী সনদ দেয়ার আইন পাস হওয়ায় খুশি হয়ে শুকরিয়া স্বরূপ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ক্বওমীদের গুরু আ. শফীগং রাজধানীতে একটি শুকরিয়া মাহফিলের আয়োজন করেছে। অনুষ্ঠানটি হবে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী জনসভার মাঠে। সেখানে প্রধান 

বিদয়াত-শিরকের ফতুয়া কই? ৫ই মে’র ‘শহীদ দিবস’ আর বেগানা মহিলার ‘শুকরিয়া মাহফিল’


ধর্মব্যবসায়ীরা সারাজীবন বলে এসেছে, আল্লাহ ছাড়া আর কারও শুকরিয়া করা শিরক, বেদয়াত। কিন্তু মহান আল্লাহপাক উনার কুদরত- এখন সেই ধর্মব্যবসায়ীরাই জনগণের সামনে খোলা ময়দানে ফাসেক-ফুজ্জার, দুনিয়াদার ও বেগানা মহিলাদের ‘শুকরিয়া’ আদায় করছে। নাউযুবিল্লাহ! ধর্মব্যবসায়ীদের একটি বড় অংশ হলো কওমী, দেওবন্দী, খারেজীরা। 

ধর্মব্যবসায়ীদের কুফরী যখন উপচে পড়ে…


প্রতি বছরই দুই বার উলামায়ে সূ’রা তাদের কুফরীকে আরও বেশি উগড়ে দিয়ে জাহান্নামের আরও নিকবর্তী হয়। প্রথমবার যখন সম্মানিত সাইয়্যিদুশ শুহূর পবিত্র রবীউল আউয়াল শরীফ মাস আসেন তখন তারা এই বলে কাফির হয় যে, পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ, ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ 

অনুসরণীয় চার মাযহাব উনাদের ফতওয়া মুতাবিক সাইয়্যিদুল আম্বিয়া ওয়াল মুরসালীন, রহমাতুল্লিল আলামীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি


নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্পর্কে, উনার সম্মানিত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম অর্থাৎ উনার সম্মানিত আব্বা-আম্মা আলাইহিমাস সালাম উনাদের সম্পর্কে, উনার সম্মানিতা আওয়াজে মুত্বহহারাত হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের সম্পর্কে এবং উনার সম্মানিত আওলাদ 

নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে সম্মানিত সম্বোধন মুবারক করার বিষয়ে তাজদীদ মুবারক


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, لَّا تَجْعَلُوا دُعَاءَ الرَّسُولِ بَيْنَكُمْ كَدُعَاءِ بَعْضِكُم بَعْضًا অর্থ: “তোমরা পরস্পর পরস্পরকে যেভাবে সম্বোধন করো, সেভাবে সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে সম্বোধন করো না।” (পবিত্র সূরা নূর: আয়াত 

সুন্নত মুবারক উনার অনুসরণ সম্মানিত হিদায়েত লাভের কারণ


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন- رِضْوَانٌ مِّنَ اللهِ اَكْبَرُ. অর্থ: “মহান আল্লাহ পাক উনার সন্তুষ্টি মুবারকই সবচেয়ে বড়।” (পবিত্র সূরা তওবা শরীফ : পবিত্র আয়াত শরীফ নং ৭২) মহান আল্লাহ পাক তিনি আরো ইরশাদ মুবারক করেন- وَاللهُ وَرَسُوْلُه اَحَقُّ 

পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উনার বোনাস চালু করুন


যিনি খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি সম্মানিত কিতাব কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন- “সমস্ত কাফির-মুশরিক মুসলমানদের শত্রু। তোমরা কখনই তাদেরকে বন্ধুরূপে গ্রহণ করিও না” এবং তাদেরকে অনুসরণ করিও না। কাজেই নববর্ষ সেটা বাংলা হোক, ইংরেজ হোক, আরবী