সম্মানিত ইছমিদ সুরমা মুবারক ব্যবহার করা খাছ সুন্নত মুবারক


মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র সূরা হাশর শরীফ উনার ৭নং পবিত্র আয়াত শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন- وَمَا اَتَاكُمُ الرَّسُوْلُ فَخُذُوْهُ وَمَا نَـهَاكُمْ عَنْهُ فَانْتَهُوْا অর্থ: নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি তোমাদের জন্য যা নিয়ে 

বাজেট ঘাটতি পূরণে পবিত্র আশূরা পালনে সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা জরুরী


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “যে ব্যক্তি পবিত্র আশূরা মিনাল মুহররম উপলক্ষে তার পরিবারকে ভালো খাদ্য খাওয়াবে, খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি তাকে এক বছরের জন্য 

আসন্ন পবিত্র ‘আশূরা শরীফ’ উপলক্ষে মুসলমান উনাদের জন্য করণীয় আমলসমূহ এখন হতেই জেনে নিন


(১) হযরত আহলে বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম (সম্মানিত নবী পরিবার) উনাদের ব্যাপক আলোচনা করা। ফযীলত: রহমত, বরকত, সাকীনা, মাগফিরাত, দয়া, দান, ইহসান ও কামিয়াবী লাভ হবে। (২) পরিবর্গকে সাধ্যমতো ভালো খাবার খাওয়ানো। ফযীলত: আগামী এক বছরের জন্য সচ্ছলতা লাভ হবে। (৩) 

যখন প্রাণী ও পশু সম্পদ মন্ত্রণালয়ে বিধর্মী বা হিন্দুরা থাকে… তখন কি হতে পারে?


জানা থাকার কথা, খ্রিস্টানদের প্রিয় খাবার শূকর আর হিন্দুদের কচ্ছপ-কাকড়া। আবার হিন্দুরা গরুকে দেবতা মনে করে, তারা গরু কুরবানীবিরোধী। তাহলে বাংলাদেশের মতো ৯৮ ভাগ মুসলমানদের দেশে প্রাণী ও পশু সম্পদ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারী হিসেবে হিন্দু, খ্রিস্টান তথা বিধর্মীদের নিয়োগ দেয়া কি তাদের 

সুন্নত মুবারক উনার বিরোধিতাকারীরাই পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উনার বিরোধিতাকারী


হযরত ইমাম মালিক রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার মুয়াত্তা শরীফ উনার মধ্যে বর্ণনা করেন, মহান আল্লাহ পাক উনার হাবীব, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “আমি তোমাদের জন্য দুটি পবিত্র নিয়ামত মুবারক রেখে যাচ্ছি, এই দুটি 

আজ সুমহান বেমেছাল ফযীলতপূর্ণ বরকতময় ৮ই পবিত্র মুহররমুল হারাম শরীফ। সুবহানাল্লাহ! বিনতু মিন বানাতি রসূলিল্লাহি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম


নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “সাইয়্যিদাতু নিসায়ি আহলিল জান্নাহ উম্মু আবীহা সাইয়্যিদাতুনা হযরত আন নূরুল ঊলা আলাইহাস সালাম তিনি আমার অন্যতম সর্বশ্রেষ্ঠ বানাত অর্থাৎ মেয়ে।” সুবহানাল্লাহ! আজ সুমহান বেমেছাল ফযীলতপূর্ণ বরকতময় ৮ই পবিত্র 

পবিত্র আশুরা শরীফ পালনের মধ্যে মুসলমানদের যাবতীয় কল্যাণ নিহিত


পবিত্র আশুরা যিনি খালিক মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার তরফ থেকে বান্দাদের প্রতি অফুরন্ত দয়া ও ইহসান উনার নিদর্শন। কারণ পবিত্র আশুরা বান্দার জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে মুক্তি দানের উছিলা। মানুষ মাত্রেই সবসময়ই রুজী- রোজগার নিয়ে পেরেশানীতে থাকে। আর এই 

প্রতিটি শ্রেণীতে সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ অন্তর্ভুক্ত চাই


“হে আমার হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! আপনি বলে দিন, তারা যে মহান আল্লাহ পাক উনার পক্ষ হতে ‘ফযল ও রহমত’ পেয়েছে সে জন্য তারা যেনো খুশি প্রকাশ করে। নিশ্চয় তাদের এ খুশি প্রকাশ করাটা তাদের সমস্ত সঞ্চয়ের থেকে উত্তম।” সুবহানাল্লাহ! 

ইয়াযীদ ও তার বাহিনী এখনো সমাজে বিদ্যমান ॥ আর এরাই উলামায়ে ‘সূ’ তথা ধর্মব্যবসায়ী মালানা


পবিত্র মুহররমুল হারাম শরীফ মাস আসলেই ধর্মপ্রাণ মুসলমানগণ উনাদের মন ভারাক্রান্ত হয়ে উঠে। স্মৃতিতে ভেসে উঠে পবিত্র কারবালা উনার হৃদয় বিদারক ঘটনা। এমন ঘটনা মানবজাতির ইতিহাসে দ্বিতীয় আর একটিও নেই। খিলাফতের দাবি সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুছ ছালিছ মিন আহলি বাইতি রসূলিল্লাহি ছল্লাল্লাহু 

শানে সাইয়্যিদাতুনা হযরত নানী হুযূর ক্বিবলা আলাইহাস সালাম


মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র সূরা লুকমান শরীফ উনার ১৫ নং পবিত্র আয়াত শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, وَاتَّبِعْ سَبِيْلَ مَنْ أَنَابَ إِلَيَّ অর্থ মুবারক:- “ওই ব্যক্তির অনুসরন কর, যিনি মহান আল্লাহ পাক উনার দিকে রুজু হয়েছেন।” এমনই মহাসম্মানিত ও 

পুরুষদের ন্যায় মহিলাদেরও দ্বীনী তা’লীম গ্রহণ করা ফরযে আইনের অন্তর্ভুক্ত


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, “প্রত্যেক মুসলমান পুরুষ-মহিলার জন্য ইলম অর্জন করা ফরয।” বর্তমানে দেখা যায়, দেশে-বিদেশে পুরুষরা বাইয়াত গ্রহণ করে, যিকির-ফিকির করে আমল করে। কিন্তু মেয়েদেরকে কিতাবাদি পড়তে বা যিকির-ফিকির করতে খুব একটা দেখা যায় না। বরং 

সুমহান মহাপবিত্র মুহররমুল হারাম শরীফ উনার ১, ২, ৫, ৮, ১০, ১২, ১৬, ২৩, ২৫, এবং ২৬ তারিখ সম্মানিত


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘মহান আল্লাহ পাক উনার নিদর্শন সম্বলিত দিবসগুলিকে স্মরণ করিয়ে দিন সমস্ত কায়িনাতকে। নিশ্চয়ই এর মধ্যে ধৈর্যশীল ও শোকরগোজার বান্দা-বান্দী উনাদের জন্য ইবরত ও নছীহত রয়েছে।’ সুবহানাল্লাহ! মহাপবিত্র ও মহাসম্মানিত মুর্হরমুল হারাম শরীফ মাস উনার