” খোদার বক্ষে লাথি মারি “


ফেইসবুকে দেয়া আমার এই একটি স্ট্যাটাস নাকি অনেকের পিঠে চাবুক মেরেছে, এ নিয়ে ফেইসবুকে তোলপাড়, হৈচৈ! পরবর্তীতে স্ট্যাটাসটির ব্যাখ্যা দেই এইভাবে: আপনি আল্লাহ পাক ও উনার হাবীব সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের মুহব্বত করে সারাদিন যতই স্ট্যাটাস দেন, পোষ্ট দেন না 

যারা ফরয, ওয়াজিব, সুন্নতে মুয়াক্কাদা তরক করে তাদের যাকাত দেওয়া যাবে না


ফাসিক লোককে যাকাত দেয়া যাবে কি? ফাসিক কাকে বলে? যে ফরয, ওয়াজিব, সুন্নতে মুয়াক্কাদা তরক করে সে ফাসিক। নামায, রোযা আদায় করে না, বেপর্দা হয়, খেলাধুলা, গান-বাজনা করে, ছবি তোলে, টিভি দেখে, বিড়ি সিগারেট খায়, পাপ কাজ করে অর্থাৎ হারাম কাজে 

“উশর” সংক্রান্ত কিছু কথা…


প্রাইমারি ক্লাসের কোন একটিতে আমাদের ইসলাম শিক্ষা বইতে একটা ওয়াকেয়া ছিল। এক লোকের বিরাট বড় একটী ফলের বাগান ছিল। ফল পাকলেই তিনি সমস্ত ফল নামিয়ে তিন ভাগ করতেন। একভাগ গরীব দুঃখী প্রতিবেশীদের দান করতেন, আরেক ভাগ নিজের পরিবারের জন্য রাখতেন আর 

ইসলামি শরীয়তে যাকাতের অবস্থান ও যাকাতের ফজিলত


আভিধানিক অর্থে যাকাত: বৃদ্ধি পাওয়া, বর্ধিত হওয়া। শরয়ী পরিভাষায় যাকাত: নির্দিষ্ট পরিমান সম্পদ যা সুনির্দিষ্ট সময় বিশেষ মানবগোষ্ঠিকে প্রদান করা হয়। যাকাতের অবস্থান: যাকাত ইসলামের ফরজকর্মসমূহের একটি এবং ইসলামের তৃতীয় রুকন। আল্লাহ তাআলা বলেন: (তোমরা নামাজ প্রতিষ্ঠা করো ও যাকাত প্রদান 

” গভীর চিন্তায় সকল সৃষ্টির অলৌকিকত্ব পরিষ্কার “


অন্তরের বাণী যা রক্ত দিয়া লেখা, সেই কথাগুলি কালির রং রূপ নিলে মানুষ নানা নাম দেয়। কবিতা, প্রবন্ধ, উপদেশবাণী, প্রেম পত্র ইত্যাদি ইত্যাদি। সেই লেখা-লেখিত আমার শিক্ষক হলেন- আমার প্রাণপ্রিয় মুজাদ্দিদগণের শ্রেষ্ঠ মুজাদ্দিদ, মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম তিনি। একালে, সেকালে এবং 

আঞ্জুমানে মফিদুল আর কোয়ান্টামঃ প্রতারণার দুই নাম


একটা গল্পের বই পড়তে গিয়ে প্রথম জেনেছিলাম, মৃত মানুষের লাশ জ্বাল দিয়ে তার কঙ্কাল আলাদা করে মেডিক্যালের স্টুডেন্টদের কাছে বিক্রি করা হয়। খুবই লাভজনক ব্যবসা! তখন ভেবেছিলাম এগুলো গল্পের বইয়েই হয়। এখন জানছি, এই ঘৃণিত কাজ বাস্তবে অহরহ তো হয়ই, এমনকি 

এক বৃদ্ধ বাবা ও তার সন্তান উটের পিঠে চড়ে এক কাফেলার সাথে হজ্জ পালনের উদ্দেশে রওনা দিলেন…


এক বৃদ্ধ বাবা ও তার সন্তান উটের পিঠে চড়ে এক কাফেলার সাথে হজ্জ পালনের উদ্দেশে রওনা দিলেন। মাঝ পথে হঠাৎ বাবা তার ছেলেকে বললেনঃ ”বাবা! তুমি কাফেলার সাথে চলে যাও, আমি আমার প্রয়োজন সেরেই তোমাদের সাথে আবার যোগ দিব, আমাকে নিয়ে 

রমাদ্বান শরীফ মাসে সাহরী-ইফতারির জন্য নির্ভরযোগ্য একটি সময়ের চার্ট ব্যবহার করা উচিত


ছোটবেলায় আমার একজন আত্মীয়কে দেখতাম সামনে ইফতারি সাজিয়ে বসে থাকতেন। যে মসজিদের আযান আগে শোনা যেত, সেটা শুনেই রোযা ভাংতেন। এর কারণ হিসেবে বলতেন, দ্বীন ইসলামে তাড়াতাড়ি রোযা ভাঙার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এই চিন্তাধারা থেকে এখনো প্রচুর মানুষ দেখি আযান শুনতে 

প্রসূতিগৃহে থাকা বিজ্ঞান দিয়ে, পরিপূর্ণ দ্বীন ইসলাম উনার শ্রেষ্ঠত্ব বোঝা সম্ভব না


বেশ অনেক বছর আগে (সম্ভবত ১৯৯৬-৯৭ এর দিকে) প্রচার হয় কম্পিউটার নাকি রায় দিয়েছে, কুরআন শরীফ মানব রচিত নয়। ব্যাপারটা নিয়ে তখন এতো আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছিল যে, কিছু কিছু ওয়ায়েজ পর্যন্ত কম্পিউটারের বরাত দিয়ে মানুষজনকে উদ্বুদ্ধ করেছে কুরআন শরীফের উপর আমল 

আপনার পবিত্র যাকাত কোথায় দিবেন? কোথায় দেয়া উচিত?


খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন- “তোমরা নেকী ও পরহেজগারীর মধ্যে সাহায্য করো। আর পাপ ও শত্রুতা অর্থাৎ মহান আল্লাহ পাক উনার ও উনার রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের বিরোধিতা বা 

যাকাত দেয়ার একমাত্র প্রতিষ্ঠান পবিত্র ‘মুহম্মদিয়া জামিয়া শরীফ’


খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন- “তোমরা নেকী ও পরহেজগারীতে সাহায্য-সহযোগিতা করো, পাপ ও শত্রুতার মধ্যে সহযোগিতা করো না।” মহান আল্লাহ পাক তিনি এবং নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি শুদ্ধভাবে পবিত্র যাকাতসহ 

শূকরের গোশত, মদ ও গাঁজা খেয়ে ধর্মনিরপেক্ষতার কথা যারা বলেন, তারা পারভারটেড।’- প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা


রোববার রাজধানীতে জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে) ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে) আয়োজিত ইফতার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদান শেষে প্রধানমন্ত্রী বলেন- ১) ‘যারা হেফাজতের সঙ্গে সরকার হাত মিলিয়েছে, চেতনা গেল গেল বলে গলা ফাটাচ্ছেন; ৫ মে রাতে যখন