উম্মুল মু’মিনীন হযরত খাদিজা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহা উনার মামাতো ভাই হযরত অাবদুল্লাহ ইবনে উম্মে মাকতূম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু সম্পর্কে


  হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে উম্মে মাকতূম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু ছিলেন উম্মুল মুমিনীন হযরত খাদিজা রদিয়াল্লাহু তা’আলা আনহা উনার মামাতো ভাই। হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে উম্মে মাকতুম রাদিয়াল্লাহু তা’আলা আনহু তিনি ছিলেন জন্মান্ধ।ইসলামের একেবারে সূচনার দিনগুলোতে নবীজী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি কুরাইশী 

সুন্নত মুবারক পালনের গুরুত্ব ও ফযীলত !


একটি সুন্নত পালনে যদি ১০০ শহীদের সওয়াব পাওয়া যায়, তাহলে সুন্নত উনার গুরুত্ব, মর্যাদা, ফযীলত কতটুকু নিচের ওয়াকিয়াটি পড়ে আমাদের ফিকির করা উচিত! হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে উম্মে মাকতূম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু তিনি ছিলেন উম্মুল মুমিনীন হযরত খাদিজা রদিয়াল্লাহু তা’আলা আনহা উনার 

পবিত্র যাকাত দেয়া যেরূপ ফরয; তদ্রুপ সঠিক স্থানে পবিত্র যাকাত দেয়াও ফরয এবং পবিত্র যাকাত কবুল হওয়ার কারণ। পবিত্র


যামানার লক্ষ্যস্থল ওলীআল্লাহ, যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, ইমামুল আইম্মাহ, মুহইউস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, মুজাদ্দিদে আ’যম, ক্বইয়ূমুয যামান, জাব্বারিউল আউওয়াল, ক্বউইয়্যূল আউওয়াল, সুলত্বানুন নাছীর, হাবীবুল্লাহ, জামিউল আলক্বাব, আওলাদে রসূল, মাওলানা সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম তিনি বলেন, পবিত্র যাকাত দেয়ার সর্বোত্তম 

মহা ঋণের টাকায় উন্নয়নের নামে মহাদুর্নীতি আর লুটপাট সম্পর্কে জনগণের সচেতনতা মহা জরুরী।


সমস্ত ছানা-ছিফত খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার জন্য। এমন ছানা-ছিফত যাতে তিনি সন্তুষ্ট হন। অপরিসীম, অকৃত্রিম, অগণিত দুরূদ ও সালাম মুবারক নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার প্রতি। এমন দুরূদ শরীফ ও সালাম মুবারক যা 

মুবারক হো- আসাদুল্লাহিল গালিব, খলীফাতু রসূলিল্লাহ, মুরতাদ্বা, হায়দার, বাবুল ইলম, হযরত ইমামুল আউওয়াল মিন আহলি বাইতি রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি


সমস্ত প্রশংসা মুবারক খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার জন্য; যিনি সকল সার্বভৌম ক্ষমতার মালিক। সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, হযরত নবী আলাইহিমুস সালাম উনাদের নবী, হযরত রসূল আলাইহিমুস সালাম উনাদের রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম 

মুসলমান তার শ্রেষ্ঠত্ব অস্বীকার করতে পারে, কিন্তু কাফির-মুশরিকরা যে কখনোই তাদের গোলামের পরিচয় অস্বীকার করতে পারে না


১৮৫৭ সালের ব্রিটিশবিরোধী মহাবিদ্রোহের সময়ের ঘটনা। ব্রিটিশ হানাদারেরা দিল্লী অবরুদ্ধ করে রেখেছে। এমতাবস্থায় সম্রাট বাহাদুর শাহ জাফরের মনে খেয়াল হলো, যেহেতু হিন্দুরা গরুকে দেবতা মানে, সেহেতু ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে দিল্লীর হিন্দুদের সমর্থন পেতে হলে গরু কুরবানীর ব্যাপারে ছাড় দিতে হবে। সম্রাট আইন 

আশঙ্কাজনক হারে বাংলাদেশ থেকে মেধা লুট হচ্ছে। উপযুক্ত মূল্যায়ন ও অবকাঠামোর অভাবে প্রতি বছর ৫০০০ শিক্ষার্থীসহ বিজ্ঞানীরা দেশ ছাড়ছে।


রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ফার্মাসি বিভাগের সাবেক শিক্ষক শামীম হোসেন। শিক্ষাছুটিতে জাপান যাওয়ার পর সে আর কর্মক্ষেত্রে ফিরে আসেনি। এ কারণে ২০১০ সালের ২৪ আগস্ট তাকে অব্যাহতি দেয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। একই অভিযোগে ১৯৭২ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ৮০ জন শিক্ষককে 

বাংলাদেশে আসছে ভারতীয় প্লাষ্টিকের চাল


বাম্পার ফলন হলেও যেখানে প্রতিবছর বাংলাদেশের কৃষকরা চালের দাম পাচ্ছেনা সেখানে সরকার ভারত থেকে চাল আমদানি করছে অস্বাভাবিক হারে। আর তাও স্বাভাবিক চাল নয় ভেজাল তথা প্লাস্টিকের চাল। জানা গেছে, ডিম, আটা ও দুধের পর এবার ত্রিপুরায় আতঙ্কে ছড়াচ্ছে প্লাস্টিকের চাল। 

সম্ভাবনাময় প্রতিরক্ষা খাত: যেসব অস্ত্র তৈরি হয় বাংলাদেশেই


দেশের সামরিক ও প্রতিরক্ষা খাতে বাজেটে বরাদ্দ যেমন বেড়েছে তেমনই গত কয়েক বছরে এ খাত ঈর্ষণীয় সাফল্য অর্জন করেছে। দেশে কিংবা দেশের বাইরে আমাদের সেনাবাহিনী ও বিমান বাহিনী দেশের সুনাম বৃদ্ধি করছে। দেশকে নিয়ে গেছে এক অনন্য উচ্চতায়। দিন দিনই সামরিক 

আল মানছূর হযরত খলীফাতুল উমাম আলাইহিস সালাম উনার মুবারক শানে কিছু কথা


চিন্তা-ফিকিরের ঊর্ধ্বে, বর্ণনার ঊর্ধ্বে, লিখার ঊর্ধ্বে, বলার ঊর্ধ্বে যাদের শান-মান, ফাযায়িল-ফযীলত বুযুর্গী রয়েছে, উনাদের প্রথম সারির, সর্বোচ্চ তবকার ব্যক্তিত্ব হচ্ছেন- খলীফাতুল উমাম, আল মানছূর হযরত শাহযাদা হুযূর ক্বিবলা আলাইহিস সালাম। সুবহানাল্লাহ! উনার শান-মান, ফাযায়িল-ফযীলত এমন যে, যা ফিকির করে আয়ত্বে আনা 

হযরত আউলিয়ায়ে কিরাম রহমতুল্লাহি আলাইহিম উনারাই ইলমে গইব উনার অধিকারী। সুবহানাল্লাহ!


হযরত আম্বিয়ায়ে ইযাম আলাইহিমুস সালাম তথা হযরত নবী-রসূল আলাইহিমুস সালাম উনারা তো অবশ্যই বরং হযরত আউলিয়ায়ে কিরাম রহমতুল্লাহি আলাইহিম উনাদেরকেও যিনি খালিক্ মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি ইলমে গইব হাদিয়া মুবারক করেন। সুবহানাল্লাহ! যেমন এ প্রসঙ্গে হযরত খিযির আলাইহিস সালাম 

মুসলমান উনাদের জন্য একমাত্র অনুসরণীয় সৌর বর্ষপঞ্জি হচ্ছে ‘আত তাক্বউইমুশ শামসী’; গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার নয়


খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, “মহান আল্লাহ পাক যিনি বানিয়েছেন সূর্যকে উজ্জ্বল আলোকময় করে আর চাঁদকে স্নিগ্ধ আলো বিতরণকারীরূপে। অতঃপর নির্ধারণ করেছেন এর জন্য মঞ্জিলসমূহ যাতে তোমরা চিনতে পারো বছরগুলোর সংখ্যা