চারু ও কারু বলতেই কেন পাঠ্যপুস্তকে ছবি-ভাস্কর্য নিয়ে আসা হচ্ছে? বাংলার মুসলিম শাসনামলের ক্যালিগ্রাফি ও স্থাপত্যশিল্পগুলো কি কারো চোখে


পবিত্র মুসলিম শরীফ উনার একখানা পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে বর্ণিত রয়েছে যে, “হযরত সাঈদ রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু বলেন, এক ব্যক্তি হযরত ইবনে আব্বাস রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনার নিকট এসে বললো, আমি এমন এক ব্যক্তি যে প্রাণীর ছবি অংকন করি, সুতরাং 

মুসলমানদের ইবাদত-বন্দেগী নষ্ট করতে চাঁদ নিয়ে ষড়যন্ত্র


সউদী সরকার তবৎড় সড়ড়হ অনুযায়ী নতুন চন্দ্রমাস শুরু করে, যা শরীয়তসম্মত নয়। কারণ শরীয়তে চাঁদ চাক্ষুষ দেখা শর্ত। মূলত, Zero moon অনুযায়ী সউদী ওহাবী ইহুদী সরকার চন্দ্র তারিখ ঘোষণা করার করণে এই তারিখ অনুযায়ী কেউ যদি রোযা শুরু করে, তবে যে 

নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি এবং মহান আল্লাহ পাক উনারা ঈমানদারদের বিবাহের বয়স নির্দিষ্ট


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “একমাত্র মনোনীত পরিপূর্ণ সন্তুষ্টিপ্রাপ্ত, অপরিবর্তনীয় সম্মানিত দ্বীন হচ্ছেন সম্মানিত দ্বীন ইসলাম।” স্মরণীয় সম্মানিত শরীয়ত অর্থাৎ পবিত্র কুরআন শরীফ ও পবিত্র সুন্নাহ শরীফ অর্থাৎ স্বয়ং নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি 

এদেশের ‘শিক্ষাব্যবস্থা’ই প্রজন্মকে প্রতিবাদহীন ‘বোবা’ করে রেখেছে!


এদেশের ‘শিক্ষাব্যবস্থা’ই প্রজন্মকে প্রতিবাদহীন ‘বোবা’ করে রেখেছে! এদেশে তখন থেকেই অনুভূতি সম্পন্ন, বোধ বুদ্ধি-সম্পন্ন, সচেতন প্রতিবাদী মানুষ কমতে শুরু করেছে যখন থেকে এদেশের পাঠ্যপুস্তকে বিজাতীয় আর মানবধর্মের নামে নাস্তিকতার চর্চা শুরু হয়েছে। তখন থেকেই অনুভূতিহীন, নির্বোধ, অথর্ব একেকটি প্রজন্ম তৈরি হয়ে 

এদেশে রাজনৈতিক পিতার সমালোচনাকারীদের শাস্তি হলেও ইসলাম নিয়ে কটূক্তিকারীদের শাস্তি হয় না !!


এদেশে রাজনৈতিক পিতার সমালোচনাকারীদের শাস্তি হলেও ইসলাম নিয়ে কটূক্তিকারীদের শাস্তি হয় না !! দেশের মানুষ এখন অনেক বেশি রাজনীতিতে সচেতন হয়েছে, আইন আদালতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়েছে, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বদের সম্মান দিতে শিখেছে। তাইতো এদেশে কোনো রাজনৈতিক নেতা-কর্মীদের সমালোচনা হলে, কটূক্তি করা হলে 

শিশু জন্মের পর অবশ্যই পালনীয় সুন্নতসমুহ


শিশু জন্মের পর অবশ্যই পালনীয় সুন্নতসমুহ ====== সন্তান জন্ম হওয়া যেমন আনন্দের, সে সন্তানের প্রাথমিক কাজগুলো সম্মানিত সুন্নতের আলোকে পালন করা আরো বেশি আনন্দের। কেননা এ সম্মানিত সুন্নতের অনুসরণ সদ্য ভূমিষ্ঠ সন্তানকে সঠিক, সুন্দর জীবনের দিকে ধাবিত করবে। হাবিবুল্লাহ হুযুর পাক 

মূর্তিপূজারীদের অভিশাপ থেকে মুক্ত না হলে বাংলাদেশে আজ নগরসভ্যতার কোনো চিহ্ন থাকতো না!


মূর্তিপূজারীদের অভিশাপ থেকে মুক্ত না হলে বাংলাদেশে আজ নগরসভ্যতার কোনো চিহ্ন থাকতো না! আজ আমরা স্বাধীন দেশের নাগরিক। স্বাধীন দেশের নাগরিক হিসেবে আজ আমরা ঢাকা, চট্টগ্রামের ন্যায় শহরগুলো দেখে অভ্যস্ত। কিন্তু এই শহরগুলো একদিনে তৈরি হয়নি, ব্রিটিশ আমলে এগুলো আজকের দিনের 

নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ, হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার দীদার মুবারক


বাতিল ফিরকাদের একটা দাবি হচ্ছে সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ, হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি মহান আল্লাহ পাক উনাকে দেখেননি। নাউযুবিল্লাহ। নাউযুবিল্লাহ। নাউযুবিল্লাহ। মূলত তারা উনার সুমহান শান মুবারক সম্পর্কে সম্পূর্ণ বেখবর হওয়ার কারণে এ বিষয়সমূহ বুঝতে 

কাফিরদের শত্রু গন্য করতে হবে, বন্ধু নয়!


কাফিরদের শত্রু গন্য করতে হবে, বন্ধু নয়! ======== আমাদের মধ্যে জন্মগত অনেক মুসলমান রয়েছে। জন্মগত মুসলমান বলছি এ কারণে তারা শুধুমাত্র মুসলিম পিতা-মাতার ঘরে জন্মগ্রহণ করেছে। কুরআন শরীফ এবং হাদীছ শরীফ সম্পর্কে তাদের ন্যুনতম জ্ঞান নেই। কাফির-মুশরিকদের পক্ষ নিয়ে দীর্ঘক্ষণ তর্ক 

বাংলাদেশের খনিজ সম্পদ যেভাবে চুরি করছে ভারত!


বাংলাদেশের খনিজ সম্পদ যেভাবে চুরি করছে ভারত! বাংলাদেশের মাটি প্রাকৃতিক সম্পদের এক অপূর্ব সম্ভার। দেশের এ সম্পদকে কাজে লাগানো গেলে কোটি মানুষের কর্মসংস্থানের পথ যেমন সুগম হবে। অর্থনৈতিকভাবে ঘুরে দাঁড়াতে পারবে ২০ কোটি মানুষের এ দেশ। তবে সব সরকারই এসব বিষয়ে 

আজ সুমহান বেমেছাল বরকতময় ২৯শে জুমাদাল ঊলা শরীফ। সুবহানাল্লাহ!


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “হে হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম! নিশ্চয়ই আপনারা অন্য কোনো মহিলাদের মতো নন।” সুবহানাল্লাহ! আজ সুমহান বেমেছাল বরকতময় ২৯শে জুমাদাল ঊলা শরীফ। সুবহানাল্লাহ! আফদ্বালুন নাস ওয়ান নিসা বা’দা রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, সাইয়্যিদাতুনা 

উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত হাদিয়া আশার আলাইহাস সালাম উনার বিভিন্ন বিষয়ে উম্মতদেরকে তা’লীম প্রদান


মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র শরীয়ত মুবারক উনার বিষয়ে উম্মত উনাদেরকে তা’লীম প্রদান: এ সম্পর্কে ‘বুখারী শরীফ’-এ বর্ণিত রয়েছে, عَنْ زَيْنَبَ بِنْتِ أَبِي سَلَمَةَ قَالَتْ لَمَّا جَاءَ نَعْيُ أَبِي سُفْيَانَ مِنَ الشَّأْمِ، دَعَتْ أُمُّ حَبِيبَةَ رَضِيَ اللَّهُ عَنْهَا بِصُفْرَةٍ فِي اليَوْمِ الثَّالِثِ فَمَسَحَتْ