Posts Tagged ‘আওলাদে রসূল’

মহাসম্মানিত হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদের এবং আওলাদে রসূল ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের মধ্যে পার্থক্য


এটি একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। অনেকে মনে করে থাকে যে, যিনি আওলাদে রসূল তিনিই আহলু বাইত শরীফ। আওলাদে রসূল এবং আহলু বাইত শরীফ উনাদের মধ্যে কোনো পার্থক্য নেই। নাঊযুবিল্লাহ! আবার অনেকে মনে করে থাকে যে, আওলাদে রসূল ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম

সুমহান ১৪ই যিলক্বদ শরীফ- যেদিন তাশরীফ এনেছেন শেরে খোদা সাইয়্যিদুনা হযরত শাফিউল উমাম আলাইহিস সালাম


পবিত্র ১৪ই যিলক্বদ শরীফ কুতুবুল আলম, আওলাদে রসূল শেরে খোদা শাহদামাদে মুজাদ্দিদে আ’যম সাইয়্যিদুনা হযরত শাফিউল উমাম আলাইহিস সালাম উনার পবিত্রতম বিলাদতী শান মুবারক প্রকাশ দিবস। খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন তিনি প্রতি যামানায় অসংখ্য-অগণিত ওলীআল্লাহ উনাদেরকে জিন

সাইয়্যিদুনা হযরত হাদীউল উমাম আলাইহিস সালাম তিনি আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদের অর্ন্তভুক্ত: হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদের এবং আওলাদে রসূল ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের মধ্যে পার্থক্য  


এটি একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। অনেকে মনে করে থাকে যে, যিনি আওলাদে রসূল তিনিই আহলু বাইত শরীফ। আওলাদে রসূল এবং আহলু বাইত শরীফ উনাদের মধ্যে কোনো পার্থক্য নেই। নাঊযুবিল্লাহ! আবার অনেকে মনে করে থাকে যে, আওলাদে রসূল ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম

আহলান ওয়া সাহলান আওলাদে রসূল সাইয়্যিদুনা হযরত হাদিউল উমাম আলাইহিস সালাম 


  আরবী পঞ্চম মাস উনার নাম পবিত্র জুমাদাল ঊলা শরীফ। পবিত্র জুমাদাল ঊলা শরীফ মাস উনার অনেক ফাযায়িল-ফযীলতের মধ্যে একটি বিশেষ দিক হচ্ছে, এ মাসে জলীলুল ক্বদর ছাহাবী এবং হযরত খুলাফায়ে রাশিদা আলাইহিমুস সালাম উনাদের ৩য় খলীফা সাইয়্যিদুনা হযরত যূন নূরাইন

আজ সুমহান পবিত্র ও বরকতময় ৯ই জুমাদাল ঊলা শরীফ। সুবহানাল্লাহ! আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদুনা হযরত হাদিউল উমাম আলাইহিস সালাম উনার পবিত্র বিলাদতী শান মুবারক প্রকাশ দিবস। সুবহানাল্লাহ!


নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “আমার হযরত আওলাদ আলাইহিমুস সালাম উনারা হলেন তোমাদের জন্য হযরত নূহ আলাইহিস সালাম উনার নৌকার মতো। যে তাতে আরোহণ করবে, সে নাজাত পাবে। সুবহানাল্লাহ! আর যে তা হতে

সুওয়াল


প্রশ্নঃ- পবিত্র বিছাল শরীফ গ্রহণের অব্যবহিত পর কার কপাল মুবারকে নূরানী অক্ষরে লিখিত হয়েছিলো ? هذا حبيب الله مات فى حب الله উত্তরঃ- ৭ম হিজরী শতকের সুমহান মুজাদ্দিদ, সুলত্বানুল হিন্দ, আওলাদে রসূল, হাবীবুল্লাহ হযরত খাজা মুঈনুদ্দীন হাসান চীশতী সাঞ্জারী ছুম্মা আজমিরী

আজ সুমহান বরকতময় ৫ মুহররমুল হারাম শরীফ। আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদাতুন নিসা হযরত জাদ্দাতু খলীফাতিল উমাম আলাইহাস সালাম উনার পবিত্র বিছালী শান মুবারক প্রকাশ দিবস। যিনি খাছ হযরত আওলাদে রসূল ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের অন্তর্ভুক্ত।


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘সাবধান! নিশ্চয়ই যেসকল মহৎ ব্যক্তিত্ব উনারা মহান আল্লাহ পাক উনার ওলী, উনাদের কোনো ভয় ও চিন্তা নেই।’ আজ সুমহান বরকতময় ৫ মুহররমুল হারাম শরীফ। আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদাতুন নিসা হযরত জাদ্দাতু খলীফাতিল উমাম আলাইহাস সালাম

খোদার মাহবুবা


১৪ই যিলহজ্জ রজনীতে খোদার মাহবুবা তাশরীফ যমীনে সাইয়্যিদাতুল উমাম হয়ে খাছ রহমত দানের অজুরে। সাইয়্যিদাতুল উমাম শাহ নাওয়াসী তাশরীফ মুবারকে আজ ধরণী সাইয়্যিদী ঈদের আনন্দে বিশ্ব জগৎ আজ নূরানী। মোদের শাহ নাওয়াসী খোদার মাহবুবা নববী কাননের নূরের সাইয়্যিদাহ আশিক-আশিকা দিল উজার

নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘নিশ্চয়ই আমার হযরত আওলাদ আলাইহিমুস সালাম উনারা হযরত নূহ আলাইহিস সালাম উনার কিশতী মুবারক উনার অনুরূপ। উনার মধ্যে যাঁরা আরোহণ করেছিল উনারা নাজাত পেয়েছিল।’ অর্থাৎ আওলাদে রসূল ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদেরকে যাঁরা মুহব্বত ও তা’যীম-তাকরীম করবে উনারাও নাজাত লাভ করবে। সুবহানাল্লাহ! সুমহান পবিত্রতম বরকতময় ১৪ যিলহজ্জ শরীফ- আওলাদে রসূল হযরত সাইয়্যিদাতুল উমাম আছ ছালিছা আলাইহাস সালাম উনার পবিত্র বিলাদতী শান মুবারক প্রকাশ করার সুমহান দিবস। সুবহানাল্লাহ! উনার পবিত্র বিলাদতী শান মুবারক প্রকাশ করার দিবসটি যমীনবাসীদের জন্য সুমহান ঈদ বা খুশির দিন। অতএব, প্রত্যেকের জন্য দায়িত্ব-কর্তব্য হচ্ছে- আওলাদে রসূল হযরত সাইয়্যিদাতুল উমাম আছ ছালিছা আলাইহাস সালাম উনার মুবারক খিদমতে যথাযথ আঞ্জাম দিয়ে রহমত, বরকত, নিয়ামত, সাকীনা ও নাজাত মুবারক লাভের কোশেশ করা।


যামানার লক্ষ্যস্থল ওলীআল্লাহ, যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, ইমামুল আইম্মাহ, মুহইউস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, মুজাদ্দিদে আ’যম, ক্বইয়ূমুয যামান, জাব্বারিউল আউওয়াল, ক্বউইয়্যূল আউওয়াল, সুলত্বানুন নাছীর, হাবীবুল্লাহ, জামিউল আলক্বাব, আওলাদে রসূল, মাওলানা সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম তিনি বলেন, মহান আল্লাহ পাক তিনি

আওলাদে রসূল হযরত সাইয়্যিদুল উমাম আলাইহিস সালাম উনাকে যারা মুহব্বত করবেন তারা ৯টি বিশেষ নিয়ামত মুবারক লাভ করবেন। সুবহানাল্লাহ!


সাইয়্যিদুল উমাম সাইয়্যিদুনা হযরত শাহ নাওয়াসা ক্বিবলা আলাইহিস সালাম তিনি হচ্ছেন সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নূরে মুজাস্সাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্মানিত আওলাদ আলাইহিমুস সালাম উনাদের অন্তর্ভুক্ত। তাই উনার শান-মান, ফাযায়িল-ফযীলত, খুছূছিয়াত মুবারক বেমেছাল। উনার মুহব্বত হচ্ছে

আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদাতুনা হযরত দাদী হুযূর ক্বিবলা আলাইহাস সালাম তিনি ছিলেন মহান আল্লাহ পাক উনার খাছ মাহবুবা


খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি যুগে যুগে অসংখ্য অগণিত ওলীআল্লাহ (পুরুষ বা নারী) উনাদেরকে মানুষের হিদায়েত দানের জন্য পেরণ করেছেন, করছেন এবং ক্বিয়ামত অবধি প্রেরণ করবেন। খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন তিনি হাবীবাতুল্লাহ সাইয়্যিদাতুনা হযরত দাদী

মুবারক হো মহিমান্বিত ২০ই যিলহজ্জ শরীফ। লখতে জিগারে মুজাদ্দিদে আ’যম, রাইহানাতা মুর্শিদিনা, শাহী বুশরা, হাবীবাতুল্লাহ, ত্বাহিরা, ত্বইয়িবা, সাইয়্যিদাতুল উমাম, আওলাদে রসূল, ওলীয়ে মাদারযাদ, সাইয়্যিদুনা হযরত শাহ নাওয়াসী ক্বিবলা ছালীছা আলাইহাস সালাম উনার পবিত্র বিলাদত শরীফ গ্রহণের সপ্তম দিন। তথা মহিমান্বিত আক্বীক্বা শরীফ উনার মুবারক দিন। উম্মাহর উচিত- মহিমান্বিত এ আক্বীকা শরীফ উনার নিয়ামত লাভের জন্য তীব্র প্রতিযোগিতা করা, সর্বোচ্চ খুশি প্রকাশ করা এবং চূড়ান্তভাবে খিদমতে আঞ্জাম দেয়ার জন্য নিবেদিত হওয়া।


  ঈদ মুবারক! ঈদ মুবারক! আলহামদুলিল্লাহ! আরো একবার সারা জাহান পুলকিত হলো, আনন্দিত হলো, মহান বারে ইলাহী উনার নিকট শুকরিয়া আদায় করে সিজদাবনত হলো। নববী কাননে আরো এক নব ফুলের প্রস্ফুটন ঘটেছে, মুজাদ্দিদী ধারায় নতুন আরেকটি ধারা সংযুক্ত হলো, সঙ্কটাপন্ন বর্তমান