Posts Tagged ‘আমেরিকা’

গুলশান হামলার পেছনের খল নায়ক কারা?


প্রতিবারই হামলা শেষে ইহুদী মহিলা রিটা কাটজ পরিচালিত কথিত “সাইট ইন্টেলিজেন্স এজেন্সী”র মাধ্যমে আইএস দায় স্বীকার করে নেয়। ব্যস। হয়ে গেল তদন্ত। এবার গণহারে দাড়ি-টুপি ধর। দুনিয়ার সবাই জানে যে আইএস আমেরিকার সৃষ্টি। তারপরও মিডিয়ার ব্রেইন-ওয়াশকৃত চুশীল সমাজ নাঁকি সুরে বলেই

গুলশানের হামলা কেয়ামত নিয়ে আসবে না


গুলশানে হামলার জন্য এত চিন্তিত হওয়ার কিছু নাই। এতে বাংলাদেশের কিছু আসে যায় নাই। এর জন্য আমেরিকা বা ভারতের এত হা-হুতাশ করারও কিছু নাই। বাংলাদেশী বাহিনী এ ধরনের হামলা সামাল দেওয়ার জন্য যথেষ্ট এবং তাদের পূর্ণ শক্তি রয়েছে। এবং এটা বাংলাদেশী

আমেরিকার অর্থনীতির গোঙানী শব্দ


২০১৬ সালের শুরুতেই মার্কিন অর্থনীতির গোঙানীর আওয়াজ পাওয়া যাচ্ছিল। অর্থাৎ মৃত্যুর গড়গড়া উঠেছে মার্কিন অর্থনীতিতে। জানুয়ারি মাসটা জুড়েই আমেরিকার শীতল ঝড়ো হাওয়ার বাতাস নড়বড়ে শেয়ার মার্কেটের গায়েও লেগে লেগে যাচ্ছিল এবং বিনিয়োগকারীদের ভাষায় এই জানুয়ারীটা ছিল ২০০৮ সালের অর্থনৈতিক মন্দার পর

নিরাপত্তা ইস্যুতে বন্ধ হচ্ছে কারখানা : বাড়ছে বেকারের সংখ্যা


তৈরী পোশাক শিল্পে অগ্নি, বিদ্যুৎ ও ভবন নিরাপত্তা ইস্যুতে বন্ধ হচ্ছে কারখানা। এতে বাড়ছে বেকার শ্রমিকের সংখ্যা। বিদেশী ক্রেতাদের জোট অ্যাকর্ড অ্যালায়েন্স কারখানা পরিদর্শনে বন্ধের তালিকা দীর্ঘ হচ্ছে। কয়েক সপ্তাহের মধ্যে ৯টি কারখানা বন্ধ হয়েছে। এতে প্রায় ১০ হাজারেরও বেশি শ্রমিক

মালয়েশিয়ান বিমান নিখোঁজ- মুসলমানদের কাজ, নাকি চীন-আমেরিকার শীতল যুদ্ধ!!


১৯৮৩ সালের ১লা সেপ্টেম্বর, নিউইয়র্ক থেকে সিউল যাচ্ছে কোরিয়ান বিমান ০০৭। পথে আলাস্কার এঙ্কোরেযে যাত্রা বিরতি করলো। এঙ্কোরেয থেকে সিউল যাত্রা পথে জাপান সাগরে, মনিরন দ্বীপের কাছে রাশিয়ার নিষিদ্ধ আকাশ সীমায় প্রবেশ করে বিমানটি। সে সময় রাশিয়ার একটি স্যাটেলাইট থেকে তথ্য-উপাত্ত

যুক্তরাষ্ট্রই সন্ত্রাসবাদ তৈরিতে সবচেয়ে বেশি দায়ী


মহামন্দার পূর্বে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রই ছিল একমাত্র সুপার পাওয়ার। অস্ত্র আর অর্থের গরমে যা ইচ্ছা তাই ব্যবহার করেছে অন্য দেশসমূহের সাথে। তাদের তৈরি জাতিসংঘের নির্দেশ উপেক্ষা করে অন্যায়ভাবে একটি সার্বভৌম দেশের উপর নেকড়ে বাঘের ন্যায় ঝাঁপিয়ে পড়ে লুটতরাজ, হত্যা, ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছে। দেশগুলো

সম্মানিত ইসলামী শরীয়ত উনার দৃষ্টিতে এলকোহল


একজন ধার্মিক মাত্রই এলকোহল ভীতি রয়েছে। এলকোহল বা মদ পবিত্র কুরআন শরীফ উনার পবিত্র আয়াত শরীফ উনার মাধ্যমে নিষিদ্ধ হবার পর থেকেই বিবেকবান মানুষের কাছে এটা পরিত্যাজ্য। কিন্তু এ এলকোহলের ধর্ম বা বৈশিষ্ট্য কি? এলকোহল মাত্রেই কি হারাম! মদতো একটি বিশেষ

টিকফা চুক্তির পেটেন্ট আইন মানতে হলে সমস্যা কী?


পেটেন্ট কোন প্রতিষ্ঠানকে মেধাসত্ত্ব দিয়ে দেয়। ফলে সে সেই মেধাসত্ত্বের ভিত্তিতে সেই পেটেন্টের সাথে সম্পর্কিত যে কোন বাণিজ্যে সে রয়্যালটি দাবী করতে পারে। যেমন নিমের পেটেন্ট করা আছে আমেরিকার তাই নিম গাছ থেকে উৎপাদিত যে কোন পণ্যে সে উৎপাদক প্রতিষ্ঠানের কাছে

টিকফা কি? কেন আমরা টিকফা চুক্তির বিরোধিতা করি?


‘টিফা’ বা ‘টিকফা’-এর বিষয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী গত কিছুদিন পূর্বে গার্মেন্টস এক্সেসরিজ এবং প্যাকাজিং উৎপাদকদের একটি অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেবার সময় জানিয়েছে যে, যুক্তরাষ্ট্রের সাথে বাংলাদেশ ‘টিকফা’ চুক্তি স্বাক্ষর আমেরিকার বাজারে জি এস পি সুবিধা অক্ষুন্ন রাখার জন্য জরুরী হয়ে পড়েছে। চুক্তিটিকে চূড়ান্ত আকার

মার্কিন সাম্রাজ্যের অনিবার্য পতন (১)


বর্তমানে মার্কিন ডলার গোটা বিশ্বের জন্য একমাত্র আন্তর্জাতিক মুদ্রায় পরিণত হয়েছে। আর এই মুদ্রাটি ছাপা হয় একমাত্র যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় টাঁকশালে। যুক্তরাষ্ট্র উন্নয়নশীল দেশগুলোকে ঋণ দিতো। আবার এটাও তারা জানতো এদেশগুলো ঋণ পরিশোধ করতে পারবে না। আর এই ঋণ পরিশোধ করতে না

বিশ্ব মুনাফিক সউদীকে চিনুন: যুগে যুগে মুসলমানদের পতন ঘটেছে মুসলমানদের মধ্যে গাদ্দারদের কারণেই


বর্তমান সউদীকে চিনতে হলে, বুঝতে হলে অতীত ইতিহাসে ফিরে যেতে হবে। ইসলামের গাদ্দার নামধারী মুসলমানরা ইহুদী খ্রিস্টানদের দালাল হয়ে পবিত্র ইসলাম ও হক্ব পন্থী মুসলমানদের কতটা ক্ষতিগ্রস্থ করেছে, এমনকি আজকের মুমুর্ষ ইসলাম এবং সেই স্বর্ণযুগের ইসলামের কতটা তফাৎ সৃষ্টি করেছে; সেই

আমেরিকায় আইফোনের জন্য প্রাণ হারাল পাকিস্তানি তরুন!!!


গত ১২ জুলাই শুক্রবার ভোররাতে সেহেরির সময় মেলোরি এভিনিউতে নিজের বাড়ির সামনে এক ছিনতাইকারী  গুলি করে হত্যা করে মোহাম্মদ চৌধুরী (১৯) নামের পাকিস্তানি তরুনকে। মোহাম্মদ চৌধুরীর বন্ধু সাইদ মোহাম্মদের ভাষ্যে, সেলফোনের কারণেই প্রাণ দিতে হলো তার বন্ধুকে। সাঈদ জানান, রাত সাড়ে তিনটার দিকে