Posts Tagged ‘ঈদ’

আহলান-সাহলান ঈদে বিলাদতে সাইয়্যিদুনা হযরত শাফিউল উমাম আলাইহিস সালাম


আরবী বারো মাস উনাদের মধ্যে এগারতম মাস হচ্ছেন পবিত্র যিলক্বদ শরীফ মাস। চারটি হারাম মাস উনাদের একটি অন্যতম হারাম মাস হচ্ছেন পবিত্র যিলক্বদ শরীফ মাস। সুবহানাল্লাহ! সেই মহাপবিত্র যিলক্বদ শরীফ মাস উনার সুমহান ১৪ই শরীফ তারিখে পবিত্র বিলাদতী শান মুবারক প্রকাশ

পবিত্র ২৩শে জুমাদাল উখরা শরীফ সম্মানিত মুসলমানদের জন্য এক মহান ঈদ বা খুশি মুবারক প্রকাশের দিন


প্রতি বছর ঘুরে আসে আমাদের আইয়্যামুল্লাহ শরীফ বা এই সম্মানিত খুশির দিন। ঈদ মানে আনন্দ, ঈদ মানে খুশি তা আমাদের কারো অজানা নয়। আর উক্ত বরকতময় ঈদ বা খুশির দিনের মধ্যে অন্যতম দিন হলো পবিত্র ২৩শে জুমাদাল উখরা শরীফ। সুবহানাল্লাহ! কারণ

দু’ঈদ ব্যতীত আরও ঈদের অস্তিত্ব এবং কিছু জাহিলের বক্তব্য…


  “তোমাদের জন্য আজ তোমাদের দ্বীনকে পরিপূর্ণ করে দিলাম। তোমাদের প্রতি আমার নিয়ামত পূর্ণাঙ্গ করলাম এবং তোমাদের দ্বীন ইসলামকে পছন্দ করলাম।” (সূরা মায়েদার/৩নং আয়াত শরীফ) হযরত উমর ফারুক রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু বললেন, “যে দিনে এবং যে স্থানে এ আয়াত শরীফ নাযিল

পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উনার কিছু খুছুছিয়ত বা বৈশিষ্ট্য মুবারক


  ১) পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালন করা ছোট-বড়, পুরুষ-মহিলা সকলের জন্যই ফরয। ২) পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ এমন একটি আমল যা জিন ও মানুষ ছাড়া সমস্ত মাখলুকাতই দায়েমীভাবে পালন করে থাকে। ৩) পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফই একমাত্র আমল যা দায়েমীভাবে

পবিত্র ঈদ উনার নামায কখন আদায় করলে সুন্নত আদায় হবে মামদূহ শিখালেন মোরে


  ফযরের ওয়াক্ত শেষ হওয়ার পর ২৩ মিনিট পর্যন্ত মাকরূহ ওয়াক্ত এবং এরপর ঈদ উনার নামাযের ওয়াক্ত শুরু হয় এবং যোহরের ওয়াক্ত শুরু হওয়ার ১ ঘণ্টা পূর্ব পর্যন্ত ঈদ উনার নামায আদায়ের ওয়াক্ত থাকে। অতএব, এই ওয়াক্তের পূর্বে অথবা পরে ঈদ

কেবল পবিত্র ঈদ উনার নামাযই নয়, সকল বিষয়েই রাজারবাগ দরবার শরীফ উনার অনুসরণ করুন


  সারা আলমে রাজারবাগ দরবার শরীফ পবিত্র কুরআন শরীফ, পবিত্র সুন্নাহ শরীফ, পবিত্র ইজমা শরীফ ও পবিত্র ক্বিয়াস শরীফ উনার পূর্ণাঙ্গ মিছদাক। মৌলিক বিষয়ই বলুন আর অমৌলিক বিষয়ই বলুন, যে কোনো বিষয়ে সঠিক ফায়ছালা জানতে ও তার অনুসরণ করতে রাজারবাগ দরবার

দু’ঈদ ব্যতীত আরও ঈদের অস্তিত্ব এবং কিছু জাহিলের বক্তব্য


ওহাবী, খারিজী, জামাতী, ইলিয়াসী তাবলীগ জামাত, দেওবন্দী গংরা বলে “ইসলামের ইতিহাসে এই দু’ঈদ (ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আদ্বহা) ব্যতীত তৃতীয় কোন ঈদ বা ঈদ-ই-মীলাদুন্নবী নামে কোন উৎসবের অস্তিত্ব পূর্বে কখনো ছিলনা বর্তমানেও সংযোজনের সুযোগ নেই।” দেওবন্দীরা চল্লিশ বছর ধরে পবিত্র বুখারী

ইদে বিলাদতে উম্মুল উমাম আম্মা হুযুর ক্বিবলা আলাইহাস সালাম। সকলকে জানাই ঈদ মুবারক……….


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘(হে আমার হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম!) আপনি বলুন, মহান আল্লাহ পাক উনার ফযল ও রহমত মুবারক অর্থাৎ আমাকে পাওয়ার কারণে তোমাদের উচিত ঈদ বা খুশি প্রকাশ করা।’ সুবহানাল্লাহ! অর্থাৎ যেদিন আখিরী রসূল, নূরে

সউদী আরবের সাথে বাংলাদেশের পবিত্র রোজা ও ঈদ পালনের বিষয়টি একেবারেই অবান্তর এবং সম্মানিত শরীয়ত বিরোধী।


যামানার লক্ষ্যস্থল ওলীআল্লাহ, যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, ইমামুল আইম্মাহ, মুহইউস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, মুজাদ্দিদে আ’যম, ক্বইয়ূমুয যামান, জাব্বারিউল আউওয়াল, ক্বউইয়্যূল আউওয়াল, সুলত্বানুন নাছীর, হাবীবুল্লাহ, জামিউল আলক্বাব, আওলাদে রসূল, মাওলানা সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম তিনি বলেন, সম্মানিত শরীয়ত অনুযায়ী চাঁদ

সৃষ্টির সূচনাতেই সাইয়্যিদাতু নিসায়ি আহলিল জান্নাহ সাইয়্যিদাতুনা হযরত যাহরা আলাইহাস সালাম উনার বেমেছাল অনন্য খুছূছিয়াত মুবারক আবুল বাশার সাইয়্যিদুনা হযরত আদম আলাইহিস সালাম তিনি এবং উম্মুল বাশার সাইয়্যিদাতুনা হযরত হাওয়া আলাইহাস সালাম তিনি অবলোকন করেন


এই সম্পর্কে ‘নুযহাতুল মাজালিস’-এ বর্ণিত রয়েছে, قال الكسائي وغيره لما خلق الله آدم خلق من ضلعه الأيسر حواء وهو في الجنة وأودعها حسن سبعين حوراء فصارت حواء بين الحور العين كالقمر بين الكواكب وكان آدم نائما فلما استيقظ مد يده إليها

এক নজরে সাইয়্যিদাতু নিসায়িল আলামীন, সাইয়্যিদাতু নিসায়ি আহলিল জান্নাহ, উম্মু আবীহা সাইয়্যিদাতুনা হযরত যাহরা আলাইহাস সালাম উনার সম্মানিত পরিচিতি মুবারক


আফদ্বলুন নিসা ওয়ান নাস বা’দা রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, সাইয়্যিদাতু নিসায়িল আলামীন, সাইয়্যিদাতু নিসায়ি আহলিল জান্নাহ, উম্মু আবীহা, বিনতু রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সাইয়্যিদাতুনা হযরত ফাত্বিমাতুয যাহরা আলাইহাস সালাম তিনি হচ্ছেন নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া

ঈদ মোবারক… ২০শে জুমাদাল ঊখরা শরীফ মোবারক…


আজ বাদ মাগরিব থেকে শুরু হয়েছে পবিত্র ২০শে জুমাদাল ঊখরা শরীফ। আজকের দিনে সাইয়্যিদাতুনা হযরত ফাতিমাতুয যাহরা আলাইহাস সালাম তিনি উনার বিলাদতী শান মুবারক প্রকাশ করেন। সুবহানাল্লাহ! তাই আজকের দিনটি হচ্ছে সমস্ত মুসলমান উনাদের জন্য খুশির দিন, আনন্দের দিন। সকল মুসলমান