Posts Tagged ‘উনার’

পবিত্র আশূরা মিনাল মুহররম শরীফ উনার বিশেষ আমলসমূহ এবং ফযীলত মুবারক


পবিত্র মুহররমুল হারাম শরীফ মাস উনার উল্লেখযোগ্য ও শ্রেষ্ঠতম দিন হচ্ছে ১০ই মুহররমুল হারাম শরীফ পবিত্র আশূরা শরীফ উনার দিন। এই মুবারক দিনটি বিশ্বব্যাপী এক আলোচিত দিন। কেননা সৃষ্টির সূচনা হয় এ দিনে এবং সৃষ্টির সমাপ্তিও ঘটবে এই দিনে। বিশেষ বিশেষ

ইমামুল আউওয়াল মিন আহলি বাইতি রসূলিল্লাহি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, আমীরুল মু’মিনীন সাইয়্যিদুনা হযরত কাররামাল্লাহু ওয়াজহাহূ আলাইহিস সালাম উনার সংক্ষিপ্ত পবিত্র সাওয়ানেহ উমরী মুবারক


হযরত আহলে বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদের মর্যাদা সম্পর্কে পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “(হে আমার হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! আপনি জানিয়ে দিন, আমি তোমাদের নিকট কোনো বিনিময় চাচ্ছি না। আর চাওয়াটাও স্বাভাবিক

ইমামুল আউওয়াল সাইয়্যিদুনা হযরত কাররামাল্লাহু ওয়াজহাহূ আলাইহিস সালাম উনার সম্মানিত খিলাফত উনার দায়িত্ব মুবারক গ্রহণ


সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল আউওয়াল মিন আহলি বাইতি রসূলিল্লাহি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার চাচাতো ভাই। অপরদিকে নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার আদরের দুলালী আন নূরুর রবি’য়াহ

সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উনার বিরোধিতাকারীরা পঁচে-গলে আকৃতি বিকৃতি হয়ে মারা যাবে ॥ এর নিকৃষ্ট উদাহরণ শায়খুল হদস আজিজুল হক, যা তার ছেলে নিজ মুখেই স্বীকার করেছে


যারা সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খতামুন নাবিইয়ীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে সাধারণ মানুষ বলে দাবি করে এবং পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উনার বিরোধিতা করে তারা মূলত আবু লাহাবের ক্বায়িম-মাক্বাম এবং তার মতোই লা’নতপ্রাপ্ত। যার কারণে

পবিত্র কুরবানী উনার পশু যবেহ করার ছহীহ তরীক্বা বা নিয়ম


পবিত্র কুরবানী উনার পশুর মাথা দক্ষিণ দিকে এবং পা পশ্চিম দিকে রেখে অর্থাৎ ক্বিবলামুখী করে শোয়ায়ে পূর্ব দিক থেকে চেপে ধরতে হবে, তারপর কুরবানী করতে হবে। আর কুরবানী করার সময় খেয়াল রাখতে হবে যে, সীনার উপরিভাগ এবং রক্তনালীর মাঝামাঝি স্থানে যেন

পবিত্র রমাদ্বান শরীফ-উনার জরুরী মাসয়ালা মাসায়েলগুলো সংক্ষেপে জেনে নিন


পবিত্র মাহে রমাদ্বান শরীফ মাসতো আসলো! রমাদ্বান শরীফ এর মাসায়ালা মাসায়েল সমূহ স্মরণ আছে কি? যেহেতু এ মাস একটি পবিত্র মাস, আত্ম সংযমের মাস, সূতরাং অতি প্রয়োজনীয় কিছু মাসায়ালা মাসায়েল এখানে দেয়া হল- রোযা ফরয হওয়ার শর্তাবলী: রোযা ফরয হওয়ার জন্য

সাইয়্যিদাতুন নিসায়িল আলামিন, হযরত যাহরা আলাইহাস সালাম উনার মুবারক বিছাল শরীফ পবিত্র ৩রা রমাদ্বান শরীফ


সাইয়্যিদাতুন নিসায়িল আলামিন, হযরত যাহরা আলাইহাস সালাম উনার মুবারক বিছাল শরীফ হিজরী ১১ সনে ৩রা রমাদ্বান শরীফ-এ সোমবার বাদ আছর । এ উপলক্ষে উনার মুবারক জীবনী থেকে সংক্ষিপ্ত অংশ উপস্থাপন করা হলো। পরিচিতি: বিশ্বের সকল মহিলার সাইয়্যিদ, রসূলুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া

যে ব্যক্তি পবিত্র আশূরা শরীফ উনার বরকতময় দিন তার পরিবার পরিজনের জন্য ভালো খাদ্যের ব্যবস্থা করবে মহান আল্লাহ পাক তিনি তাকে এক বৎসরের জন্য সচ্ছলতা দান করবেন।


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘তোমরা খাও, পান করো, তবে অপচয় করো না।’ পহেলা মুহররম শরীফ, পহেলা বৈশাখ, পহেলা জানুয়ারিতে ভালো বা বিশেষ খাবারের ব্যবস্থা করা ও খাওয়ানোর মধ্যে আলাদা কোনো ফযীলত বা বরকত নেই। অথচ যে ব্যক্তি পবিত্র

পবিত্র আশূরা শরীফ উনার পবিত্র ফাযায়েল ফযিলত ও আমল সম্পর্কে


নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ করেন, তোমরা (হাদীছ শরীফ-এ বর্ণিত আশূরার আমলগুলো করে) আশূরা মিনাল মুহররমকে সম্মান করো। প্রত্যেক বান্দা-বান্দি ও উম্মতের জন্য দায়িত্ব-কর্তব্য হচ্ছে-আশূরা উপলক্ষে দুটি রোযা রাখা, রোযাদারকে ইফতারি করানো, আশূরার দিন আশূরার

হুযুরপাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মুবারক শানে আবারো সৃষ্টির নিকৃষ্টতম বেয়াদবী!!! এ অবস্থায় কোন মুসলমান নিশ্চুপ থাকলে সে কাফির বলে গন্য হবে।


ঘটনার সংক্ষিপ্ত বর্ননাঃ নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ, হুযূরপাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মুবারক শানে সৃষ্টিজগতের নিকৃষ্টতম বেয়াদবী প্রকাশ করলো না’লতপ্রাপ্ত জাতি ইহুদীর বংশধর, কুলাঙ্গার সন্ত্রাসী আমেরিকার ছত্রছায়ায় বেড়ে উঠা কুলাঙ্গার, জাহান্নামের কীট, মিশরীয় বংশদ্ভুত আমেরিকান ইহুদী স্যাম বেসিল ।নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ,

উম্মুল মু’মিনীন হযরত খাদীজাতুল কুবরা আলাইহাস সালাম উনার মাধ্যমেই নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পবিত্র বংশ জারি রয়েছে


উম্মুল মু’মিনীন হযরত খাদীজাতুল কুবরা আলাইহাস সালাম উনার বৈশিষ্ট্য ও মর্যাদাসমূহের মধ্যে অনন্যতম একটি মর্যাদা হলো, তিনিই একমাত্র উম্মুল মু’মিনীন আলাইহাস সালাম উনার মুবারক রেহেম শরীফ-এ নূরে মুজাস্সাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সব ক’জন আওলাদ বা সন্তান

হযরত বড়পীর ছাহেব রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার পবিত্র বিছাল শরীফ হচ্ছে ‘১১ই রবীউছ ছানী’ ৬ই আশির-১৩৭৯ শামসী সন, ৫ই মার্চ-২০১২ ঈসায়ী সন, যা ‘পবিত্র ফাতিহায়ে ইয়াযদাহম’ নামে মশহুর।


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ করেন, ‘সাবধান! নিশ্চয় যাঁরা মহান আল্লাহ পাক উনার ওলী উনাদের কোনো ভয় নেই এবং চিন্তা-পেরেশানীও নেই।’ মহান আল্লাহ পাক উনার খালিছ ওলী গাউছুল আ’যম, সাইয়্যিদুল আউলিয়া হযরত বড়পীর ছাহেব রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার পবিত্র বিছাল শরীফ হচ্ছে