Posts Tagged ‘বরকত’

দরূদ শরীফ পাঠ করার বরকত


ছহেবে ওয়ামা আরসালনাকা ইল্লা রহমাতাল্লিল আলামীন, খাজিনাতুর রহমত, ছহিবুল বারাকাত, ছহেবে তাতমাইন্নুল ক্বুলূব হুজুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-এর প্রতি দরূদ শরীফ পাঠ করার বরকত —————————————————————————— من صلى على صلوة واحدة صلى الله عليه عشرا. অর্থঃ- “যে ব্যক্তি আমার প্রতি এক

মহান আল্লাহ পাক উনার খাছ রহমত, বরকত, পেতে সরকারের উচিত বাংলাদেশের সমস্ত মসজিদে পবিত্র মিলাদ শরীফ পাঠ বাধ্যতামূলক করা


যিনি খালিক্ব যিনি মালিক যিনি রব মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, “নিশ্চয়ই মহান আল্লাহ পাক তিনি নিজে এবং উনার সমস্ত হযরত ফেরেশতা আলাইহিমুস সালাম উনারা নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম

কায়িনাতের বুকে মহান আল্লাহ পাক উনার এক অনন্য বেমেছাল মহাসম্মানিত বরকতপূর্ণ ফযীলতপূর্ণ দিবস হচ্ছেন ২২শে জুমাদাল ঊলা শরীফ


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, وَذَكِّرْهُمْ بِاَيَّامِ اللهِ اِنَّ فِىْ ذٰلِكَ لَاٰيَاتٍ لِكُلِّ صَبَّارٍ شَكُورٍ. অর্থ: “আর (হে আমার হাবীব, সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খাতামুন নাবিইয়ীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম!) আপনি তাদেরকে (সমস্ত জিন-ইনসান,

হামিলু লিওয়ায়িল হামদ, আকরামুল আউওয়ালীন ওয়াল আখিরীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার হাত মুবারক উনার স্পর্শ মুবারকে খাদ্যদ্রব্যে অভাবনীয় বরকত (পর্ব ৮)


(৮) হযরত ইমাম বুখারী রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি বর্ণনা করেন। হযরত আবু হুরায়রাহ রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু তিনি মহান আল্লাহ পাক উনার কসম করে বললেন, আমার ক্ষুধার তাড়না সহ্য করার অত্যধিক ক্ষমতা ছিলো। আমি ক্ষুধার তাড়নায় পেটে পাথর বাধতাম। একদা আমি অত্যধিক ক্ষুধার্ত

হামিলু লিওয়ায়িল হামদ, আকরামুল আউওয়ালীন ওয়াল আখিরীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার হাত মুবারক উনার স্পর্শ মুবারকে খাদ্যদ্রব্যে অভাবনীয় বরকত (পর্ব ১)


(১) হযরত আনাস ইবনে মালিক রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু তিনি বলেন, আমি একদা নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার নিকট গিয়ে দেখলাম, তিনি হযরত ছাহাবায়ে কিরাম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুম উনাদেরকে নছীহত মুবারক করছেন। উনার পেট মুবারক উনার উপরে

রহমত, বরকত, সাকীনা এবং মাগফিরাতের খাযিনা নিয়ে


আবারো এক বছর পর আমাদের মাঝে ফিরে এসেছে সাইয়্যিদুশ শুহূর মাহে রবীউল আউওয়াল শরীফ। পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, “পবিত্র রমাদ্বান শরীফ আসলে উনার সম্মানার্থে রহমতের দরজাসমূহ খুলে দেয়া হয় এবং অবিরত ধারায় রহমত বর্ষিত হতে থাকে।” যদি

পবিত্র ১১ই রবীউছ ছানী শরীফ দিনটি উম্মাহর জন্য রহমত, বরকত, সাকীনা হাছিলের মহান দিন


পবিত্র রবীউছ ছানী শরীফ মাস উনার ১১ই তারিখ দিনটি উম্মাহর জন্য মহান আল্লাহ পাক উনার রহমত, বরকত, সাকীনা মুবারক নাযিল ও হাছিলের মহান দিন। কারণ এ দিনটি মহান আল্লাহ পাক উনার মাহবুব, মক্ববুল, মুখলিছ, মশহুর মনোনীত ও লক্ষ্যস্থল ওলী, গাউছুল আ’যম,