Posts Tagged ‘বাল্যবিবাহ’

বাল্যবিবাহের বিরোধিতা করলে মুসলমান থাকা যায় না 


পবিত্র কুরআন শরীফ উনার মধ্যে স্বয়ং যিনি খালিক মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, সাইয়্যিদুল আম্বিয়া ওয়াল মুরসালীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি তোমাদের জন্য যা নিয়ে এসেছেন বা তিনি তোমাদেরকে যা দিয়েছেন

পবিত্র কুরআন শরীফ ও পবিত্র হাদীছ শরীফ থেকে বাল্যবিবাহের স্পষ্ট দলীল


পবিত্র সূরা নিসা শরীফ উনার ৩নং পবিত্র আয়াত শরীফ উনার মধ্যে মহান আল্লাহ পাক ইরশাদ মুবারক করেন, وَإِنْ خِفْتُمْ أَلَّا تُقْسِطُوا فِي الْيَتَامَىٰ فَانكِحُوا مَا طَابَ لَكُم مِّنَ النِّسَاءِ مَثْنَىٰ وَثُلَاثَ وَرُبَاعَ অর্থ: “আর যদি তোমরা ভয় কর যে, ইয়াতীম মেয়েদের

বাল্যবিবাহ বিরোধীরা কাফির, মুনাফিক ও উলামায়ে ‘সূ’


প্রথমতঃ সাইয়্যিদুল আম্বিয়া ওয়াল মুরসালীন, রহমাতুল্লিল আলামীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার বিরোধিতা করার জন্যেই ইহুদী, নাছারারা তথা তাবৎ কাফির-মুশরিকরা বাল্যবিবাহের বিরোধিতা করে আসছে। যেমন- ১৯২৯ সালে ব্রিটিশ সরকার বাল্যবিবাহের বিরোধিতা করে বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন প্রণয়ন

বাল্যবিয়ের বিশেষ আইন নিয়ে চেঁচামেচির কিছু নাই: শেখ হাসিনা


  বাল্যবিয়ে নিরোধ আইন পরিবর্তন করে অপ্রাপ্তবয়স্কদের বিশেষ ক্ষেত্রে বিয়ের সুযোগ রেখে করা বিশেষ আইনের বিরুদ্ধে ওঠা সমালোচনার জবাব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। সোমবার গণভবনে দলের এক সভায় আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা বলেন, “বিবাহের বয়স নির্ধারণ করা.. এটা কিন্তু আমি ব্রিটিশ আইন

১৩ বছরের শিশু মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে স্বীকৃতি পেলে ১৮ বছরের কমবয়সের কিশোর কেন বিবাহের স্বীক্বীতি পাবে না?


মুক্তিযোদ্ধার সংজ্ঞা ও বয়স নির্ধারণ করে গত ৮ নভেম্বর (২০১৬ঈসায়ী ) প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়। প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়, মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে নতুনভাবে অন্তর্ভূক্তির ক্ষেত্রে মুক্তিযোদ্ধার বয়স ২৬-০৩-১৯৭১ তারিখে ন্যূনতম ১৩ বছর হতে হবে। ১৯৭১ সালে ১৩ বছর বয়সী শিশুরা যারা

উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত ছিদ্দীক্বা আলাইহাস সালাম উনার বাল্যাবস্থায় আক্বদ বা নিকাহ মুবারক সম্পন্ন হওয়ার ব্যাপারে যারা চু-চেরা করেছে; তারা চরম মিথ্যাবাদী, মুনাফিক ও আশাদ্দুদ্ দরজার জাহিলও বটে


  সম্প্রতি কিছু মুনাফিক শ্রেণীর লোক তারা পেপার-পত্রিকায়, বই-পত্রে, ইন্টারনেটে উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত আয়িশা ছিদ্দীক্বা আলাইহাস সালাম উনার বয়স মুবারক নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। তারা একথা ছড়াচ্ছে যে, “নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সাথে উম্মুল মু’মিনীন

বাল্যবিবাহ মুক্ত জেলা উপজেলা ঘোষণা করার অন্তরালে আসল রহস্য কি?


ইদানীং পত্র-পত্রিকা-মিডিয়াতে একটি সংবাদ খুব হাইলাইট করে প্রচার করা হয়। সেটা হলো- আজ অমুক জেলা, কাল অমুক উপজেলা কিংবা ইউনিয়নকে বাল্যবিবাহ মুক্ত হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। অর্থাৎ দ্বীন ইসলাম বিষয়ে জাহিল প্রশাসন এবং বিদেশী বিজাতি এনজিও গং খুব তৎপরতার সাথে জেলা,

খাছ সুন্নতী বাল্যবিবাহ বন্ধে প্রশাসনের অতি-তৎপরতা মুসলিম সমাজে গণ বিস্ফোরণ সৃষ্টি করতে পারে


গত কয়েকদিন আগে পত্র-পত্রিকা বিশেষ করে ইহুদী-নাছারাদের দোসর অনলাইন পত্রিকাগুলো একটি খবর খুব হাইলাইট করে প্রচার করেছে। যেন বিশাল এক রাজ্য জয় করার মতো খবর। খবরটির মূল বিষয় ছিলো- মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার আটিগ্রামে বাল্যবিয়ে করানোর দায়ে মোশারফ হোসেন (৪৯) নামে এক

উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত ছিদ্দীক্বা আলাইহাস সালাম উনার বাল্যাবস্থায় আক্বদ বা নিসবাতুল আযীম মুবারক সম্পন্ন হওয়ার ব্যাপারে যারা চু-চেরা করেছে; তারা চরম মিথ্যাবাদী, মুনাফিক ও আশাদ্দুদ্ দরজার জাহিলও বটে


  সম্প্রতি কিছু মুনাফিক শ্রেণীর লোক তারা পেপার-পত্রিকায়, বই-পত্রে, ইন্টারনেটে উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত আয়িশা ছিদ্দীক্বা আলাইহাস সালাম উনার বয়স মুবারক নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। তারা একথা ছড়াচ্ছে যে, “নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সাথে উম্মুল মু’মিনীন

বাল্যবিবাহ নিষিদ্ধ করা, নির্দিষ্ট স্থানে পবিত্র কুরবানী করা, মেশিনে জবাই করা, ১৮ বছরের বয়সের নিচে কেউ জবাই করতে না পারা- উল্লেখিত সিদ্ধান্তগুলোর স্বপক্ষের ব্যক্তিবর্গ তারা সরকারি হোক অথবা বেসরকারি হোক তাদেরকে অবশ্যই পবিত্র কুরআন শরীফ, পবিত্র হাদীছ শরীফ, পবিত্র ইজমা শরীফ ও পবিত্র ক্বিয়াস শরীফ থেকে দলীল পেশ করতে হবে। নচেৎ তাদের সবাইকে উল্লিখিত দলীলবিহীন মনগড়া ইসলামবিরোধী কর্মকাণ্ডের জন্য ইহকাল ও পরকাল অর্থাৎ উভয়কালেই কঠিন কাফফারা আদায় করতে হবে।


যামানার লক্ষ্যস্থল ওলীআল্লাহ, যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, ইমামুল আইম্মাহ, মুহইউস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, মুজাদ্দিদে আ’যম, ক্বইয়ূমুয যামান, জাব্বারিউল আউওয়াল, ক্বউইয়্যূল আউওয়াল, সুলত্বানুন নাছীর, হাবীবুল্লাহ, জামিউল আলক্বাব, আওলাদে রসূল, মাওলানা সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম তিনি বলেন, মহান আল্লাহ পাক তিনি

সম্মানিত পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনার উপর হস্তক্ষেপ করা কারো জন্য জায়িয নেই। সে যেই হোক অর্থাৎ রাজা হোক, বাদশাহ হোক, রাষ্ট্রপতি হোক, প্রধানমন্ত্রী অথবা মন্ত্রী, আমীর, ওমরাহ সে যেই হোক না কেন।


যামানার লক্ষ্যস্থল ওলীআল্লাহ, যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, ইমামুল আইম্মাহ, মুহইউস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, মুজাদ্দিদে আ’যম, ক্বইয়ূমুয যামান, জাব্বারিউল আউওয়াল, ক্বউইয়্যূল আউওয়াল, সুলত্বানুন নাছীর, হাবীবুল্লাহ, জামিউল আলক্বাব, আওলাদে রসূল, মাওলানা সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম তিনি বলেন, বাংলাদেশের ৯৮ ভাগ মানুষ

যে কারণে কাফির-মুশরিকরা মুসলিম দেশগুলোতে বাল্যবিবাহের বিরুদ্ধে প্রচারণা চালায়


অাজকাল দেখা যায় মুসলমান দেশগুলোতে বাল্যবিবাহের বিরুদ্ধে প্রচারণা চালানো হয়। কি কারণে এই প্রচারণা ? অাসুন জেনে নেই এর কিছু কারণঃ ১. বাল্য বিবাহ উঠে দিলে মুসলমানদের জনসংখ্যা কমানো যাবে। ২. দেশগুলোতে জনসংখ্যার ভারসাম্য নষ্ট হবে ৩. দেশে একসময় কর্মক্ষম লোকের