Posts Tagged ‘ভারত’

পানির জন্য ভারতের দরকার নেই, নদী ড্রেজিংয়েই পর্যাপ্ত পানির যোগান দেয়া সম্ভব


বাংলাদেশ নদীমাতৃক দেশ। প্রতিবছর শুষ্ক মৌসুমে ভারত কৃত্রিম বাঁধ সৃষ্টি করে আমাদের নদীগুলো বালুচরে পরিণত করছে। এর ফলে আমাদের ফসল-ফলাদী ব্যাপকভাবে খরায় আক্রান্ত হয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। আসলে পানির জন্য ভারতের দ্বারস্থ হওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই। আমাদের নদীগুলো ১০০-১৫০ হাত গভীর করা

ভারতের প্রভাব বলয়ের বাইরে চলে যাচ্ছে নেপাল! বাংলাদেশেরও উচিৎ হবে নেপালের কাছ থেকে শিক্ষা গ্রহণ করা।


নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি এখন পাঁচ দিনের চীন সফরে রয়েছে। চীনের গণমাধ্যমগুলো তার এই সফরকে অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে প্রচার করছে। সরকারি পত্রিকা গ্লোবাল টাইমস লিখেছে যে নেপাল সেদেশে আর্থিক বিনিয়োগ আর অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পগুলোকে চূড়ান্ত রূপ দিতে চাইছে। তবে পত্রিকাটি

১৯৬৫ সালের যুদ্ধ, বর্তমান দেশ এবং আত্মোপলব্ধি


১৯৬৫ সালের ২রা জানুয়ারি আইউব খান যখন ফাতেমা জিন্নাহকে পরাজিত করে নিজ অবস্থান সুদৃঢ় করে, তখন তার দক্ষিণ এশিয়ার নেতা হবার উগ্র বাসনা পেয়ে বসে। সিআইএ তকে তকে ছিল। সিআইএ একটি টোপ ফেলে এবং আইউব খান তা গিলে ফেলে। এদিকে সিআইএ

যদি গোবর-গোচনা খাওয়া থেকে বিরত থাকতে চান, তাহলে নাপাক হিন্দুদের হোটেলে খাওয়া-দাওয়া থেকে বিরত থাকুন


মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, “নিশ্চয়ই মুশরিকরা (হিন্দুরা) নাপাক”। নাপাক হিন্দুদের জাতিগত অভ্যাস ধর্মের পবিত্রতার নামে খাবার জাতীয় মিষ্টি, জিলাপী, দই, রসগোল্লা ইত্যাদিতে গোবর-গোচনা ছিটানো যা আমি প্রত্যক্ষদর্শী। নাপাক হিন্দুরা গরুকে তাদের মা মনে

সরকার কি সুন্দরবন ধ্বংস করে ভারতকে খুশি করতে চায়?


সরকার গঠন করা হয় একটি দেশ সুচারুরূপে ও সুপরিকল্পিতভাবে পরিচালনার জন্য। অর্থাৎ সরকারের কাজই হচ্ছে- কিভাবে দেশ ও দেশের মানুষের, জীবন, ঐতিহ্য, পরিবেশ রক্ষা করা যায়, সে উদ্দেশ্যে যেকোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করা। এটাই একটি দেশের সরকারের প্রধান লক্ষ্য। কিন্তু আজ অবধি

দিল্লির পাঁচতারা হাসপাতালে ভুল অপারেশন দিল্লির পাঁচতারা হাসপাতালে ভুল অপারেশন


ভালো চিকিৎসা পাওয়ার আশাতেই বেশি টাকা খরচ করে মানুষ নামিদামি হাসপাতালে যায়। কিন্তু পাঁচতারা হাসপাতাল যদি এমন কাণ্ড করে তাহলে আর কার ওপর আস্থা রাখা যায়? দিল্লির এমন একটি নামি হাসাপাতালে গিয়ে উল্টো বিপদে পড়েছেন রবি রাই (২৪) নামে এক তরুণ।

ভারতে জোর করে ধর্মান্তর করা হয়েছে : মার্কিন রিপোর্ট


ধর্মনিরপেক্ষ ভারতেও গত বছর ধর্মের নামে একাধিক খুন, দাঙ্গা, জোর করে ধর্মান্তরের মতো ঘটনা ঘটেছে। আমেরিকায় ২০১৫ সালের আন্তর্জাতিক ধর্মীয় স্বাধীনতা-সংক্রান্ত একটি বার্ষিক রিপোর্টে প্রকাশিত হয়েছে এমনটাই। মঙ্গলবার এই রিপোর্টটি প্রকাশ্যে আনে মার্কিন প্রশাসন। রিপোর্টে বলা হয়েছে, অধিকাংশ ক্ষেত্রেই সংখ্যাগরিষ্ঠ সম্প্রদায়ের

দেশদ্রোহী হিন্দু সমাজ


হিন্দুদের অবস্থান ক্লিয়ার । তারা চায় বাংলাদেশে আইএস আছে সেটা প্রমাণ করতে এবং তার মাধ্যমে বাংলাদেশে বিদেশী শক্তির আগমণ ঘটাতে। আমি বলবো, ৫-১০ জন মারা গেলে যদি বিদেশী শক্তির হস্তক্ষেপ লাগে, তবে মুম্বাই হামলার সময় যখন ১৭৫ জন মারা গেলো তখন

গুলশানের হামলা কেয়ামত নিয়ে আসবে না


গুলশানে হামলার জন্য এত চিন্তিত হওয়ার কিছু নাই। এতে বাংলাদেশের কিছু আসে যায় নাই। এর জন্য আমেরিকা বা ভারতের এত হা-হুতাশ করারও কিছু নাই। বাংলাদেশী বাহিনী এ ধরনের হামলা সামাল দেওয়ার জন্য যথেষ্ট এবং তাদের পূর্ণ শক্তি রয়েছে। এবং এটা বাংলাদেশী

ছোট ছোট হিন্দু বাচ্চাদের ট্রেনিং স্কুল খুলে সন্ত্রাসবাদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে


ভিডিওটি দেখতে পারেন। ভারতের উত্তর প্রদেশে মুসলমানদের বিরুদ্ধে লড়াই করতে ছোট ছোট হিন্দু বাচ্চাদের ট্রেনিং স্কুল খুলে প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। এভাবে করেই ভারতে প্রাতিষ্ঠানিক উপায়ে দাঙ্গা ছড়িয়ে দেওয়া হয়। উল্লেখ্য, ভারতের ভেতর উত্তর প্রদেশেই সবচেয়ে বেশি মুসলিম নিধনে দাঙ্গা সংগঠিত হয়।

ইসরায়েলের সাথে ভারতের সম্পর্ক


ইসরায়েল প্রতিষ্ঠার সময় তাদের আজকের মিত্র ভারত তাদের বিপক্ষে ছিল বেশ কিছু কারণে। কারণ সদ্য দেশ ভাগ হওয়া দেশটি চায়নি তাদের মোটামুটি সংখ্যার মুসলিমের বিপক্ষে যেতে! গান্ধী যদিও বা ইসরায়েলের মৌলিক ভুখন্ডের পক্ষে ছিলেন কিন্তু ভারত ১৯৪৭ সালে ফিলিস্তিনের বিভক্তিতে সমর্থন

আইএস নিধনের জন্য ভারতে হামলা করা হোক


ভারত বেশ কিছুদিন থেকেই বাংলাদেশকে একটি সন্ত্রাসী রাষ্ট্র হিসেবে প্রমাণ করার জন্য উঠে পরে লেগেছিল। কারণ বাংলাদেশে ‘আইএস’ আছে এটি প্রমাণ করতে পারলে আইএস নিধনের নামে বাংলাদেশের ভেতরে ঢুকার সুযোগ পাবে ভারত। এজন্য তারা ‘আইএসে’র কথিত অজুহাত দ্বার করিয়েছিল। বাংলাদেশের বিচ্ছিন্ন