Posts Tagged ‘মীলাদ শরীফ’

সুমহান পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ ও পবিত্র মীলাদ শরীফ-ক্বিয়াম শরীফ সর্বত্র জারী করার গুরুত্ব ও ফযীলত


পবিত্র মীলাদ শরীফ উনার লুগাতী বা আভিধানিক অর্থ বিলাদত (জন্ম) শরীফ উনার সময়। আর ইছতিলাহী বা ব্যবহারিক অর্থ সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খাতামুন নাবিয়্যীন, রহমতুল্লিল আলামীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পবিত্র বিলাদত শরীফ উপলক্ষে খুশি

যারা পবিত্র মীলাদ শরীফ উনার বিরোধী তারা কি তাদের সন্তানের জন্মে খুশি প্রকাশ করে না?


আহ! বড়ই আফসুস লাগে যাঁর কারণে কুল-কায়িনাত সৃষ্টি হয়েছে। জান্নাত, জাহান্নাম, পশুপাখি, কীটপতঙ্গ, তরুলতা, আমি আপনিসহ ওই ঈদে মীলাদে হাবীবী বিরোধী পাপাত্মা কুলাঙ্গাররা সৃষ্টি হয়েছে সেই মহান রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার বিলাদতী শান মুবারক

প্রসঙ্গ: মীলাদ শরীফ পাঠকালে ছলাত শরীফ বলার সময় নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার নাম মুবারক না বলে লক্বব মুবারক যথা রসূলিল্লাহ ও হাবীবিল্লাহ বলা এবং সালাম পেশ করার সময় আসসালামু আলাইকুম ইয়া রসূলাল্লাহ, আসসালামু আলাইকুম ইয়া নাবিয়্যাল্লাহ, আসসালামু আলাইকুম ইয়া হাবীবাল্লাহ বলা


  নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি হচ্ছেন আখিরী নবী ও রসূল ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম। উনার আনুষ্ঠানিক সম্মানিত নুবুওওয়াতী ও সম্মানিত রিসালাতী শান মুবারক প্রকাশের পর অতীতের সম্মানিত হযরত নবী-রসূল আলাইহিমুস সালাম উনাদের প্রতি ওহী মুবারক

খায়রুল কুরনে পবিত্র সাইয়্যিদুল আইয়াদ শরীফ পালনের আরও কিছু দলীল 


খলীফা হারুনুর রশীদের যামানায় পবিত্র মীলাদ শরীফ পাঠ করার জন্য এক ব্যক্তি ওলী আল্লাহ হিসাবে আখ্যায়িত হলেন। সুবহানাল্লাহ। আল্লামা সাইয়্যিদ আবু বকর মক্কী আদ দিময়াতী আশ শাফেয়ী রহমতুল্লাহি আলাইহি (ওফাত: ১৩০২ হিজরী) উনার বিখ্যাত “ইয়নাতুল ত্বলেবীন” কিতাবে বর্ণনা করেন, أنه كان

পবিত্র মীলাদ শরীফ পাঠকালে সালাম পেশ করার তরতীব 


পবিত্র মীলাদ শরীফ পাঠকালে সালাম দাঁড়িয়েই দিতে হবে। এটাই মহান আল্লাহ পাক উনার নির্দেশ মুবারক এবং মহান আল্লাহ পাক উনার হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার নির্দেশ মুবারক। যেমন: পবিত্র কুরআন শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে- إِنَّ اللهَ وَمَلَائِكَتَه يُصَلُّوْنَ

পবিত্র কুরআন শরীফ থেকে পবিত্র মীলাদ শরীফ উনার প্রমাণ


পবিত্র কুরআন শরীফে মহান মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, قل بفضل الله وبرحمته فبذالك فليفرحوا هو خير مما يجمعون অর্থ: “হে আমার হাবীব, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! আপনি বলে দিন যে, তারা যে মহান

পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয় সাল্লাম উদযাপন ও পবিত্র মীলাদ শরীফ পাঠ সম্পর্কে- প্রখ্যাত ওলীআল্লাহ ও আলিমে দ্বীন সুলতানুল আরিফীন মুজাদ্দিদে যামান রঈসুল মুফাসসিরীন ওয়াল মুহাদ্দিছীন ওয়াল ফুক্বাহা, আশিকু রসূলিল্লাহ ইমাম আবুল ফদ্বল আব্দুর রহমান জালালুদ্দীন আস সুয়ূতী রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার গুরুত্বপূর্ণ ফতওয়া। (পর্ব-১)


পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উদযাপন ও পবিত্র মীলাদ শরীফ পাঠ সম্পর্কে আল্লামা জালালুদ্দীন সুয়ূতী রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার গুরুত্বপূর্ণ ফতওয়া আলোচনা করার পূর্বে উনার পবিত্র সাওয়ানেহ উমরী বা জীবনী মুবারক সংক্ষিপ্তভাবে হলেও আলোচনা করা জরুরী। এতে উনার ফতওয়ার

একটা ফাসিক-ফুজ্জার মৃত্যুবরণ করার পর তার সম্মানার্থে যদি দাঁড়িয়ে নীরবতা পালন করা হয়, তাহলে যিনি সৃষ্টির মূল উনার সম্মানার্থে পবিত্র মীলাদ শরীফে কেন ক্বিয়াম করা বা দাঁড়ানো যাবে না?


কিছুদিন পূর্বে একজন রবীন্দ্রসঙ্গীত শিল্পী মৃত্যুবরণ করে। মৃত্যুর পর তাকে স্মরণ করে বড় একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে তার সম্মানার্থে সবাই দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করে। অথচ সে কিন্তু তখন তাদের সামনে ছিলো না। আর সারাটা জীবন

পবিত্র মীলাদ শরীফ ও পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ খাইরুল কুরুন বা শুরুতেই ছিলো


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে আব্বাস রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনার থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন যে, একদা তিনি উনার বাড়িতে কিছু লোকজন একত্রিত করে নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পবিত্র বিলাদত

প্রশংসার রীতির একাল-সেকাল


সাইয়্যিদুনা হযরত ফারূক্বে আ’যম (পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনার দ্বিতীয় খলীফা) আলাইহিস সালাম তিনি যখন কোথাও সৈন্য বাহিনী পাঠাতেন, তখন উপদেশ দিতেন- “যদি কোনো এলাকার বা সম্প্রদায়ের আচার- অনুষ্ঠান ইসলামের সাথে, শরীয়তের সাথে বিরোধপূর্ণ না হয়, তবে সে ব্যাপারে যেন শিথিলতা প্রদর্শন

ক্বিয়াম শরীফ পালনের দলীল সমূহ


হাদীছ শরীফ-এ ইরশাদ হয়েছে, হযরত আবু দারদা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু হতে বর্ণিত আছে যে, একদা তিনি রসূলে পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সাথে হযরত আবু আমির আনছারী রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু  উনার গৃহে উপস্থিত হয়ে দেখতে পেলেন যে, তিনি উনার সন্তানাদি

মীলাদ শরীফ পালনের দলীল সমূহ


নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম  উনার যামানাতেই মীলাদ শরীফ ছিলঃ বর্তমানে প্রচলিত মীলাদ শরীফ কারো মনগড়া তৈরিকৃত কোন পদ্ধতি বা নিয়ম নয়। বরং এ নিয়ম স্বয়ং আল্লাহ পাক উনার হাবীব হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার