Posts Tagged ‘রাজাকার’

ঢাকা রাজারবাগ শরীফ উনার সম্মানিত হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার মুবারক শানের খিলাফ অবমাননাকর বক্তব্যের অভিযোগে এনায়েত উল্লাহ আব্বাসীর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের


ইউটিউবে ‘ইসলামী মহা সম্মেলন শীর্ষক আলোচনার প্রধান অথিতি হিসেবে বক্তব্যে এনায়েত উল্লাহ আব্বাসী ঢাকা রাজারবাগ দরবার শরীফ উনার সম্মানিত হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার মুবারক শানের খিলাফ অবমাননাকর বক্তব্যের অভিযোগে সাইবার ট্রাইবুনাল (বাংলাদেশ), ঢাকায় আজ (বৃহস্পতিবার) ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন, ২০১৮-এর

সে যে রাজাকার তা নিজেই স্বীকার করেছে।


  ১০ই সেপ্টেম্বর ২০১৪: বিচারপতি সিনহা তখন বলেঃ “এমন হতে পারে। মুক্তিযুদ্ধের সময় এমন একটা পরিস্থিতি ছিল যে একই বাড়িতে একজন আওয়ামীলীগ ও অন্য একজন পাকিস্তানের সমর্থক ছিল। আমি নিজেও শান্তি কমিটির সদস্য ছিলাম।” প্রধান বিচারপতি বলেঃ “আমি দিনের বেলায় পাকিস্তানী

“আমি দিনের বেলায় পাকিস্তানী সেনাবাহিনীর সাথে থাকতাম, আর রাতে সেসব তথ্য মুক্তিযোদ্ধাদের দিতাম।”


আত্বস্বীকৃত রাজাকার প্রধানবিচারপতি পদে থাকে কি করে?   ১৯৮৮ সালে সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেওয়ার রিট ২৮ বছর পর সচল করে হিন্দু বিচারপতি। কত বিচারক এসে-গেছে কিন্তু কেউ সাহস করেনি। যেইনা হিন্দু বিচারপতি এসেছে একটি স্পর্শকাতর ইস্যুকে সামনে এনেছে। এত

মহান আল্লাহ পাক উনার খাছ রহমত, বরকত, পেতে সরকারের উচিত বাংলাদেশের সমস্ত মসজিদে পবিত্র মিলাদ শরীফ পাঠ বাধ্যতামূলক করা


যিনি খালিক্ব যিনি মালিক যিনি রব মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, “নিশ্চয়ই মহান আল্লাহ পাক তিনি নিজে এবং উনার সমস্ত হযরত ফেরেশতা আলাইহিমুস সালাম উনারা নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম

পবিত্র ঈদে মীলাদুন নবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে বিধর্মীদের কালচার বলা কাট্টা কুফরী


সুলত্বানুল আরিফীন হযরত ইমাম জালালুদ্দীন সুয়ূতী রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি উনার “ওসায়িল ফী শরহি শামায়িল” নামক কিতাবে বলেন, যেকোনো ঘরে অথবা মসজিদে অথবা মহল্লায় মীলাদ শরীফ পাঠ করা হয় বা মীলাদুন্ নবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উদ্যাপন করা হয়, সেখানে অবশ্যই মহান

রাজাকাররা খোলস পাল্টেছিল মাত্র: একদা পাকিস্তানী ভেকধারী সাহিত্যিকরাই আজ ভারতের লেবাস গায়ে হিন্দুয়ানীর বেসাতি করে বেড়াচ্ছে।


“আমাদের বাংলা ভাষায় স্বকীয় আদর্শে সাহিত্য সৃষ্টি করতে হবে, আদর্শ হবে কুরআন শরীফ-এর শিক্ষা, আধার হবে মুসলমানি ঐতিহ্যানুগ আর বিষয়বস্তু হবে ব্যক্তি বা সমাজ অথবা বৃহদার্থে জগৎ ও জীবন। এভাবে আমাদের জাতীয় সাহিত্য ও জাতীয় জীবন গড়ে উঠবে। সাম্প্রতিক সাহিত্যে তরুণ

প্রসঙ্গঃ কসাইয়ের ফাঁসি ও গণতন্ত্র


সরকার ফাঁসি দিয়েছে কসাই রাজাকারকে । জামাত তান্ডব চালাচ্ছে সাধারন মানুষের উপর। এটাই হলো গণতন্ত্র। শাসকগোষ্ঠীরা পরস্পরের বিরোধীতার বলি সাধারন মানুষ। এ জঘন্যতন্ত্রকে এ দলা থু।

চেতনা ব্যবসায়ীদের আরেকটি টাকা খাওয়া রায় এবং একটি প্রতারণার ইতিহাস রচিত


৪২ বছর ধরে যে চেতনার মুলো দেখিয়ে জনগণের সাথে ক্ষমতার ব্যবসা করে আসছে আজ ওই চেতনা টাকার কাছে বিক্রয় হয়ে গেছে। চেতনা ব্যবসার নেতৃত্বদানকারী আওয়ামীরা রাজাকার শিরোমনির ৯০ বছরের কারাদন্ড (জামাই আদর) শাস্তি দিয়ে খুশি হয়। লাখ লাখ লোক হত্যায় নেতৃত্ব

আলহামদুলিল্লাহ! রাজাকার কামরুজ্জামানকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার আদেশ দিয়েছে আদালত


যুদ্ধাপরাধের বিচার নিয়ে তীক্ষ্ণ রাজনৈতিক মেরুকরণ ও সহিংসতার মধ্যে ১৯৭১ সালে সংঘটিত বাঙালি নিধনযজ্ঞে অংশ নেওয়ার দায়ে জামাতের নেতা রাজাকার কামারুজ্জামানকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার আদেশ দিয়েছে আদালত। মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচারে গঠিত আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ বৃহস্পতিবার এই রায় দেয়। ট্রাইব্যুনালের

জামাতের ঘুষ খাওয়া আইনজীবী টবি ক্যাডম্যানকে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি (!) কেন?


রাজাকারদের বিচারের স্রোতের মোর ঘুরাতে ব্রিটিশ আইনজীবী টবি ক্যাডম্যান কে তৈরী করেছিল ধর্মব্যবসায়ী জামাত। কে এই ব্রিটিশ আইনজীবী টবি ক্যাডম্যান? তাকে কেন ঢুকতে দেয়া হলো না বাংলাদেশে? জামাতীদের মুখপত্রগুলো ‘তাকে বাংলাদেশে ঢুকতে দেয়া হয়নি’ বলে যে প্রপাগান্ডা ছড়িয়েছে তার পেছনেই বা কি

কোন আলেমের নয় এক উলামায়ে ‘সু’র দন্ডাদেশ দেয়া হয়েছে…..


আজ  কেউ উৎফুল্ল আবার হয়তো কেউবা বিষন্ন। কারন আজ এমন এক ব্যক্তির দন্ডাদেশ দেয়া হয়েছে তাকে বাংলার মানুষ দুভাবে চিনে। কেউ চিনেন তাকে রাজাকার হিসেবে… আবার কেউ জানেন তাকে একজন ওয়ায়িজ হিসেবে… দুটি চরিত্রের বৈপরীত্র সাধারন মুসলমানদের বিভ্রান্ত করে। আর এ

বাংলার ইহুদীর ফাঁসি


মানবতাবিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত জামায়াতের নায়েবে আমির দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ডের রায় দিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১। বৃহস্পতিবার সাঈদীর বিরুদ্ধে ২০টি অভিযোগের মধ্যে ৮টিই সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় এ রায় ঘোষণা করেন ট্রাইব্যুনাল। বেলা ১১টা ১৯ মিনিট থেকে শুরু করে ১টা ৪০