Posts Tagged ‘শহীদ’

মুসলমানগণ উনারা এমন এক জাতি, যারা শহীদ হতে রাজি রয়েছেন তবুও বাতিলের নিকট মাথা নত করতে রাজি নন


পৃথিবীর সূচনালগ্ন থেকেই মুসলমানগণ উনারা খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার ও উনার রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের সন্তুষ্টি মুবারক পাওয়ার নিমিত্তে নিজেদের জান-মাল কুরবান করতে বিন্দু পরিমাণ ইতস্ততঃবোধ করেননি। উনারা বীরদর্পে বাতিলের মুকাবিলা

আল্লাহ্ পাক-এর পথে যারা নিহত হয়, তাদেরকে মৃত বলোনা; তারা জীবিত ।


আল্লাহ্ পাক বলেন, لا تقولوا لمن يقتل فى سبيل الله اموات بل احياء ولكن لا تشعرون. অর্থঃ- “আল্লাহ্ পাক-এর পথে যারা নিহত হয়, তাদেরকে মৃত বলোনা; তারা জীবিত; কিন্তু তোমরা তা উপলব্ধি করতে পারনা।” (সূরা বাক্বারা/ ১৫৪)…….. মহান আল্লাহ পাক শহীদ

নিশ্চয়ই আমি একজন শহীদ ব্যক্তি।


সম্মানিত হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, হযরত সুমামা ইবনে হাযন কুশাইরী রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি বলেন, (যখন বিদ্রোহীরা সাইয়্যিদুনা হযরত উছমান যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার গৃহ অবরোধ করে রেখেছিল, এ সময়) আমি উনার গৃহের কাছে উপস্থিত ছিলাম। যখন সাইয়্যিদুনা

জ্ঞানকে অবজ্ঞা করে মুসলমান আজ অবহেলিত


মানুষের সবচেয়ে বড় সম্পদ হলো জ্ঞান। পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, জ্ঞান সকল আমলের ইমাম। মূর্খ ব্যক্তি পশুতুল্য। মানুষের শ্রেষ্টত্বের মূলে রয়েছে জ্ঞান। পশু আর মানুষের পার্থক্যকারী জ্ঞান। মানুষের রয়েছে দশ হাজার কোটি নিউরন। জ্ঞান সম্পদ অর্থ সম্পদের

মুসলমানদের ক্ষতিসাধন করাই বিধর্মীদের মূল ধর্ম


ফিলিস্তিনে মুসলমানদের নৃশংস্য ভাবে হত্যা করছে কারা? উত্তরঃ ইহুদীরা ভারতের আসাম-গুজরাটের দাঙ্গায় মুসলমানদের নির্মমভাবে শহীদ করছে কারা? উত্তরঃ হিন্দুরা চীনের উইঘুরে মুসলমানদের নির্যাতন করছে কারা? উত্তরঃ কমিউনিষ্টরা মায়েনমারে হাজার হাজার মুসলমানদেরকে হত্যা করছে কারা? উত্তরঃ বৌদ্ধরা আফগানিস্তান, ইরাক, সিরিয়া ইত্যাদি দেশে

মধ্য আফ্রিকা প্রজাতন্ত্রে গণহারে মুসলমান শহীদ করা হচ্ছে তার তথ্য কি কথিত বিশ্ববিবেকের কাছে যায় না ?


মুসলমান কোন দেশে কাফিরদের পান থেকে চুন খসলেই সব কাফির এক সাথে সাম্প্রদায়িকতার আওয়াজ তোলে ওই মুসলমান দেশের উপর চাপ প্রয়োগ করে তাদের স্বার্থ হাসিল করে। সকল মানবাধিকার, মানবতা, অসাম্প্রদায়িকতা শুধু কাফিরদের জন্যই প্রযোজ্য! মুসলমান উনাদের জন্য যেন কিছুই থাকতে নেই।

মধ্য আফ্রিকান প্রজাতন্ত্রে মুসলমান শহীদ করা হচ্ছে- অথচ সবাই কেন বোবা শয়তান?


শুধুমাত্র মুসলমান হওয়ার অপরাধে সন্ত্রাসী খ্রিস্টান জাতি অত্যন্ত নির্মমভাবে মুসলমান উনাদের শহীদ করছে। পৃথিবীর যে কোনো প্রান্তে একটা কাফিরের পান থেকে চুন খসলেই কাফিরগোষ্ঠী একসাথে প্রতিবাদ করে, নানা ব্যবস্থা প্রবর্তন করে ওই কাফিরকে রক্ষা করার জন্য। তাহলে মুসলমান উনাদের যে শহীদ

পবিত্র কারবালা শরীফ উনার নির্জন প্রান্তরে সাইয়্যিদুশ শুহাদা সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুছ ছালিছ মিন আহলি বাইতি রসূলিল্লাহি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্মানিত শাহাদাত মুবারক উনার জন্য নিঃসন্দেহে ইয়াযীদ লা’নতুল্লাহি আলাইহি-ই দায়ী


৬১ হিজরী সনের ১০ মুহররমুল হারাম শরীফ সাইয়্যিদুশ শুহাদা সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুছ ছালিছ মিন আহলি বাইতি রসূলিল্লাহি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি সপরিবারে কারবালার নির্জন প্রান্তরে সম্মানিত শাহাদাত মুবারক গ্রহণ করেন। মূলত, উনাদের এই শাহাদাত মুবারক উনার পিছনে নিঃসন্দেহে কাফির ইয়াযীদ

বাঙালি রক্তে সিক্ত বালাকোটের ময়দান, ভুলে গিয়েছে এদেশের মুসলমান; ফলে তাদের সঙ্গী হয়েছে লাঞ্ছনা, গঞ্জনা ও অপমান।


হযরত সাইয়্যিদ আহমদ শহীদ বেরেলভী রহমাতুল্লাহি আলাইহি উনার জিহাদই ছিল ভারতবর্ষে যালিম ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক শক্তির বিরুদ্ধে সর্বপ্রথম জিহাদ। সেই জিহাদ উনার একজন প্রধান ব্যক্তিত্ব ছিলেন শাহ ছূফী হযরত নূর মুহম্মদ নিজামপুরী রহমতুল্লাহি আলাইহি। তিনি ছিলেন হযরত সাইয়্যিদ আহমদ শহীদ বেরেলভী রহমাতুল্লাহি

হযরত ইমাম সাইয়্যিদ আহমদ শহীদ বিরলবী রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার পবিত্র বিলাদত শরীফ


পবিত্র আবু দাঊদ শরীফ ও মিশকাত শরীফ উনাদের মধ্যে বর্ণিত আছে- সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খাতামুন নাবিইয়ীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “নিশ্চয়ই মহান আল্লাহ তায়ালা তিনি আমার উম্মতের জন্য প্রতি হিজরী শতকের

সামান্য ব্যবধানে সন্ত্রাসী হিন্দুদের সন্ত্রাসীপনার কয়েকটি ঘটনা আমরা কি বাংলাদেশে আছি না ভারতে? (পর্ব-১)


ঘটনা:১ রাজধানীর উত্তরখান থানার মৈনারটেক বায়তুস সাফী মসজিদ-এর ইমাম ছিলেন মুহম্মদ আখের (৩৮)। মসজিদের মাইকে পবিত্র আযান এবং ভোরে পবিত্র কুরআন শরীফ তিলাওয়াত উনার কারণে পার্শ্ববর্তী হিন্দুদের গা-জ্বালা ধরে যায়। যার কারণে স্থানীয় হিন্দু সন্ত্রাসী নিখিল চন্দ্র সরকার ইমাম সাহেবকে বেশ

“শহীদ” মুসলমানদের জন্য একটি খাছ শব্দ যা কোনো যবন, ম্লেচ্ছ, অস্পৃশ্য হিন্দু কিংবা কোনো বিধর্মী ব্যবহার করতে পারে না


মহান আল্লাহ পাক তিনি শহীদ উনাদের সম্পর্কে ইরশাদ মুবারক করেন, “মহান আল্লাহ পাক তিনি নিয়ামত দান করেছেন- নবী, সিদ্দিক, শহীদ, সলেহ উনাদেরকে। অর্থাৎ উনাদের পথ তলব করতে হবে।” (পবিত্র সুরা নিসা: পবিত্র আয়াত শরীফ ৬৯) মহান আল্লাহ পাক আরো ইরশাদ মুবারক