Posts Tagged ‘হিন্দু’

হিন্দুত্ববাদী বিজেপি নেতা: ‘কাশ্মীর যাও, সুন্দরীদের বিয়ে কর’


কাশ্মীরে গিয়ে সেখানকার সুন্দরী কাশ্মীরি মুসলিম তরুণীদের বিয়ের জন্য বিজেপির হিন্দু কর্মীদের পরামর্শ দিলো উত্তরপ্রদেশের বিজেপি দলীয় এক বিধায়ক। প্রদেশের মুজাফফরনগরে দলীয় সমাবেশে অংশ নিয়ে বিক্রম সাইনি বলেছে, সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল হওয়ায় এখন বিজেপির হিন্দু কর্মীরা কাশ্মীরি সুন্দরী তরুণীদের বিয়ে

পূজা-পার্বণের সময় এদের ‘মানবতা’ কোথায় থাকে? 


বাংলাদেশে মোট জনসংখ্যার ৯৮ ভাগই হচ্ছে মুসলমান। এ কারণে এদেশের সংবিধানে পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনাকে রাষ্ট্রদ্বীন হিসেবে বহাল রাখা হয়েছে। হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ও উপজাতি সবমিলে রয়েছে মাত্র ২ ভাগ। ওদের যে কোনো কল্পিত ধর্মীয় উৎসবের সময় দেখা যায় সরকার স্বয়ং

মুসলিম শাসনামলে বাংলায় এবং উত্তরভারতে দেশবিভাগের আগপর্যন্ত শিক্ষিত হিন্দুদের সংস্কৃতি ছিল ‘মুসলমানী সংস্কৃতি’


মুসলিম শাসনের সময়ে বাংলাদেশে শিক্ষিত হিন্দুদের সংস্কৃতি নিয়ে প্রাবন্ধিক নীরদ সি চৌধুরী তার রচিত ‘আত্মঘাতী বাঙালী’ গ্রন্থে মন্তব্য করেছে- “বাঙালি হিন্দু পুরুষ ইংরেজ রাজত্বের আগে একমাত্র মুসলমান নবাবের কর্মচারী হইলে মুসলমানী পোষাক পরিত, উহা অন্দরে লইয়া যাওয়া হইত না। বাহিরে বৈঠকখানার

তারাপুর চা বাগান হিন্দুদের দেবোত্তর সম্পত্তি; নাকি মুসলমানদের লাখেরাজ সম্পত্তি? প্রকৃত ইতিহাস কি বলে?


  লাখেরাজ সম্পত্তি বলা হয় নিষ্কর বা শুল্ক মুক্ত ভূমিকে। মুসলিম শাসন আমলে মুসলিম শাসকগণ কর্তৃক এ অঞ্চলের মুসলিম ছূফী-দরবেশ ও আলিম-উলামা উনাদেরকে প্রশাসনের তরফ থেকে নিষ্কর অর্থাৎ বিনা খাজনায় হাজার হাজার বিঘা সম্পত্তি দেয়া হতো; যাতে করে উনারা নির্বিঘ্নে ইসলামী

যদি গোবর-গোচনা খাওয়া থেকে বিরত থাকতে চান, তাহলে নাপাক হিন্দুদের হোটেলে খাওয়া-দাওয়া থেকে বিরত থাকুন


মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, “নিশ্চয়ই মুশরিকরা (হিন্দুরা) নাপাক”। নাপাক হিন্দুদের জাতিগত অভ্যাস ধর্মের পবিত্রতার নামে খাবার জাতীয় মিষ্টি, জিলাপী, দই, রসগোল্লা ইত্যাদিতে গোবর-গোচনা ছিটানো যা আমি প্রত্যক্ষদর্শী। নাপাক হিন্দুরা গরুকে তাদের মা মনে

কথিত দেবোত্তর সম্পত্তি নয়, লাখেরাজ সম্পত্তি


লাখেরাজ সম্পত্তি বলা হয় নিষ্কর ভূমিকে। মুসলিম শাসকগণ কর্তৃক এ অঞ্চলের মুসলিম ছূফী-দরবেশ ও আলিম-উলামাগণকে প্রশাসনের তরফ থেকে লাখেরাজ সম্পত্তি দেয়া হতো। যাতে উনারা পেরেশানীমুক্ত হয়ে সম্মানিত দ্বীন ইসলাম উনার পরচার-প্রসার কাজে ব্যাপৃত থাকতে পারেন। এই লাখেরাজ সম্পত্তি ব্যয় করা হতো

দেশদ্রোহী হিন্দু সমাজ


হিন্দুদের অবস্থান ক্লিয়ার । তারা চায় বাংলাদেশে আইএস আছে সেটা প্রমাণ করতে এবং তার মাধ্যমে বাংলাদেশে বিদেশী শক্তির আগমণ ঘটাতে। আমি বলবো, ৫-১০ জন মারা গেলে যদি বিদেশী শক্তির হস্তক্ষেপ লাগে, তবে মুম্বাই হামলার সময় যখন ১৭৫ জন মারা গেলো তখন

ছোট ছোট হিন্দু বাচ্চাদের ট্রেনিং স্কুল খুলে সন্ত্রাসবাদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে


ভিডিওটি দেখতে পারেন। ভারতের উত্তর প্রদেশে মুসলমানদের বিরুদ্ধে লড়াই করতে ছোট ছোট হিন্দু বাচ্চাদের ট্রেনিং স্কুল খুলে প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। এভাবে করেই ভারতে প্রাতিষ্ঠানিক উপায়ে দাঙ্গা ছড়িয়ে দেওয়া হয়। উল্লেখ্য, ভারতের ভেতর উত্তর প্রদেশেই সবচেয়ে বেশি মুসলিম নিধনে দাঙ্গা সংগঠিত হয়।

মুসলমানদের বেশি বেশি সন্তান জন্ম দেয়ার কোশেশ করতে হবে


তুরস্কের রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান যেই কথাটি আজকে বলেছেন, সেই কথাটি বিধর্মীদের ধর্মীয় নেতারা বছরের পর বছর ধরে বলে আসছে। এরদোগান বলেছেন, ‘পরিবার পরিকল্পনা ও জন্মনিয়ন্ত্রণের ধারণা মুসলমানদের সঙ্গে সংগতিপূর্ণ নয়। আমরা আমাদের উত্তরসূরি কয়েক গুণ করব। এই ক্ষেত্রে প্রধান দায়িত্ব বর্তায়

পশ্চিমবঙ্গে যাবে দেশদ্রোহী হিন্দুরা


সম্প্রতি বাংলাদেশের হিন্দুদের অবস্থা পরিদর্শনে এসেছে ভারতের উগ্র হিন্দুত্ববাদী দল বিজেপের একটি প্রতিনিধি দল। বাংলাদেশের হিন্দুদের উপর অত্যচার-নির্যাতন চলছে এবং তাতে তাদের মনোবলে ‘চিড়’ ধরেছে বলে সে অভিযোগ করে। তাই নিরাপত্তা না দেয়া হলে তারা দেশ ছেড়ে পশ্চিমবঙ্গে চলে যেতে চায়।

আওয়ামী লীগের জাতীয় কাউন্সিলে এবার গরুর গোশত বাদ


আওয়ামী লীগের জাতীয় কাউন্সিলে সাধারণত গরুর গোশত পোলাও প্যাকেট বিতরণ করা হলেও এবার এই আইটেম বাদ দেয়া হচ্ছে। এবার মোরগপোলাও দিয়ে কাউন্সিলর, ডেলিগেট ও অতিথিদের আপ্যায়ন করা হবে। এমন ঘটনা শুধু সরকারীভাবেই নয়, অনেক জায়গাতেই হচ্ছে। মুসলিম এই দেশ বাংলাদেশের অনেক

মুসলমানের উপর হিন্দুর নির্যাতন………


বাংলাদেশ কি ভারত হয়ে গিয়েছে? এক মুসলিম যুবককে দোকান ঘরের পিলারের সঙ্গে বেধে বিবস্র করে রড এবং.বিদুৎ সর্ট দিয়ে নির্মম ও অমানবিক নির্যাতন চালিয়েছে ফেনী শহরের কালি মন্দির মার্কেট হরে কৃষঞ ষ্টোরের মালিক অর্জুন দাস ও তার সঙ্গীরা…। পরবর্তীতে তাকে হত্যা