আবু লাহাবের চেয়ে বড় গুনাহগার হলেও পবিত্র রাজারবাগ দরবার শরীফ-এ এলে ৫৮ দিন জান্নাত উনার শান্তি লাভ করবে


সারা বিশ্বের ব্যবসা-বাণিজ্য চলে দুটি ধারায়। প্রথমত, সাধারণ নিত্যপ্রয়োজনে; দ্বিতীয়ত, বিশেষ বিশেষ পর্বকে উপলক্ষ করে। সউদী আরবে পবিত্র হজ্জ উনাকে কেন্দ্র করে প্রায় ৩/৪ মাসব্যাপী বিপুল ব্যবসা হয়ে থাকে। এতে শুধু যে আরব দেশীয় ব্যবসায়ীরাই লাভবান হয় তা নয়, বরং এর সাথে জড়িত থাকে বিশ্বের বড় বড় নামকরা বিভিন্ন কোম্পানিও।
পবিত্র হজ্জ উনাকে উপলক্ষ করে সউদী আরবে প্রায় ৩/৪ মাসব্যাপী চলে প্রায় ৪ থেকে ৫ কোটি লোকের আনাগোনা। প্রায় দুই কোটি হাজী সাহেব তাদের নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের পাশাপাশি আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধব, পাড়া-প্রতিবেশীকে হাদিয়া দেয়ার নিমিত্তে ক্রয় করে থাকে বিবিধ পণ্য। লক্ষ-কোটি ডলারের ব্যবসা হয় পবিত্র হজ্জ উনাকে কেন্দ্র করে। অথচ যিনি সৃষ্টি হওয়ার কারণেই মূলত পবিত্র হজ্জ উনার অস্তিত্ব, সেই নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পবিত্র বিলাদত শরীফ উনার দিন ১২ই রবীউল আউওয়াল শরীফ। যা মুসলমানগণ উনাদের নিকট তাদের দু’ঈদের চেয়েও অনেক বেশি মর্যাদাপূর্ণ ও সম্মানিত এবং আনন্দবহ সবচেয়ে বড় ঈদ।
এ মহান পবিত্র ঈদে মীলাদুন নবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে যথাযথ মর্যাদার সাথে পালন করলে উহাকে উপলক্ষ করেও সারা বিশ্বের ব্যবসায়ীরা তিন মাসব্যাপী বিশাল বাণিজ্যিক সুবিধা লাভ করতে পারেন। এ মহান দিনকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন পণ্যে আকষর্ণীয় ছাড় ও অফার দিয়ে ১লা মুহররমুল হারাম শরীফ থেকে মহাপবিত্র রবীউল আউওয়াল শরীফ উনার শেষ তারিখ পর্যন্ত কোটি কোটি ডলারের ব্যবসা করা যেতে পারে। এতে নতুন উপলক্ষে ব্যবসার নতুন ক্ষেত্র প্রস্তুত হতে পারে, যা ব্যবসায়ীদের মুনাফাকে অনেকগুণ বাড়িতে দিতে পারে।

 

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

Leave a Reply

[fbls]