আশরাফ আলী থানভী ব্রিটিশদের থেকে ৬০০ রুপী মাসিক ভাতা পেত


এটা জানা গেছে যে ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক সরকার মালানা আশরাফ আলী থানভীকে আরাম দিয়েছিল এবং তাকে আয়েসী জীবনযাপন করার ব্যবস্থা করেছিল। এখন কথা হলো এই আরামের, আয়েসী জীবনযাপনটা কেমন ছিল? এই আরাম দেয়ার বিষয়টা হল ব্রিটিশ সরকার আশরাফ আলী থানভীকে মাসিক ৬০০ রুপী ভাতা দিত। অফিসিয়ালি এর কোন মৌখিক স্বীকৃতি নেই, কিন্তু এটা দেওবন্দীদের নিকট জানা বিষয় কিন্তু তারা এটা চেপে রাখে প্রকাশ হতে দেয় না।
জামিয়াতে উলামায়ে হিন্দ এবং জামিয়াতে উলামায়ে ইসলাম এর মাসিক পত্রিকা যেটি দেওবন্দীদের রাজনৈতিক ফ্রন্ট – তার নাম ‘মাকালাহ আস-সাদরাইন’। এটি দেওবন্দ থেকে প্রকাশিত হয়। সেখানে প্রকাশিত হয়েছে যে –
“দেখুন হযরত মালানা আশরাফ আলী থানভী ছিল আমাদের এবং আপনাদের মুসলিম অগ্রজ এবং নেতা, তার সম্পর্কে লোকজনদের থেকে বলতে শোনা গেছে যে সে (ব্রিটিশ) সরকার থেকে ৬০০ রুপী মাসিক ভাতা পেত। এর সাথে তারা আরও বলত মালানা এটা জানত না যে ব্রিটিশ সরকার তাকে এই রুপী দিচ্ছে, তারা তাকে এরূপ ভাবে রুপী দিতে যাতে সে এ বিষয়ে কোন সন্দেহ না করে।”
(মাকালামাহ আস-সাদরাইন, পৃ: ৯)
সুতরাং দেখা যাচ্ছে ম্যাঙ্গো কুলফি কোথা থেকে আসতো এবং কেন আসতো।হুসাইন আহমাদ মাদানীর পূত্র, জামিয়াতে উলামায়ে ইন্ডিয়া এর প্রেসিডেন্ট , সাইয়িদ আরশাদ মাদানী যে দারুল উলুম দেওবন্দের হাদীসের উস্তাদ, সেও খোলাখুলিভাবে স্বীকার করেছে যে তারা ব্রিটিশ সরকারের বেতনভুক্ত ছিল। (মাকালাহ আস-সাদরাইন পৃ: ৭)
নিচের মাকালাহটি পড়ুন –

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

Leave a Reply

[fbls]