গোল্ডেন রাইস (জিএমও শস্য) চাষ করার বুদ্ধিদাতারা দেশ ও জাতির শত্রু


বিশ্বব্যাপী নিষিদ্ধ জিএমও ক্রপ্স (জেনেটিক্যাল মডিফাইড খাদ্য শস্য) বাংলাদেশের মতো খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ একটি দেশে কী করে অনুমোদিত হতে পারে, তা সত্যিই আশ্চর্যের বিষয়। আমাদের দেশে এই আত্মঘাতী বীজ বাণিজ্যিকিকরণের পেছনে কে বা কারা কাজ করছে তাদেরকে চিহ্নিত করা ও খুঁজে বের করাও সময়ের দাবি। গোল্ডেন রাইস নিয়ে ইতোমধ্যে সচেতন মহল পত্র-পত্রিকায়, সোস্যাল নেটওয়ার্কে বেশ সমালোচনা করছেন। প্রশ্নের মুখে পড়ছেন সরকারের মন্ত্রীরা। কিন্তু ঘাপটি মেরে বসে আছে পেছন থেকে কলকাঠি নাড়া বরপুত্ররা।

বিরি হচ্ছে ধান গবেষণার একটি সরকারি প্রতিষ্ঠান। কিন্তু বর্তমানে এটি চালাচ্ছে কারা?

প্রকৃত সত্য গোপন রেখে ইতিবাচক ভঙ্গির উপস্থাপনা করে দেশে এসব বিষাক্ত ধান উৎপাদন করার অনুমোদন নিয়ে সরকারকে বিপাকে ফেলতে চাইছে কারা? এটাতো সর্বজন বিদিত সত্য যে, রাষ্ট্রযন্ত্রের কলকব্জা নাড়ে সচিব ও মন্ত্রীদের পরিচালকরা। প্রকৃতপক্ষে এরা দেশ ও জাতির শত্রু। কোটি কোটি মানুষের জীবনকে হুমকির মুখে ফেলে দিচ্ছে এরাই। সুতরাং এদের চিহ্নিত করে কঠোরভাবে বিচারের আওতায় এনে প্রয়োজনে এদের মৃত্যুদণ্ড দেয়া উচিত।

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

One Comment

Leave a Reply

[fbls]
  1. মিনার says:

    ডায়বেটিক, গ্যাস্ট্রিকসহ অনেক রোগ জেনেটিক্যাল মডিফাইড খাদ্য শস্য দায়ী।