ছবিবিহীন পবিত্র হজ্জ পালন করার ব্যবস্থা করা সকল মুসলিম দেশের সরকারের দায়িত্ব ও কর্তব্য


অঙ্কন করা ও ছবি তোলা ইসলামবিরোধী কাজ। যে ব্যক্তি ছবি তোলে বা তোলায় সে ব্যক্তি চরম ফাসিক। ছবি তোলা এবং পর্দা লঙ্ঘন করা খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার ও উনার রসূল, সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের প্রকাশ্য নাফরমানী। অথচ পবিত্র হজ্জ করতে হলে ছবি তুলতে হয় এবং পাসপোর্ট করতে হয়।
তাছাড়া সউদী সরকার নিরাপত্তার অজুহাতে পবিত্র হজ্জ উনার সময় আরাফার ময়দানে ও মিনায় অসংখ্য সিসি ক্যামেরা স্থাপন করে রাখে, যেখানে হাজী সাহেবদের অসংখ্য ছবি উঠে।
পবিত্র হজ্জ করা যেমন খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার ও উনার রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের আদেশ মুবারক। অনুরূপভাবে বেপর্দা ও ছবি তোলা থেকে বিরত থাকাও খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার ও উনার রসূল, সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের আদেশ মুবারক।
একটা আদেশ মুবারক অমান্য করে আরেকটা পালন করা সম্পূর্ণরূপে নিষিদ্ধ। কাজেই ছবি ও পর্দার আদেশ লঙ্ঘন করে পবিত্র হজ্জ পালন করলে সে পবিত্র হজ্জ কস্মিনকালেও হজ্জে মাবরূর হবে না এবং এটাই পবিত্র কুরআন শরীফ ও পবিত্র সুন্নাহ শরীফ উনাদের ফতওয়া।
তাই বাংলাদেশসহ সমস্ত মুসলিম দেশের সরকারের উচিত- ছবিবিহীন পবিত্র হজ্জ পালন নিশ্চিত করার জন্য এক সাথে কাজ করা।

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

Leave a Reply

[fbls]