জাপানে ৫৪ পরমাণু চুল্লির মধ্যে ৫৩ চুল্লিই বন্ধ


পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্রের আরেকটি চুল্লি বন্ধ করেছে জাপান। এর মধ্য দিয়ে দেশটি আণবিক শক্তির ব্যবহার বন্ধের প্রায় দ্বারপ্রান্তে পৌঁছল। এখন বিদ্যুৎ উৎপাদনে তাদের সক্রিয় থাকল আর মাত্র একটি পরমাণু চুল্লি।
গত বছর ভয়াবহ ভূমিকম্প আর সুনামির ফলে ফুকুশিমা বিদ্যুৎ কেন্দ্রে দুর্ঘটনা ঘটার পর থেকেই জাপানে বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রগুলোতে ধারাবাহিক দুঘর্টনার পরিপ্রেক্ষিতে সর্বশেষ এ চুল্লি বন্ধ করা হল। বিদ্যুৎ ঘাটতির মুখেও এ পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হল কর্তৃপক্ষ, তবে এর জন্য বিস্তারিত কোন কারণ প্রকাশ করা হয়নি।
ফুকুশিমা বিপর্যয়ের আগে জাপানে সক্রিয় ছিল ৫৪টি পরমাণু চুল্লি। তখন জাপানের মোট বিদ্যুতের এক-তৃতীয়াংশ উৎপাদিত হতো পারমাণবিক চুল্লিতে।
কিন্তু গত বছর মার্চে সুনামির পর ফুকুশিমা বিদ্যুৎ কেন্দ্রে দুর্ঘটনায় বিস্তীর্ণ এলাকাজুড়ে তেজস্ক্রিয়তা ছড়িয়ে পড়ে। তেজস্ক্রিয়া থেকে সুরক্ষার জন্য বিদ্যুৎ কেন্দ্রের কাছ থেকে সরিয়ে নিতে হয় লক্ষ লক্ষ মানুষকে।
কাশিওয়াজকি কারিওয়া বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ৬ নং ইউনিট বন্ধ করে দেয় টোকিও ইলেকট্রিক পাওয়ার কোম্পানি। এরপর কেবলমাত্র সক্রিয় থাকে হোক্কাইডো দ্বীপের পরমাণু চুল্লি।

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

Leave a Reply

[fbls]