প্রসঙ্গঃ বাল্যবিবাহ বন্ধ ও ডাস্টবিনের শিশু


বর্তমান সময়ে বাংলাদেশের একটি কমন খবর হয়ে দাঁড়িয়েছে, কোথাও না কোথাও পড়ে থাকা নবজাতক শিশু উদ্ধার। কখনও ডাস্টবিনে, কখনও নর্দমায়, কখনওবা জঙ্গলেই পাওয়া যাচ্ছে এসব পরিচয়হীন শিশুদের। তবে আরও ভয়াবহ খবরও ইদানিং পাওয়া যাচ্ছে। যেমন কিছুদিন আগে রাজধানী ঢাকার একটি বিল্ডিংয়ের ৫ তলার টয়লেটের জানালা দিয়ে রাস্তায় ফেলে দেয়ায় মারা যায় এক নবজাতক শিশু। খবর নিয়ে জানা গেছে, ১০ম শ্রেণীর এক ছাত্রীর সাথে তার চাচার অবৈধ সম্পর্কের ফসল এই শিশুটি। নাউযুবিল্লাহ!
পাঠক! এই খবরগুলো এটাই স্পষ্ট করে আমাদেরকে জানান দিচ্ছে যে, বর্তমানের এই বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে বাল্যবিবাহ কতবেশি জরুরী ও আবশ্যক হয়ে পড়েছে।
কিন্তু সমাজের এই চাহিদা, দেশের মানুষের এই চাহিদাকে উপেক্ষা করে এ দেশের সরকার শুধুমাত্র বিদেশী ইসলামবিদ্বেষী কাফিরগোষ্ঠীর লোভে পড়ে বাল্যবিবাহের বিরুদ্ধে নানারকম মিথ্যা অপপ্রচার চালাচ্ছে।
এদিকে দেশ, সমাজ ও দেশের মানুষের চরিত্র, নৈতিকতা যে বিনষ্ট হয়ে বেলেল্লাপনায় সারাদেশ ছেয়ে যাচ্ছে সেদিকে সরকার বা প্রশাসনের কোন হর্তা-কর্তারই নজর নেই। নাউযুবিল্লাহ!
কিন্তু এভাবে চলতে দেয়া যায় না। দেশের স্বার্থে সমাজের স্বার্থে, মানুষের স্বার্থে সর্বোপরি নিজের ঈমান আমল বাঁচাতে বাল্যবিবাহের বিরুদ্ধে সরকার যে প্রচারণা চালাচ্ছে তার বিরুদ্ধে দাঁড়াতে হবে, প্রতিবাদ করতে হবে। এবং শরীয়তসম্মত পদ্ধতিতে বাল্যবিবাহ জারি করতে হবে, চালু করতে হবে।

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে