বিভ্রান্তি সৃষ্টির জন্যই বিধর্মীরা ভারতবর্ষের মুসলিম শাসকদের ইতিহাসকে বিকৃত করে থাকে


“মহোদয়গণ, এখানে ঐ ছবির সামনে দাঁড়িয়ে (দেয়ালে টাঙ্গানো শিবাজির ছবি দেখিয়ে) আমরা কি তার জীবন থেকে অনুপ্রেরণা লাভ করতে পারি না।… আমি জানি শিবাজি বার বার বঙ্গদেশে হামলা করেছিল (হাস্য), তার বাহিনী আমাদের সম্পদ লুট করেছে, আমাদের মন্দির ও গৃহদেবতা পর্যন্ত ধ্বংস করেছে কিন্তু সঙ্গে সঙ্গে স্মরণ করছি যে, ইংরেজদের সভ্যতা সূচক শাসনে (হিয়ার হিয়ার!) আমরা এখন অখ- ভারতে পরিণত হয়েছি (হিয়ার হিয়ার!) একজন বাঙালী হিসেবে শিবাজির পবিত্র স্মৃতির প্রতি আমি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করছি। (হর্ষ ধ্বনি)” (তথ্যসূত্র: স্পিচেস বাই অনারেবল বাবু সুরেন্দ্রনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়, পঞ্চম খ-, পৃষ্ঠা ৮৭)
গত শতাব্দীর প্রথমার্ধে কলকাতার উগ্র বিধর্মীত্ববাদী নেতা সুরেন্দ্র এভাবেই শিবাজির প্রশংসা করেছিল বিধর্মীদের জনসভায়। সুরেন্দ্র তার বক্তব্যে স্পষ্টতই স্বীকার করেছিল যে, শিবাজি একটি লুটেরা। তার বাহিনী বাঙালি বিধর্মীদের সম্পদ লুট করেছিল, তাদের মন্দির ও গৃহদেবতার মূর্তি ধ্বংস করেছিল। তবুও সে এবং তার অনুসারী বাঙালি বিধর্মীরা তার প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছিল কেন? বিধর্মীদের ইতিহাসে কি ভালো কোন শাসক নেই শ্রদ্ধা নিবেদন করার মতো?
বিধর্মীদের ইতিহাসে গ্রহণযোগ্য কোন ব্যক্তিত্ব না থাকার ফলেই তারা শিবাজির মতো ডাকাতকে শ্রদ্ধা করে। লেজকাটা শৃগালের ন্যায় বিধর্মী সম্প্রদায়ের আরেকটি কাজ হলো পূর্ববর্তী মুসলিম শাসকগণ উনাদের ইতিহাসকে বিকৃত করা, যা চলছে ব্রিটিশ আমল থেকেই। এসব কাজে বিধর্মীদেরকে সহায়তা করেছিল তাদের প্রভু ইংরেজরা। কিন্তু প্রত্যুত্তরে একটি মুসলমানও মুখ ফুটে বলেনি, তোরা বিধর্মীরাই হলি গিয়ে নিকৃষ্ট। তোরা বিধর্মীরাই হলি গিয়ে অবৈধ সন্তান।
ব্রিটিশ আমলে প্রণীত মুসলিম বিদ্বেষী ইতিহাস সমূহ আজও আমাদের দেশের স্কুল থেকে শুরু করে বিশ্ববিদ্যালয় সমূহে শিক্ষা দেয়া হয়, যার ফলে বাঙালি মুসলিম সমাজের আত্মসম্মানবোধ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে, তারা পারছে না ভারতীয় বিধর্মী আগ্রাসনের বিরুদ্ধে শক্ত কথা বলতে। দেশভাগের পর যদি সরকারি উদ্যোগে গবেষণাগার স্থাপন করে মুসলিম শাসনামলের প্রকৃত ইতিহাস বের করে আনা হতো, তাহলে উপমহাদেশের মুসলমানরা আজকের মতো এতোটা বিব্রতবোধ করতো না। শুধু তাই নয়, হয়তো তারা এতোদিনে গোটা ভারতবর্ষই নিজেদের দখলে নিয়ে আসতে পারতো।

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

Leave a Reply

[fbls]