বেপর্দা হলে কি করে সংসারে সুখ থাকবে?


বেপর্দার কারণে আজ সমাজে নানা অপরাধ সৃষ্টি হচ্ছে। মুজাদ্দিদে আ’যম রাজারবাগ শরীফ উনার মামদূহ সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম তিনি নছীহত মুবারক করে থাকেন এই বলে যে, শুধু বেপর্দার কারণে সমাজের বেশিরভাগগ অপরাধ সংঘটিত হয়। শুধু পর্দা করেই মহিলারা সমাজকে এই বেশিরভাগ অপরাধ থেকে রক্ষা করতে পারে।
বেপর্দার রহস্যটা কী সকলের জানা দরকার। মহিলারা তাদের রূপ পরপুরুষকে দেখাতে পছন্দ করে আর পুরুষ এই রূপে মুগ্ধ হয়ে থাকে! নাউযুবিল্লাহ!
পবিত্র কুরআন শরীফ উনার মধ্যে খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি মহিলাদের প্রতি পুরুষের আকর্ষণ তৈরি করে রেখেছেন- এই ঘোষণা দেন। এটা খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার সৃষ্টি কৌশল। খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনিই এর রহস্য ভালো জানেন। আর মহিলাদের রয়েছে রূপ প্রদর্শনের প্রবৃত্তি। এই কারণে পুরুষ- মহিলাদের কাছে পাবে আনন্দ ও সুখ। আর মহিলারা তাদের রূপ দিয়ে মুগ্ধ করে রাখবে পুরুষকে- এটাই নিয়ম। এটাই বিবাহিত মহিলা-পুরুষের বেলায় বৈধ প্রক্রিয়া। নিয়ম বহির্ভূত কোনো মহিলা যখন তার রূপ দিয়ে কোনো পরপুরুষকে আকৃষ্ট করে এবং কোনো পুরুষ যদি সেই সম্মহনীতে আটকা পড়ে তবেই বিপদ। বৈধ সম্পর্ককে আনন্দদায়ক করার উদ্দেশ্যে যে নিয়ম ও তরীকা খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি দান করেছেন তা অবৈধ পথে ব্যবহার গুনাহের কাজ এবং এজন্য মহিলা-পুরুষকে বিশেষভাবে সতর্ক করা হয়েছে আর পর্দার প্রয়োজন হয়েছে।
একজন নারীর দায়িত্ব তার সৌন্দর্য ও সবকিছু স্বামীর জন্য রক্ষা করা। নারীর জন্য পর্দা করা ফরয। পুরুষ গৃহের বাহিরে গিয়ে অর্থ উপার্জন করবে সংসারের সকলের জন্য। এটা পুরুষের জন্য ফরয। ঘরের মানুষ ঘরে থাকবে আর পুরুষ রুজির জন্য বাইরে যাবে।

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

Leave a Reply

[fbls]