ভারত বাংলাদেশে “আই এস” এর নামে গুলশান হত্যাকান্ড ঘটাবেন না, এটা কি আপনি মনে করেন ?


যে ভারত নিজ দেশে গার্মেন্টস শিল্প উন্নয়নের জন্য শ্রীলংকায় গৃহযুদ্ধ বাধাতে পারে, সে একই কারণে বাংলাদেশে “আই এস” এর নামে গুলশান হত্যাকান্ড ঘটাবেন না, এটা কি আপনি মনে করেন ??
২০০৮-২০০৯ সালে শ্রীলংকায় তালিম টাইগারদের সাথে যে গৃহযুদ্ধ সংগঠিত হয়, ধারণা করা হয় এর পেছনে মূল কারণ ছিলো ভারত। ভারত শ্রীলংকার বৃদ্ধি পাওয়া গার্মেন্টস তথা পোষাক শিল্পকে ধ্বংস করতেই তামিল টাইগারদের উস্কে এ যুদ্ধ সংগঠিত করে। এতে ভারত অবশ্য আংশিক সফল হয়। শ্রীলংকার পোষাক শিল্প অনেকটাই ধ্বংষ হয়ে যায়। তবে সেই মার্কেটটা ভারত না পেয়ে পেয়ে বসে বাংলাদেশ।

উল্লেখ্য ভারতের সাম্প্রতিক সময়ে বিশেষ ভাবে শিল্পজোন তৈরীর কাজ চলছে। ইতিমধ্যে গুজরাটে প্রায় ৩০ হাজার হেক্টর এলাকা জুড়ে নির্মিত হয়েছে ৫৫টি স্পেশাল ইকোনোমিক জোন। এর মধ্যে ১৪% অর্থাৎ ৪২০০ হেক্টর এলাকা জুড়ে নির্মিত হয়েছে গার্মেন্টস কারখানা (Surat Apparel Park SEZ, Ahmedabad Apparel Park SEZ, Pradip Overseas Ltd, Jindal Worldwide Limited)। কিন্তু এত বড় গার্মেন্টস জোন তৈরী হলেও দুঃখের বিষয় এ অঞ্চলে বাংলাদেশের একচেটিয়া অধিপত্যের কারণে ভারতে কাজ যাচ্ছে না। ফলে ভারতের গোয়েন্দা সংস্থা র’ কে এগোতে হচ্ছে ভিন্ন পথে।

সম্প্রতি বাংলাদেশে গুলশান হত্যাকাণ্ডের জন্য যতগুলোর কারণ চিহ্নিত করা হয়েছে তার মধ্যে শীর্ষে ছিলো আন্তর্জাতিক পোষাক বায়ারদের বাংলাদেশ থেকে ফিরিয়ে গুজরাটে স্পেশাল ইকোনোমিক জোনের দিকে আকৃষ্ট করা। যার দরুণ বলি হতে হয়েছে ইতালীর শীর্ষ ৯ গার্মেন্টস বায়ারকে।

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে