রাস্তায় মিছিল-মিটিং হয়, কিন্তু কুরবানীর পশুর হাট ও পশু জবাই করতে বাধা কেন?


আমরা মুসলমান। মুসলমান অর্থই হলো মহান আল্লাহ পাক উনার এবং উনার হাবীব সাইয়্যিদুল মুরসালীন ইমামুল মুরসালীন খাতামুন্্ নাবিয়্যীন নূরে মুজাস্সাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের প্রতি আনুগত্যের সহিত আত্মসমর্পণ করা। আর মহান আল্লাহ পাক তিনি এবং উনার হাবীব সাইয়্যিদুল মুরসালীন ইমামুল মুরসালীন খাতামুন্্ নাবিয়্যীন নূরে মুজাস্্সাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনারা যা আদেশ মুবারক করেছেন তা পালন করা ফরয।
মূলকথা হচ্ছে, পবিত্র কুরবানী হলো যিনি খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনারই একটি খাছ বা বিশেষ শিয়ার বা নিদর্শন মুবারক এবং ওয়াজিব ইবাদত। কিন্তু পবিত্র কুরবানী নিয়ে এদেশের প্রসাশনে ঘাপটি মেরে বসে থাকা পবিত্র কুরবানী বিদ্বেষী মহল বিভিন্ন মিথ্যা অজুহাত দেখিয়ে রাস্তায় রাস্তায় কুরবানীর পশুর হাট না দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে। নাঊযুবিল্লাহ!
ঐ মহলটির জেনে রাখা উচিত- রাজনৈতিক দলগুলো রাস্তা বন্ধ করে মিছিল মিটিং করতে পারলে, রাস্তায় পূজাম-প করতে পারলে কুরবানীর পশুর হাট নিয়ে এত চু-চেরা কেন???
সরকারের উচিত হবে, পবিত্র কুরবানী বিদ্বেষী মহলের মিথ্যাচার ও প্রোপাগা-ায় বিভ্রান্ত না হওয়া। বরং সম্মানিত মুসলমান উনারা যাতে অতি সহজেই পবিত্র কুরবানী করতে পারেন তার জন্য সব রকমের সুব্যবস্থা করা। আর এই লক্ষ্যে প্রতি মোড়ে মোড়ে, পাড়ায় পড়ায়, মহল্লায় মহল্লায় পবিত্র কুরবানীর পশুর হাট বসানোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা।

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

Leave a Reply

[fbls]