সউদীর কথিত গ্র্যান্ড মুফতীরা দাজ্জালের মতো কানা কেন?


ইহুদী বংশোদ্ভূত মরুদস্যু সউদ পরিবার জাজিরাতুল আরবের ক্ষমতা দখলের পর এ পর্যন্ত তিন জনকে গ্র্যান্ড বা সরকারি প্রধান মুফতী হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়। এরা হলো-
১) ইবরাহিম আল আশ-শায়েখ (১৯৫৩-১৯৬৯)
২) ১৯৬৯-১৯৯৩ পর্যন্ত কেউ ছিলো না।
৩) আব্দুল্লাহ বিন বাজ (১৯৯৩-১৯৯৯)
৪) আব্দুল্লাহ আল শায়েখ (১৯৯৯- এখন আছে)
উপরের প্রত্যেক গ্রান্ড মুফতীর ক্ষেত্রেই দেখা যায় তারা জীবনের কোনো না কোনো সময় এসে এক বা দু’চোখ অন্ধ হয়ে গেছে।
উল্লেখ্য, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন- “শেষ যামানায় একদল দাজ্জালের চ্যাল্যা বের হবে।” যেহেতু সউদী সরকরের কথিত গ্র্যান্ড মুফতীরা পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনাকে বিকিয়ে দিয়ে একদিকে বাতিল আক্বীদাভুক্ত ওহাবী-সালাফী মতবাদ প্রচার করে এবং অন্যদিকে ক্ষমতাসীন সউদ পরিবারের সমস্ত হারাম কাজকে হালাল বলে ফতওয়া দিচ্ছে, সেহেতু এদের মধ্যে দাজ্জালের লক্ষণ জাহির হয়ে তারা কানা বা অন্ধ হয়ে গেছে। নাউযুবিল্লাহ!

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

Leave a Reply

[fbls]