সউদী পরিচালিত বিশ্বজুড়ে সক্রিয় ভয়ঙ্কর সন্ত্রাসী সংগঠন ‘এলইটি’


সউদী আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশের অর্থে পরিচালিত হয় লস্কর-ই তৈয়্যবার (এলইটি) সাংগঠনিক কার্যক্রম। শুধু পাকিস্তানেই ১৬টি ইনস্টিটিউট, ১৩৫টি স্কুল ও একাধিক হাসপাতাল পরিচালনা করে এলইটি। সংগঠনটি ‘জামাত-উদ দাওয়া’ নামেও পরিচিত। ‘আল দাওয়া’ নামে সংগঠনটির একটি উর্দু ভাষায় প্রকাশিত জার্নাল (সাময়িকী) রয়েছে; যার প্রচার সংখ্যা ৮০ হাজার বলে দাবি করা হয়। এছাড়া সংগঠনের নিজস্ব ওয়েবসাইট রয়েছে।
পাকিস্তানের সাবেক শিক্ষক মালানা হাফিজ সাঈদ বর্তমানে এলইটি’র আমীর হিসেবে দায়িত্ব পালন করছে। আবদুল্লাহ মুনতাজের এ সংগঠনের আন্তর্জাতিক মুখপাত্র। এছাড়া হাফিজ সাঈদের ছেলে তালহা পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের রাজধানী মুজাফফরাবাদে থেকে দলের কাজ পরিচালনা করে। এখানে সুইসাইড স্কোয়াডসহ এলইটি’র কমপক্ষে ৭৫০ জন ক্যাডার সক্রিয় রয়েছে। পাকিস্তান আফগানিস্তান ছাড়াও সুদান, বাহরাইন, মধ্য এশিয়া, তুরস্ক এবং লিবিয়া থেকে কর্মী সংগ্রহ করে থাকে এলইটি। দল পরিচালনায় বছরে ৩৫ কোটি রুপি ব্যয় করে দলটি।
এলইটি’র কর্মীরা ‘ক্যাডার’ ও ‘উলামা’ নামে পরিচিত। প্রথমে রিক্রুট করার পর এর ক্যাডারদের ২ মাসের অস্ত্র প্রশিক্ষণ এবং উলামাদের ৪২ দিনের বিশেষ তাত্ত্বিক প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। এলইটি’র আত্মঘাতী গ্রুপ ‘ফিদায়েন’ নামে পরিচিত। বিভিন্ন দেশে একাধিক বড় হামলায় জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে এলইটি’র উপর।
তথ্যসূত্র: কাউন্সিল অন ফরেইন রিলেশনস (সিএফআর)

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

Leave a Reply

[fbls]