হাক্বীক্বী গোলাম কিরূপ হবেন ??


 

এক বুজুর্গ ব্যক্তি তিনি বাজার থেকে একজন গোলাম খরিদ করে এনেছিলেন। কিছুক্ষণ পর উনার খানকা শরীফে তা’লীম তালক্বীন হচ্ছে। এর মধ্যে তিনি ঐ গোলামকে জিজ্ঞাসা করলেন- “হে ব্যক্তি তুমি কি খাবে? কি পড়বে? কি কাজ করবে? কোথায় থাকবে?” চারটি প্রশ্ন করেছিলেন বুজুর্গ ব্যক্তি তিনি সে গোলামকে। এখন গোলাম যেহেতু গোলাম, সে সহজ-সরলভাবে জওয়াব দিলো- “আপনি যা দিবেন তাই খাবো। যা দিবেন তাই পড়বো। যা বলবেন তাই করবো। যেখানে রাখবেন সেখানেই থাকবো।”

এখন গোলাম তার গোলাম হিসেবে যে জওয়াব, সেটা সে সঠিকভাবেই দিয়েছে। একথা শুনে বুযুর্গ ব্যক্তি তিনি কাঁনতে থাকলেন। তখন উনার মুরীদ-মু’তাক্বিদ যারা উপস্থিত ছিলো, সকলেই জিজ্ঞাসা করলো- “হে আমাদের শায়েখ! আপনার কাঁন্নার কি কারণ? আমরা বুজতে পারতেছিনা।” তিনি বললেন- “দেখো! এক ব্যক্তিটিকে আমি কিছু পয়সা দিয়ে খরিদ করেছি।

আমি তাকে তৈরী করিনি বানাইনি। আমার থেকে বেশী দিলেও অন্য কেউ তাকে কিনে নিতে পারতো। এখন মাত্র সামান্য সময় পর সে আমার মতের সাথে তার মতটা মিলিয়ে দিলো।”

কিন্তু আমার বয়স অনেক হয়ে গেছে। তারপরও যিনি খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক এবং যিনি নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের মত ও পথ মুবারক উনাদের সাথে আমি আমার মত ও পথ মিলাতে পারলাম না। তাই আমার কান্না পাচ্ছে।”

সুবহানাল্লাহ!!!

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে